X
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
১১ আশ্বিন ১৪২৯

ধসে নয়, অপসারণ করা হচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার স্কুলটির ছাদ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
১১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:৫৪আপডেট : ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:০০

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় তলায় নির্মাণাধীন চিলেকোঠার ছাদ ধসে পড়ার গুজব ছড়িয়ে পড়েছে। এ নিয়ে শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে খবরও প্রকাশিত হয়েছে। তবে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের দাবি, ধসে পড়ার বিষয়টি সত্য নয়। কাউকে না জানিয়ে ঠিকাদার কাজটি করায় তা অপসারণ করা হচ্ছে।

জানা গেছে, নাসিরনগর উপজেলা প্রকৌশল অধিদফতরের অধীনে ২০১৯-২০ অর্থবছরে নাসিরনগর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণের জন্য দরপত্র আহ্বান করা হয়। নিচতলা থেকে তিনতলা করতে নির্মাণ ব্যয় ধরা হয় প্রায় ৬৯ লাখ টাকা। জমির-জুলিয়া ট্রেডার্স নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এই নির্মাণ কাজটি করছে। করোনা পরিস্থিতির কারণে দীর্ঘদিন কাজ বন্ধ ছিল। গত ২২ আগস্ট হঠাৎ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কাউকে না জানিয়ে স্কুল ভবনের চিলেকোঠার ছাদ ঢালাইয়ের কাজ শুরু করে। এ সময় স্কুলের প্রধান শিক্ষক অজিত কুমার দাস ঢালাই কাজ নিয়ে আপত্তি জানান। পরে কাজ বন্ধ রাখার জন্য তিনি মৌখিকভাবে উপজেলা প্রকৌশলীর কাছে  অভিযোগ করেন।

প্রধান শিক্ষকের অভিযোগ, ঠিকাদার শুরু থেকেই কাজ নিয়ে টালবাহানা করে আসছিল। কাজের পরিকল্পনা ও নকশা চাইলেও ঠিকাদার দেয়নি। কাউকে না জানিয়ে ভবনের ছাদ হঠাৎ ঢালাই শুরু করেন। যার কারণে কাজের মান নিয়ে তারা প্রশ্ন তোলেন। পরে বিষয়টি উপজেলা প্রকৌশলীকে জানানোর পর এক চিঠির মাধ্যমে ২৪ আগস্ট ঠিকাদারকে তৃতীয় তলায় নির্মাণাধীন চিলেকোঠা ছাদ অপসারণে নির্দেশ দেন। যার কারণে ঠিকাদার আজ স্বেচ্ছায় অপসারণের কাজ শুরু করেন

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুর রহিমও একই কথা জানান। তার ভাষ্য, ঠিকাদার কাউকে না জানিয়ে হঠাৎ নির্মাণ কাজ শুরু করে। পরে এ নিয়ে বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরে অবগত করা হয়। উপজেলা প্রকৌশলী ঠিকাদারকে চিঠি দেন এবং চিলেকোঠার ছাদ অপসারণের নির্দেশ দেন। সেই নির্দেশনা অনুযায়ী ঠিকাদার স্বেচ্ছায় ছাদটি অপসারণ করেন। তবে ধসে পড়ার মতো কোনও ঘটনা ঘটেনি। এছাড়া বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষের ক্লাস নেওয়ার ক্ষেত্রে কোনও প্রভাব পড়বে না।

ঠিকাদার জমির উদ্দিন আহমেদ নিক্সন বলেন, ‘আমি প্রকৌশল অফিসের কাউকে না জানিয়ে ছাদ ঢালাই করেছিলাম সত্য। কারণ সম্প্রতি আমার পিতা মারা গেছেন। পিতার মৃত্যুর কারণে আমি অনেকটা ভেঙে পড়েছি। আমার ঠিকাদারি কাজে সাইটের খবর নিতে পারিনি। তাই শ্রমিকরা কাজটি করে ফেলেছিলেন। তবে উপজেলা প্রকৌশল অফিস থেকে ছাদটি ভেঙে নতুনভাবে করার জন্য গত ২৪ আগস্ট আমাকে একটি চিঠি দেয়। পরে চিঠির আলোকে আজ সকাল থেকেই নির্মাণ সামগ্রী সরিয়ে ফেলার উদ্যোগ নেই। এখানে ধসে পড়ার কোনও ঘটনা ঘটেনি। এটি গুজব ছড়ানো হয়েছে।’

উপজেলা প্রকৌশলী মো. সাইফুল বলেন, ‘কাউকে না জানিয়ে ঠিকাদার স্কুলটির তৃতীয় তলার কাজ হঠাৎ শুরু করে। কাজের মান নিয়ে এবং কাউকে না জানিয়ে কাজ শুরু করায় তাকে গত ২৪ আগস্ট নির্মাণাধীন কাজের অংশ ভেঙে ফেলার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়। নির্দেশনা অনুযায়ী ঠিকাদার অপসারণ করে নেয়। আজ সকাল থেকে অপসারণ কাজ শুরু করে। তবে ধসে পড়ার মতো কোনও ঘটনা ঘটেনি।’

নাসিরনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হালিমা খাতুন বলেন, ‘আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ছাদটি ভেঙে নতুনভাবে করতে ঠিকাদারকে উপজেলা প্রকৌশলী চিঠি দিয়েছেন। ঠিকাদার অপসারণের কাজ করেছে। তবে ধসে পড়ার বিষয়টি গুজব।’

/এফআর/
সম্পর্কিত
সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণে ৪ শর্ত
সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণে ৪ শর্ত
শোক দিবস পালনকালে মানতে হবে যেসব স্বাস্থ্যবিধি
শোক দিবস পালনকালে মানতে হবে যেসব স্বাস্থ্যবিধি
সরকারি দফতরে বিদ্যুতের ব্যবহার ২৫ শতাংশ কমানোর সিদ্ধান্ত
সরকারি দফতরে বিদ্যুতের ব্যবহার ২৫ শতাংশ কমানোর সিদ্ধান্ত
সচিব হলেন তিন কর্মকর্তা
সচিব হলেন তিন কর্মকর্তা
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
রোহিঙ্গা ইস্যুতে সহায়তা করবে চীন
রোহিঙ্গা ইস্যুতে সহায়তা করবে চীন
ইউএনও সমর কুমারের সঙ্গে কাজ করতে চান না ১৪ জনপ্রতিনিধি
ইউএনও সমর কুমারের সঙ্গে কাজ করতে চান না ১৪ জনপ্রতিনিধি
সীমান্ত বন্ধের বিষয়ে অবস্থান স্পষ্ট করলো রাশিয়া
সীমান্ত বন্ধের বিষয়ে অবস্থান স্পষ্ট করলো রাশিয়া
বিএনপির সমাবেশস্থল পাল্টে দিয়েও এড়ানো যায়নি সংঘর্ষ
বিএনপির সমাবেশস্থল পাল্টে দিয়েও এড়ানো যায়নি সংঘর্ষ
এ বিভাগের সর্বশেষ
‘বিপর্যস্ত মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে সরকার ব্যস্ত বিলাসিতায়’
‘বিপর্যস্ত মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে সরকার ব্যস্ত বিলাসিতায়’
‌‘সরকার নিজস্ব অর্থায়নে মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে’
‌‘সরকার নিজস্ব অর্থায়নে মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে’
‘তেলের দাম বাড়াতে বিক্রেতারা সরকারের অপেক্ষা করে না’
‘তেলের দাম বাড়াতে বিক্রেতারা সরকারের অপেক্ষা করে না’
২০২৩ সালেও শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চাই: আইভী
২০২৩ সালেও শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চাই: আইভী
‘সরকারের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হলে সবার উন্নতি হবে’
‘সরকারের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হলে সবার উন্নতি হবে’