X
রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২
১৯ আষাঢ় ১৪২৯

চাঁদপুর লঞ্চঘাটে ঢাকামুখী মানুষের উপচে পড়া ভিড়

আপডেট : ০৮ মে ২০২২, ২৩:০৯

ঈদের ছুটি শেষে কর্মস্থলে ফিরতে চাঁদপুর লঞ্চঘাটে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চাঁদপুর থেকে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানের লঞ্চ পর্যাপ্ত যাত্রী নিয়ে ঘাট থেকে ছেড়ে যাচ্ছে। 

বন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ঈদের পর যাত্রীদের সবচেয়ে বেশি ভিড় ছিল শনিবার। তবে রবিবারও যাত্রীদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। রবিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ২০টি লঞ্চে ঢাকায় ফিরেছেন কয়েক হাজার যাত্রী।

বিকালে লঞ্চঘাটে দেখা গেছে, চাঁদপুর, লক্ষ্মীপুর, নোয়াখালী, শরীয়তপুর থেকে আসা বিপুল সংখ্যক যাত্রী ঘাটে অবস্থান করছেন। লঞ্চ এলেই উঠে যাচ্ছেন যাত্রীরা। যাত্রী পরিপূর্ণ হলেই লঞ্চ ছাড়ছে গন্তব্যের উদ্দেশে।

বিআইডব্লিউটিএ সূত্রে জানা যায়, রবিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত চাঁদপুর ঘাট থেকে যাত্রী নিয়ে ছেড়ে গেছে ২০টি লঞ্চ। ঢাকা থেকে এসেছে ১৯টি লঞ্চ। নারায়ণগঞ্জ থেকে এসেছে ১১টি, চাঁদপুর থেকে নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে গেছে ১৬টি এবং শরীয়তপুর থেকে আসা দুটি লঞ্চ যাত্রী নিয়ে ছেড়ে গেছে।

রায়পুর থেকে আসা ঢাকাগামী যাত্রী রায়হান বলেন, ঈদ উদযাপন করার জন্য বাড়িতে এসেছি। পরিবারের সঙ্গে ঈদের সময়টা ভালো কেটেছে। এখন কর্মস্থলে নিরাপদে যাওয়ার চিন্তায় আছি।

চাঁদপুর থেকে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানের লঞ্চ পর্যাপ্ত যাত্রী নিয়ে ঘাট থেকে ছেড়ে যাচ্ছে

হাজীগঞ্জ উপজেলার আরেক যাত্রী মোহাইমিনুল ইসলাম বলেন, করোনার কারণে গত দুই বছর ঈদে বাড়িতে আসতে পারিনি। এ বছর ঈদের আগেই বাড়িতে এসেছি। স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে বাবা-মায়ের সঙ্গে অনেক আনন্দ করেছি। বিশেষ করে শিশুরা বাড়িতে এসে খুবই মজা করেছে। এখন কর্মস্থলে ভালোভাবে যাওয়ার প্রত্যাশা করছি।

চাঁদপুর নৌ-থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুজ্জামান বলেন, বৃহস্পতিবার থেকেই ঢাকাগামী যাত্রীদের চাপ বাড়তে শুরু করে। লঞ্চঘাটে আমাদের পুলিশ সদস্যরা নিয়মিত দায়িত্ব পালন করছেন। 

চাঁদপুর বন্দর ও পরিবহন কর্মকর্তা এ কে এম কায়সারুল ইসলাম বলেন, ঈদুল ফিতর উদযাপন শেষে ঢাকাগামী যাত্রীদের চাপ রয়েছে। আমাদের পর্যাপ্ত সংখ্যক লঞ্চ থাকায় টার্মিনালের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। যাত্রী সাধারণের উদ্বিগ্ন হওয়ার কারণ নেই। সবাই নিরাপদে গন্তব্যে যেতে পারবে।

/এএম/ 
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
যুদ্ধের প্রভাবে আবারও লোডশেডিংয়ের কবলে দেশ
যুদ্ধের প্রভাবে আবারও লোডশেডিংয়ের কবলে দেশ
বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ কে?
বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ কে?
মাদ্রাসাছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ
মাদ্রাসাছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ
শিক্ষা আইন প্রণয়ন কমিটিতে যুক্ত হতে চায় হেফাজত
শিক্ষা আইন প্রণয়ন কমিটিতে যুক্ত হতে চায় হেফাজত
এ বিভাগের সর্বশেষ
ট্রেনের টিকিটের জন্য বসে পড়লেন কাউন্টারের সামনে
ট্রেনের টিকিটের জন্য বসে পড়লেন কাউন্টারের সামনে
হ্যালো, এটা কি ৮-এপিবিএন 
হ্যালো, এটা কি ৮-এপিবিএন 
ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার
ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার
মিয়ানমার থেকে ইয়াবা আনা আসামি রিমান্ডে
মিয়ানমার থেকে ইয়াবা আনা আসামি রিমান্ডে
বাড়ি ফেরার পথে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা
বাড়ি ফেরার পথে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা