X
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

‘চাঁদা না দেওয়ায়’ লাইনম্যানকে পেটালেন শ্রমিক লীগ নেতা

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি
১৪ জানুয়ারি ২০২৪, ২১:১৭আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২৪, ২১:১৭

কক্সবাজারের সেন্টমার্টিনে চাঁদা না পেয়ে লাইনম্যানকে লাঠি দিয়ে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে সেন্টমার্টিন ইউনিয়নের জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি সালাহ উদ্দিনের বিরুদ্ধে। মারধরের শিকার মো. হামিদ সেন্টমার্টিন অটোরিকশা, মিনি টমটম ও ভ্যান গাড়ি মালিক সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক। তিনি সেন্টমার্টিন পূর্বপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

রবিবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে সেন্টমার্টিন বাজারে চাঁদা না পেয়ে মারধরের ঘটনায় পুলিশ ফাঁড়িতে লিখিত অভিযোগ করেন মারধরের শিকার মো. হামিদ।

হামিদ বলেন, ‘প্রতিদিনের মতো সেন্টমার্টিন দ্বীপে পর্যটকদের যাতায়াতের সুবিধার্থে রাস্তায় সারিবদ্ধভাবে গাড়িগুলো রাখা হয়। সে কাজে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছি। এ সময় সেন্টমার্টিন ইউনিয়নের জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি সালাউদ্দিন ফোন দিয়ে চাঁদা দাবি করে। চাঁদা দিতে অনীহা প্রকাশ করায় সালাউদ্দিনের নেতৃত্বে ৬-৭ জন লোক এসে আমাকে লাঠি দিয়ে ব্যাপক মারধর করে। এ সময় মেরে ফেলার হুমকিও দেন। এ ঘটনায় আমি সেন্টমার্টিন পুলিশ ফাঁড়িতে লিখিত অভিযোগ করেছি।’

জানতে চাইলে সেন্টমার্টিন পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আব্দুল বাতেন বলেন, ‘মারধরের বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

চাঁদা চাওয়ার কথা অস্বীকার করলেও অভিযুক্ত সেন্টমার্টিন শ্রমিক লীগের সভাপতি সালাউদ্দিন বলেন, ‘লাইনম্যানের সঙ্গে আমার মারামারি হয়নি, হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। তবে চাঁদা দাবি বিষয়টি বানোয়াট।’

সেন্টমার্টিন অটোরিকশা সমবায় সমিটির সভাপতি মো. ইসহাক বলেন, ‘সরকারি রেজিস্ট্রেশনভুক্ত সংগঠন আমরা তিন বছর ধরে সুনামের সঙ্গে চালিয়ে যাচ্ছি। কিন্তু হঠাৎ করে জাতীয় শ্রমিক লীগ নেতারা চাঁদা দাবি করে আসছে। আজকে চাঁদা না পেয়ে আমাদের লাইনম্যানকে ব্যাপক মারধর করেছে। আমরা হামলাকারীদের বিচার দাবি করছি।’

/কেএইচটি/
সম্পর্কিত
সেন্টমার্টিন-শাহপরীর দ্বীপে উড়ে গেছে বাড়িঘর, ভেঙেছে গাছপালা
কালকিনিতে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থককে ‘হাতুড়িপেটা’
ঘূর্ণিঝড় রিমালসেন্টমার্টিনে পানি বৃদ্ধি, আশ্রয়কেন্দ্রে যেতে মাইকিং
সর্বশেষ খবর
কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এলো মৃত হরিণ
কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এলো মৃত হরিণ
দেশে ফিরে এভারেস্টজয়ী বাবর বললেন, গর্ববোধ করছি
দেশে ফিরে এভারেস্টজয়ী বাবর বললেন, গর্ববোধ করছি
চাকরির মেয়াদ শেষে জাবি রেজিস্ট্রারের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ: ইউজিসির নির্দেশনা লঙ্ঘন
চাকরির মেয়াদ শেষে জাবি রেজিস্ট্রারের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ: ইউজিসির নির্দেশনা লঙ্ঘন
আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবসে নানা কর্মসূচি
আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবসে নানা কর্মসূচি
সর্বাধিক পঠিত
আরেক পুলিশ কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
আরেক পুলিশ কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
এবারও ধরাছোঁয়ার বাইরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটি
এবারও ধরাছোঁয়ার বাইরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটি
সাড়ে ১৪ হাজার কোটি টাকায় ১১ প্রকল্পে অনুমোদন
সাড়ে ১৪ হাজার কোটি টাকায় ১১ প্রকল্পে অনুমোদন
যুদ্ধাপরাধের তদন্ত: আইসিসির প্রসিকিউটরকে হুমকি দিয়েছিলেন মোসাদ প্রধান
যুদ্ধাপরাধের তদন্ত: আইসিসির প্রসিকিউটরকে হুমকি দিয়েছিলেন মোসাদ প্রধান
পুলিশের সার্জেন্ট দম্পতির বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা
পুলিশের সার্জেন্ট দম্পতির বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা