X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

খুলনায় নির্বাচনি সহিংসতায় বাবুল নিহতের ঘটনায় আটক ৫

আপডেট : ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৫:৪১

নির্বাচনি সহিংসতায় খুলনার তেরখাদা উপজেলার মধুপুর ইউনিয়নের বাবুল শিকদার (৩৮) নিহতের ঘটনায় পাঁচ জনকে পুলিশ আটক করেছে।

তেরখাদা থানার ওসি মো. জহুরুল আলম বলেন, ‘ঘটনার পরই অভিযান চালিয়ে হামলা ও হত্যায় জড়িত সন্দেহে পাঁচ জনকে আটক করা হয়েছে। পাশাপাশি খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে নিহতের লাশ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘নিহত বাবুল ওই ইউনিয়নের কুলা গ্রামের সিরাজ শিকদারের ছেলে। নির্বাচনি সহিংসতার শিকার হয়ে শনিবার (২৭ নভেম্বর) রাতে আহত হন এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রবিবার (২৮ নভেম্বর) ভোরে মারা যান।’

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, নির্বাচনি বিরোধকে কেন্দ্র করে কুলা পাটগা‌তি গ্রামের বাবুল শিকদারকে প্রতিপক্ষের লোকজন শনিবার রাত ১২টা ১৫ মিনিটের দিকে হাতুড়িসহ ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। মাথায় গুরুতর আঘাত পান বাবুল শিকদার। এলাকাবাসী তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে ঢাকায় নেওয়ার প্রচেষ্টাকালে ভোর সোয়া ৬টার দিকে মারা যান।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ইউপি নির্বাচনকে ঘিরে দুই সদস্য প্রার্থী রিপন ও বাবুল গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। নিহত বাবুল ছিল রিপন গ্রুপের সমর্থক।

/এফআর/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
চট্টগ্রামের ৩ থানায় নতুন ওসি
চট্টগ্রামের ৩ থানায় নতুন ওসি
ম্যাথুজ নিজেও বোঝেননি তার ব্যাটে বল লেগেছে
ম্যাথুজ নিজেও বোঝেননি তার ব্যাটে বল লেগেছে
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাড়িতে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর বাবার নামে আসে বিদ্যুৎ বিল
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাড়িতে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর বাবার নামে আসে বিদ্যুৎ বিল
ইউল্যাবে সেমিনার: ‘অনুবাদে শহীদুল জহির: বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি’
ইউল্যাবে সেমিনার: ‘অনুবাদে শহীদুল জহির: বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি’
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
সড়কে প্রাণ গেলো ইউপি সদস্যসহ ৩ জনের
সড়কে প্রাণ গেলো ইউপি সদস্যসহ ৩ জনের
হাত-মুখ বেঁধে ২ বোনকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ
হাত-মুখ বেঁধে ২ বোনকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ
দুই বোনকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: গ্রেফতার ৩
দুই বোনকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: গ্রেফতার ৩
ছেলে হত্যার অভিযোগে বাবা আটক
ছেলে হত্যার অভিযোগে বাবা আটক
৪ বছরেও শেষ হয়নি সেতুর কাজ, উঠতে হয় মই দিয়ে
৪ বছরেও শেষ হয়নি সেতুর কাজ, উঠতে হয় মই দিয়ে