X
সকল বিভাগ
সকল বিভাগ

কালীগঞ্জ-চুয়াডাঙ্গা সড়কের বেহাল দশা

আপডেট : ১৩ মে ২০২২, ১৫:২২

খানাখন্দে ভরা ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ-চুয়াডাঙ্গা সড়ক। এর মধ্যে প্রায় এক কিলোমিটার সড়কের বেহাল দশা। সড়কের বেশিরভাগ অংশের পিচ-পাথর উঠে গিয়ে সুরকি-বালু বেরিয়ে গেছে। তৈরি হয়েছে বড় বড় গর্ত। বিশেষ করে বিহারি মোড় থেকে রেলগেট পর্যন্ত চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

কোটচাঁদপুর, চুয়াডাঙ্গা, যশোর, ঝিনাইদহ-খুলনা, ঢাকা ও চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের যানবাহন চলাচল করে এই সড়ক দিয়ে। প্রায় এক বছর হলো সড়কটি চলাচলে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্তের। এসব গর্তে আটকে থাকে বৃষ্টির পানি। সেই জলাবদ্ধতার মধ্য দিয়েই সড়কটি দিয়ে হাজার হাজার যানবাহন চরম দুর্ভোগ নিয়ে চলাচল করছে। ফলে যান চলাচলে বিঘ্ন ঘটে যানজট তৈরি হচ্ছে। অনেক সময় বাস-ট্রাক গর্তে পড়ে আটকে যায়। এছাড়া প্রায়ই উল্টে যায় ইজিবাইক, নছিমন, মোটরসাইকেল। অনেক সময় এসব যানবাহন সড়কেই অকেজো হয়ে পড়ে থাকে। এতে ভোগান্দি পোহাতে হয় সড়কে চলাচলকারী যাত্রী ও চালকদের।

স্থানীয় ব্যবসায়ী তপন কুমার বলেন, ‘সড়কটি যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। রাস্তার সমস্যার কারণে হাসপাতালে যেতে অসুস্থ রোগী আরও বেশি অসুস্থ হন। পৌরসভা, ভূমি অফিস, রেলস্টেশন, শোয়াইবনগর ফাজিল মাদ্রাসা, শিবনগর প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন গ্রাম ও এলাকায় যাওয়ার একমাত্র সড়ক এটি। কিন্তু সড়কটির দিকে কর্তৃপক্ষের কোনও নজর নেই।’

গাড়ির চালকরা বলছেন, ‘চলাচলে অনুপযোগী এই সড়কে গাড়ি চালিয়ে বিভিন্ন যন্ত্রপাতি নষ্ট হয়ে লোকসান গুণতে হয়। একটু বৃষ্টি হলেই গাড়ি চলাচল তো দূরের কথা, রাস্তায় হাঁটাও যায় না। রাস্তা ভেঙে ডোবা হয়ে যাচ্ছে, কর্তৃপক্ষের নজর নেই। সড়কটি দ্রুত মেরামতের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাই।’

ঝিনাইদহ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ আনোয়ার পারভেজ বলেন, ‘সড়ক সংস্কারে অনেক আগেই টেন্ডার হয়েছে। ঠিকাদার কাজ করবেন। কিন্তু দীর্ঘদিন হয়ে গেলেও কাজ শুরু হয়নি।’

/আরকে/এসএইচ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
আগে দুই দিন লাগতো, এখন দিনে গিয়ে দিনেই ফিরবো
আগে দুই দিন লাগতো, এখন দিনে গিয়ে দিনেই ফিরবো
সরকারের উন্নয়ন দেখে বিরোধী দলের মাথা নষ্ট: তাজুল ইসলাম
সরকারের উন্নয়ন দেখে বিরোধী দলের মাথা নষ্ট: তাজুল ইসলাম
ভিনিসিয়ুসের গোলে লিভারপুলকে হারিয়ে শিরোপা রিয়াল মাদ্রিদের
ভিনিসিয়ুসের গোলে লিভারপুলকে হারিয়ে শিরোপা রিয়াল মাদ্রিদের
‘মুক্তিযুদ্ধের সময়ও গুরুদায়িত্ব পালন করেন আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরী’
‘মুক্তিযুদ্ধের সময়ও গুরুদায়িত্ব পালন করেন আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরী’
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
চুয়াডাঙ্গায় ৩ ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা
চুয়াডাঙ্গায় ৩ ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা
সুন্দরবনে মাছ ধরা ও পর্যটক প্রবেশে তিন মাসের নিষেধাজ্ঞা
সুন্দরবনে মাছ ধরা ও পর্যটক প্রবেশে তিন মাসের নিষেধাজ্ঞা
যশোরে ৬টি অবৈধ ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কার্যক্রম বন্ধ
যশোরে ৬টি অবৈধ ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কার্যক্রম বন্ধ
নিরপেক্ষ সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে: মির্জা ফখরুল
নিরপেক্ষ সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে: মির্জা ফখরুল
উপকূলীয় ১০ উপজেলায় সুপেয় পানির তীব্র সংকট
উপকূলীয় ১০ উপজেলায় সুপেয় পানির তীব্র সংকট