দুই শিশুসহ গৃহবধূকে নিয়ে উধাও সিএনজিচালক!

Send
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
প্রকাশিত : ২২:২০, নভেম্বর ১৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৩৩, নভেম্বর ১৩, ২০১৯

চট্টগ্রাম

দুই শিশু সন্তানকে নিয়ে বাবার বাড়ি থেকে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্বামীর বাড়ি যাওয়ার পথে নিখোঁজ হয়েছেন এক গৃহবধূ। মা সঙ্গে থাকার পরেও তাকে অভিনব কায়দায় রাস্তায় নামিয়ে দিয়ে গৃহবধূ ও তার শিশু সন্তানদের নিয়ে উধাও হয়েছে অটোরিকশার চালক। মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে চট্টগ্রামের হাটহাজারী থানার আমানবাজার থেকে নজুমিয়ার হাট এলাকায় যাওয়ার পথে কাপ্তাই রাস্তার মোড় থেকে নিখোঁজ হন তারা। এ ঘটনায় অপহরণের অভিযোগে চান্দগাঁও থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি)  করেছেন গৃহবধূর মা রিনা আক্তার।

এসব তথ্য নিশ্চিত করে চান্দগাঁও থানার ওসি আবুল কালাম জানান, অপহৃত তিনজনকে উদ্ধারে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।

অপহৃতরা হলেন গৃহবধূ ফাতেমা আক্তার নিপা (২৪), তার ছেলে আদনান সাইদ অয়ন (৪) ও মেয়ে ফাহমিদা জাহান রিমি (২)।

জিডি’তে উল্লেখ করা হয়েছে, মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে হাটহাজারী থানাধীন আমান বাজারের যৌগিরহাট এলাকা থেকে নজুমিয়ার হাট যাওয়ার জন্য একটি অজ্ঞাত সিএনজিচালিত অটোরিকশা ভাড়া করেন গৃহবধূ ফাতেমা আক্তার নিপা। এসময় দুই শিশু ছাড়াও নিপার সঙ্গে ছিলেন তার মা রিনা আক্তার। সিএনজি অটোরিকশাটি কাপ্তাই রাস্তার মাথায় যাওয়ার পর চালক অটোরিকশা বন্ধ করে গাড়ি থেকে নেমে গেলে রিনা আক্তার নাতি-নাতনিদের জন্য জামা কিনতে যান। এর ১০-১৫ মিনিট পর ফিরে এসে দেখেন, সিএনজি অটোরিকশা আর ওখানে নেই। এরপর থেকে নিপা ও তার ছেলেমেয়ের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।

এ ব্যাপারে মোবাইল ফোনে রিনা আক্তার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘মেয়ে এবং নাতি-নাতনিকে নিয়ে মেয়ের জামাইয়ের বাড়ি বোয়ালখালীর ফুলতলী এলাকায় যাওয়ার কথা ছিল। যৌগির হাট থেকে আমরা নজুমিয়ার হাট পর্যন্ত সিএনজি ভাড়া করি। সেখান থেকে আরেকটি সিএনজি অটোরিকশায় করে আমাদের ফুলতলী যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ভাড়া করা সিএনজি অটোরিকশার চালক সিএনজিতে ওঠার পর বলে, সে ফুলতলী যাচ্ছে। চাইলে আমরা এক সিএনজি অটোরিকশাতেই যেতে পারি। তখন চালকের কথায় আমরা রাজি হয়ে যাই। এরপর সে অক্সিজেন হয়ে কাপ্তাই রাস্তার মোড়ে গিয়ে হুট করে অটোরিকশাটি থামায়। এরপর তার পরিচিত কাউকে বিকাশে টাকা পাঠানোর জন্য ৫ মিনিট সময় চেয়ে গাড়ি থেকে নেমে যায় সে।’

রিনা আক্তার আরও বলেন,‘ যেহেতু বসেছিলাম তাই এসময় আমিও সিএনজি থেকে বের হয়ে নাতি-নাতনির জন্য কাপড় কিনতে একটি দোকানে ঢুকি। ওই দোকান থেকে বের হয়ে আমি আর সিএনজি অটোরিকশা দেখতে পাইনি।’

ওসি আবুল কালাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এ ঘটনায় অপহৃত ওই গৃহবধূর মা থানায় জিডি করেছেন। অভিযোগ পেয়েই পুলিশ নিখোঁজদের উদ্ধারে অভিযান শুরু করে। আশা করছি, শিগগির তাদের উদ্ধার করতে পারবো।’

 

 

/এমএ/টিএন/

লাইভ

টপ