শ্রমিক লীগের নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগ

Send
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৭:২৭, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:২৮, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯

 

সিরাজগঞ্জে বিজয় দিবসে স্মরণিকা প্রকাশের নামে শ্রমিক লীগের নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগ পাওয়া গেছে। পশ্চিমাঞ্চল গ্যাস কোম্পানি লিমিটেড (পিজিসিএল) এর কর্মচারী ইউনিয়নের সদস্যদের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ। সংগঠনটি শ্রমিক লীগের অন্তর্ভুক্ত না হয়েও নাম ব্যবহার করছে। বিগত বছরগুলোতে স্বল্প পরিসরে চাঁদা তোলা হলেও এবার ব্যাপকতা বেড়েছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা। স্মরণিকায় ২০-৭০ হাজার টাকা মূল্যের বিজ্ঞাপন পেতে ডিসেম্বরের শুরুতেই অন্তত পাঁচ শতাধিক চিঠি পাঠানো হয়েছে।

কর্মচারী ইউনিয়নের প্যাডে অনুদান বা সহযোগীতার আশায় পিজিসিএল কোম্পানির উপকারভোগী বিভিন্ন ‌ঠিকাদার ও মালামাল সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের কাছে চাঁদা চাওয়া হয়। অথচ এ ধরনের স্মরণিকা প্রকাশের আগে পিজিসিএল প্রতিষ্ঠান প্রধানের কোনও অনুমোদন নেওয়া হয়নি।

শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) জাতীয় শ্রমিক লীগ, সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি আব্দুল কাদের চাঁদ বলেন, ‘পিজিসিএল কর্মচারী ইউনিয়ন জাতীয় শ্রমিক লীগের অন্তর্ভুক্ত নয়। তবু তারা আমাদের নাম ব্যবহার করছে। পিজিসিএল, সিরাজগঞ্জের কর্মচারী ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে কেন্দ্র থেকে আজ পর্যন্ত কোনও চিঠি আমরা পাইনি।’

পিজিসিএল ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আব্দুল মান্নান পাটোয়ারি বলেন, ‘বিষয়টি জেনে তদন্ত করে দেখার জন্য প্রশাসনিক দফতরকে এরই মধ্যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।’

পিজিসিএল প্রশাসনিক দফতরের মহা-ব্যবস্থাপক (জিএম) আবুল কাশেম প্রধানিয়া বলেন, ‘বিজয় দিবস স্মরণিকা প্রকাশে অনুদান সংগ্রহের নামে শ্রমিক ইউনিয়নের চাঁদাবাজির বিষয়টি জানলেও লিখিত অভিযোগ নেই। লিখিত অভিযোগ না পেলে তদন্ত হবে কী করে।’

চাঁদাবাজির বিষয়টি অস্বীকার করে পিজিসিএল কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি আবুল হোসেন বলেন, ‌‌‘প্রতি বছরই বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে আর্থিক সহযোগিতা বা অনুদান প্রাপ্তি সাপেক্ষেই স্বাধীনতা বা বিজয় দিবসের স্মরণিকা প্রকাশ করা হয়। এটা চাঁদাবাজির মধ্যে পড়ে না।’

/এনএস/

লাইভ

টপ