মারধরের পর গৃহবধূর চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগ

Send
পাবনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৮:৫০, জানুয়ারি ২৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:০৪, জানুয়ারি ২৪, ২০২০

মারধরের পর গৃহবধূর চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগ

পাবনার ভাঙ্গুরায় খাদিজা খাতুন (২৫) নামের এক গৃহবধূকে মুখ, হাত ও পা বেঁধে মারধরের পর চুল কেঁটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে। উপজেলার খানমরিচ ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। ওই গৃহবধূ শুক্রবার ভাঙ্গুড়া থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

 

খাদিজা খাতুন ওই গ্রামের শাহেদ ফকিরের স্ত্রী। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পারিবারিক অভাব-অনটন নিয়ে স্বামী শাহেদের সঙ্গে প্রায়ই ঝগড়া হতো খাদিজা খাতুনের। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় খাদিজাকে মারধর করেন স্বামী শাহেদ, শ্বশুর মালেক ফকির ও শাশুড়ি শাহিদা খাতুন। এরপর রাত তিনটার দিকে খাদিজাকে হাত-পা ও মুখ বেঁধে ফেলেন তারা। কাঁচি দিয়ে মাথার চুল কেটে দেয় তারা।

শুক্রবার ভোরে খাদিজা বাড়ি থেকে পালিয়ে তার মামা আবুল কালামের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। ওইদিন দুপুরে খাদিজা ভাঙ্গুড়া থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ দেন তিনি।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ভাঙ্গুড়া থানার ওসি মাসুদ রানা জানান, আসামিদের ধরতে পুলিশ এরই মধ্যে অভিযান শুরু করেছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

/এমআর/

লাইভ

টপ