দোকান খোলায় গরম পানিতে দোকানির হাত ঝলসে দেওয়ার অভিযোগ

Send
যশোর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৫:৫৬, এপ্রিল ০১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:০০, এপ্রিল ০১, ২০২০

আহত দোকানদার

সরকারি নির্দেশ অমান্য করে চায়ের দোকান খোলায় যশোরে শফিকুল ইসলাম (৩৫) নামে এক দোকানির হাত গরম পানিতে ঝলসে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ডিবি পুলিশের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে ডিবি পুলিশের মুখপাত্র তৌহিদুল ইসলাম বলেছেন, ‘ এ ঘটনায় ডিবি পুলিশের কেউ জড়িত নয়। কোটি পরে অনেক বাহিনী কাজ করে। তবে কারা কাজটি করেছে তা শনাক্তে কাজ চলছে।’ 

যশোর শহর নতুন খয়েরতলা ভাস্কর্য মোড় এলাকার চা দোকানি শফিকুল ইসলাম বলেন, ২৬ মার্চ দুপুরে তিনি দোকানের শাটার অর্ধেকটা নামিয়ে নিয়ে ভেতরে ব্যবহৃত ওয়ান টাইম চায়ের কাপ ধ্বংস করার জন্য জড়ো করছিলেন। পাশে ইলেকট্রিক কেটলিতে গরম পানি ছিল। বেলা ১২টার দিকে দু’জন পুলিশ শাটার উঠিয়ে দোকানে ঢোকেন। তাদের দু’জনের পরনের কোটির ওপর ডিবি লেখা ছিল। একজনের কোমরে পিস্তল এবং হাতে ওয়্যারলেস ছিল। অপরজনের হাতে হ্যান্ডকাফ ছিল। দোকানের ভেতরে ঢুকেই তারা গালিগালাজ করতে থাকেন। একপর্যায়ে হাতে ওয়্যারলেস থাকা ব্যক্তি কেটলির গরম পানি শরীরে ছুঁড়ে মারেন। গরম পানিতে বাম হাতের বাহু এবং পিঠের বাম পাশ ঝলসে যায়। এছাড়া আমার ভাইদের মারধরও করে। পরে পাশের ফার্মেসি থেকে তিনি প্রাথমিক চিকিৎসা নেন। যাওয়ার আগে তারা বলেন, ৪/৫ তারিখের আগে বাড়ি থেকে যাতে বের না হই। ভয়ে আর বের হননি। হাতে পচন ধরলে স্থানীয়রা তাকে সোমবার (৩০ মার্চ) সন্ধ্যায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এখন হাসপাতাল থেকেও তাকে চলে যেতে বলা হচ্ছে।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার আরিফ আহমেদ বলেন, রোগীর অবস্থা এখন অনেক ভালো। এখানে থাকলে জীবাণুর সংক্রমণ হতে পারে। সেজন্য তাকে বাড়ি থেকে চিকিৎসা নিতে বলা হয়েছে।

 

/এসটি/

লাইভ

টপ