বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটূক্তি: ইবির আরেক শিক্ষার্থী বহিষ্কার

Send
ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৩:৫৩, এপ্রিল ০৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:০৩, এপ্রিল ০৯, ২০২০

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়াজাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি করায় এবার আরেক শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) প্রশাসন। ফেসবুকে বঙ্গবন্ধু ও তার হত্যাকাণ্ডের বিচার নিয়ে কটূক্তি করেন ওই শিক্ষার্থী। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের ছাত্র এবং ছাত্র মৈত্রী ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার কর্মী। কটূক্তির জের ধরে ছাত্র মৈত্রী তাকে সংগঠনের সব দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়েছে।

বুধবার (৮ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে বহিষ্কারের বিষয়টি জানানো হয়।

অফিস আদেশে বলা হয়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ওই ছাত্র বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে যে মন্তব্য করেছে তা অবমাননাকর ও মর্যাদাহানিকর। এরূপ মন্তব্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি বিনষ্ট করেছে। এ কারণে তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হলো। এছাড়া তাকে কেন চূড়ান্তভাবে বহিষ্কার করা হবে না, এ মর্মে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার সাত কার্যদিবসের মধ্যে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। এছাড়া বিষয়টি যাচাই-বাছাইয়ের জন্য তিন সদস্যদের তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে।

কমিটিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্মনকে আহ্বায়ক, আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. রেহেনা পারভীন ও পরিসংখ্যান বিভাগের সভাপতি ড. সাজ্জাদ হোসেনকে কমিটির সদস্য করা হয়েছে। কমিটিকে যথা শিগগির সম্ভব তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

জানা যায়, বুধবার (৮ এপ্রিল) বিকালে ফেসবুকে কটূক্তিমূলক পোস্ট দেন ওই ছাত্র। এরপর সন্ধ্যায় এক বিবৃতির মধ্যমে তাকে ছাত্র মৈত্রীর সব কার্যক্রম থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র মৈত্রী।

এদিকে এ ঘটনার পর সন্ধ্যা থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ওই পোস্টের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের একাধিক নেতাকর্মী। এসময় তারা ওই শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিস্কারের দাবি জানান।

প্রসঙ্গত, এর আগে মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের  বিচার নিয়ে কটূক্তি করায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের মাস্টার্সের এক ছাত্রীকে সাময়িক বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ

 

 

/এফএস/

লাইভ

টপ