চবি উপাচার্যের করোনা শনাক্ত

Send
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
প্রকাশিত : ০২:০৭, জুলাই ১২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:১০, জুলাই ১২, ২০২০

 

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীন আখতারচট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীন আখতারের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনিবার (১১ জুলাই) সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার (তথ্য) স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অসুস্থবোধ করায় উপাচার্য এবং তার পরিবারের সদস্যদের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষায় উপাচার্যের করোনা পজিটিভ ফল আসে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম মনিরুল হাসান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, নমুনা পরীক্ষায় উপাচার্য করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে উপাচার্যসহ তার বাসার ১২ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। সেখানে সাত জনের কোভিড-১৯ পজিটিভ এসেছে। এদের মধ্যে উপাচার্য, উনার মেয়ে এবং তিন নাতনির কোভিড-১৯ পজিটিভ এসেছে। তাছাড়া উপাচার্য বাসভবনের দুই কেয়ারটেকারের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে উপাচার্যের শারীরিক অবস্থা ভালো আছে। জ্বর আর কাশি ছাড়া অন্য কোনও উপসর্গ নেই। রবিবার (১২ জুলাই) চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে তার ভর্তি হওয়ার কথা রয়েছে। রোগ মুক্তির জন্য তিনি চবি পরিবারসহ সবার কাছে দোয়া কামনা করেন।

প্রসঙ্গত, দেশে করোনা মহামারির প্রকোপ শুরুর পর থেকে নানা ধরনের কর্মসূচি গ্রহণ করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন উপাচার্য। শুরুতে চবি পরিবারের (শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী, ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ) সদস্যদের সুরক্ষা দিতে উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয় মেডিক্যাল সেন্টারের সক্ষমতা বৃদ্ধি ও আধুনিকায়ন এবং বৃহত্তর চট্টগ্রামের জনগোষ্ঠির সুবিধার্থে চবিতে করোনা টেস্টিং ল্যাব স্থাপনসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেন এবং সার্বক্ষণিক ক্যাম্পাসে অবস্থান করে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে সম্মুখ সারিতে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। এছাড়া চবির অস্থায়ী কর্মচারী, চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী, বিশ্ববিদ্যালয়ের সুরক্ষায় নিয়োজিত কর্মচারী এবং গরীব শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন ধরনের সহায়তা প্রদানসহ করোনা প্রতিরোধে সবধরনের কার্যক্রমে তিনি অংশ নেন।

 

/টিটি/

লাইভ

টপ