নারী চিকিৎসকের দাবিতে হাসপাতাল ঘেরাও

Send
হিলি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৯:৩৩, অক্টোবর ১৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৪৬, অক্টোবর ১৭, ২০২০

 




নারী চিকিৎসকের দাবিতে নারীদের হাসপাতাল ঘেরাও

দিনাজপুরের হিলি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেশ কিছু দিন ধরে নারী চিকিৎসক নেই। ফলে সেবা বঞ্চিত হওয়ায় নারী চিকিৎসকের দাবিতে হাসপাতাল ঘেরাও করলেন উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে আসা নারী রোগীরা।
শনিবার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে বেশ কিছু নারী হাসপাতালের প্রধান ফটকে অবস্থান নেন। এ সময় তারা নারী চিকিৎসক পোস্টিং না হওয়া পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন। পরে পৌর মেয়র উপস্থিত হয়ে আগামী সাত দিনের মধ্যে এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিলে তারা কর্মসূচি প্রত্যাহার করেন।
হাসপাতালে আসা নাজমা বেগম ও মেহেরুন আকতার বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, পুরো হাকিমপুর উপজেলায় কোনও ক্লিনিক নেই। একমাত্র সরকারি হাসপাতালই আমাদের চিকিৎসা সেবার মূল ভরসা। একইসঙ্গে আশেপাশের অনেক মানুষ এখানে চিকিৎসা গ্রহণ করেন। কিন্তু ৫ মাসের বেশি সময় ধরে এ হাসপাতালে মাত্র একজন নারী চিকিৎসক থাকলেও তিনি অন্যত্র চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন। আমরা বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অসুখের জন্য হাসপাতালে আসলেও পুরুষ চিকিৎসক হওয়ায় সব ধরনের সমস্যার কথা বলতে পারি না। নারীদের বেশ কিছু সমস্যা রয়েছে যা পুরুষ চিকিৎসকদের কাছে কেউ বলতেও চায় না। একজন নারী চিকিৎসক থাকলে অনায়াসে তার কাছে সমস্যাগুলোর কথা বলতে পারতাম। তাই হাসপাতালে যেন দ্রুত একজন নারী চিকিৎসক দেওয়া হয় সেজন্য আজ আমরা হাসপাতাল ঘেরাও এবং অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচি পালন করেছি। পরে মেয়র এ বিষয়ে আশ্বাস দিলে কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নিই।

হাকিমপুর পৌরসভার মেয়র জামিল হোসেন চলন্ত বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, নারী চিকিৎসকের দাবিতে বিভিন্ন এলাকা থেকে নারীরা জড়ো হয়ে হাসপাতাল ঘেরাও করেছেন এমন খবর পেয়ে সেখানে উপস্থিত হই। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে আগামী সাত দিনের মধ্যে এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তাদের আশ্বাস দেই।
হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. তৌহিদ আল হাসান বাংলা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হাসপাতালে ৯ জন চিকিৎসকের পদে রয়েছেন ৪ জন। এদের মধ্যে একজন নারী চিকিৎসক থাকলেও করোনার কারণে অ্যাটাচমেন্টে তিনি অন্যত্র চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন। এদিকে একজন মাত্র নারী চিকিৎসকের পদায়ন থাকলেও তিনি না থাকায় হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা নারী রোগীরা তাদের কথাগুলো পুরুষ চিকিৎসকদের বলতে পারছেন না। যার কারণে তারা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এলাকার নারী রোগীরা সেই ক্ষোভ থেকেই আজকের অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন। বিষয়টি আমরা ঊর্ধ্বতন কতৃপক্ষকে অবহিত করেছি। আশা করছি কর্তৃপক্ষ অচিরেই ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

/আরআইজে/এমএমজে/

লাইভ

টপ
X