X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

বীজ থেকে গজাচ্ছে না চারা!

আপডেট : ১৬ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:৫৬

বাজারে পাওয়া ভেজাল বীজ



দিনাজপুরের হিলির হাট ও বাজারের দোকান সয়লাব হয়ে গেছে ভেজাল ও নিম্নমানের বীজে। এসব বীজ কিনে প্রতারিত হচ্ছেন কৃষকরা। ভালো ফলনের আশায় বাড়তি দাম দিয়ে বীজ কিনে চারা গজানো নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। উপজেলা কৃষি অফিস বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছে।


হিলি বাজারের বিভিন্ন বীজের দোকান ঘুরে দেখা গেছে, সরকারি বীজের পাশাপাশি বিভিন্ন নামিদামি কোম্পানির বীজ বিক্রি করা হচ্ছে। এছাড়াও অনেক প্রতিষ্ঠানের বীজ বিক্রি করা হচ্ছে যাদের নেই সরকারি বীজ প্রত্যায়নকারী সংস্থার সনদ। এমনকি অনেক দোকানদার তারা নিজেরাই নিজের মতো করে বীজ উদ্ভাবন করে তা চমকপ্রদ প্যাকেটে করে বিক্রি করছেন। এসব দোকান থেকে বীজ কিনে প্রতারিত হচ্ছেন অনেকে। 

বাজারে পাওয়া ভেজাল বীজ
বোয়ালদাড় গ্রামের কৃষক মামুন হোসেন ও একরামুল হক বলেন, হিলি বাজারের একটি দোকান থেকে এসিআই কোম্পানির ব্রি-২৯ বীজ ধান ১৪০ টাকায় কিনেছি। এরপরে তা নিয়ে গিয়ে তাদের দেওয়ানির্দেশনা মোতাবেক তিন দিন ভিজিয়ে রাখি, দুদিন জাগ দিয়ে রাখি যাতে কোন বাতাস না ঢুকে, সব কাজ করলেও দেখি অধিকাংশ চারা গাজাচ্ছে না, মাত্র ২৫ ভাগ বীজ গাজাইছে। যার কারণে আবারও নতুন করে বীজ কিনে সেগুলো ফেলাতে হলো অনেকেই যারা এই কোম্পানির বীজ নিয়ে এসেছে তাদের সবার একই অবস্থা। তবে অনেক কৃষক যারা বাড়িতে বীজ রেখেছিল তাদেরটা ভালো ছিল। কিন্তু সব খরচ করে ধান ফেলালেও বীজ না গজানোয় আবার নতুন করে বীজ কিনতে হয়েছে। এতে করে আমাদের খরচ বেড়ে গেলো। 

বাজারে পাওয়া ভেজাল বীজ
কৃষক স্বপন হোসেন বলেন,  ‘এবার বোরো মৌসুমে জিরাশাইল ধান লাগানোর জন্য বাজার থেকে বিসমিল্লা সিডের বীজ ক্রয় করে আনি। নির্দেশনা মোতাবেক সব প্রক্রিয়া মেনে সেই ধান ছিটালেও বীজ গজাইনি। আমরা যে টাকা পয়সা খরচ করে বীজ কিনলাম তারপর বীজতলা তৈরি করলাম সব মাটি হয়ে গেলো। বাধ্য হয়ে আবারও অন্য কোম্পানির বীজ ধান নিয়ে এসে সেগুলো ছিটিয়েছি, সেগুলো গজায়ছে বেশ সুন্দর। এভাবে বাজারে ভেজাল ও নিন্মমানের বীজ বিক্রি করছে যা কিনে কৃষকরা প্রতারিত হচ্ছেন এই বিষয়টি অফিসের দেখা উচিত।’
বীজ বিক্রেতা আব্দুল করিম সরদার বলেন,  ‘আদ্রতা যেখানে ১২ শতাংশ রাখার কথা সেখানে কোনও কারণে হয়তো লিক হয়েছে বা বাতাস ঢুকেছে যার কারণে আদ্রতা ১০ শতাংশ হয়েছে সেক্ষেত্রে এমনটি হতে পারে। তবে তারা যদি এগুলো রোদে শুকিয়ে নিয়ে আদ্রতা ১২ শতাংশতে নামিয়ে আনতে পারে সেক্ষেত্রে এগুলো আবার ফুটতে পারে। তবে গজানো আর না গজানো বীজের ব্যাপার এটি হয়, আমরা দীর্ঘদিন ধরে এসিআই কোম্পানির বীজ বিক্রি করে আসছি কোনও অভিযোগ পাওয়া যায়নি। এবারেও বিক্রি করেছি কিন্তু মাত্র ৬ জন কৃষক ঘুরে এসেছে যাদের নাকি বীজ গজায়নি। তবে কেউ অভিযোগ করলে সঙ্গে তার টাকা ফেরত দিয়ে দিচ্ছি কোম্পানি থেকেও সেভাবে বলা আছে।’

বাজারে পাওয়া ভেজাল বীজ
হাকিমপুর উপজেলা কৃষি অফিসার ড. মমতাজ সুলতানা বলেন,  হাকিমপুর উপজেলায় বিসিআইসি ও বিএডিসি মিলিয়ে ১৯ জন লাইসেন্সধারী দোকানদার রয়েছেন যারা বীজ ও সার বিক্রি করে থাকেন। এর বাহিরে যাদের কাগজ নেই তারাও বীজ বিক্রি করে থাকেন। এছাড়াও কেউ যদি ভেজাল ও নিন্মমানের বীজ বিক্রি করে থাকেন সেটি আমাদের অগোচরে করেই থাকেন। আর কৃষকরাও আমাদের অগোচরেই তারা সরাসরি দোকানদারদের নিকট থেকে বীজগুলো কিনে নিয়ে যান। দোকানদাররা সরাসরি কৃষকদের সঙ্গেই এসব বিষয়গুলো দেখভাল করেন। তবে বীজ না গজানোর বিষয়ে তিনি বলেন ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা অভিযোগ দিলে কেন বীজ গজাচ্ছে না সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কোম্পানির বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আর এমনটা না হওয়াই উচিত যদি তারা সঠিক বীজ ও ভালো বীজ দেয় তাহলে তো বীজ অবশ্যই গাজাবে। এছাড়াও বর্তমানে আবহাওয়া এত খারাপ নেই যে বীজ গজাবে না। চলতি বোরো মৌসুমে ৩৭০ হেক্টর জমিতে বীজতলা করার লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও বর্তমানে ৩৪০ হেক্টর জমিতে বীজতলা করা হয়েছে। এখনও বীজতলা করা অব্যাহত রয়েছে, তাতে করে লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হবে। 

 

/এসটি/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
কক্সবাজারের ক্যাম্প থেকে ধান কাটতে দিনাজপুরে, রোহিঙ্গা আটক
কক্সবাজারের ক্যাম্প থেকে ধান কাটতে দিনাজপুরে, রোহিঙ্গা আটক
নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয় ট্রাস্টির দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা
নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয় ট্রাস্টির দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা
বিদেশ থেকে পণ্য কিনে দেওয়ার নামে টাকা আত্মসাৎ, গ্রেফতার ২
বিদেশ থেকে পণ্য কিনে দেওয়ার নামে টাকা আত্মসাৎ, গ্রেফতার ২
কাপুরুষ ছাড়া মেয়েদের ওপর আঘাত করতে পারে না: রিজভী
কাপুরুষ ছাড়া মেয়েদের ওপর আঘাত করতে পারে না: রিজভী
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
হাঁড়িভাঙা বদলে দিলো ভাগ্য, ২০০ কোটি টাকা বিক্রির আশা
হাঁড়িভাঙা বদলে দিলো ভাগ্য, ২০০ কোটি টাকা বিক্রির আশা
গৃহপরিচারিকাকে ধর্ষণ, সেটেলমেন্ট অফিসের উপ-সহকারীর বিরুদ্ধে মামলা
গৃহপরিচারিকাকে ধর্ষণ, সেটেলমেন্ট অফিসের উপ-সহকারীর বিরুদ্ধে মামলা
১ জুন থেকে ঢাকা-শিলিগুড়ি ট্রেন চলাচল শুরু
১ জুন থেকে ঢাকা-শিলিগুড়ি ট্রেন চলাচল শুরু
অফিস করেন না শিক্ষা কর্মকর্তা
অফিস করেন না শিক্ষা কর্মকর্তা
রংপুরে গৃহবধূ হত্যায় একজনের আমৃত্যু কারাদণ্ড
রংপুরে গৃহবধূ হত্যায় একজনের আমৃত্যু কারাদণ্ড