X
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
১৩ ফাল্গুন ১৪৩০

কলেজটি থেকে এবারও মেডিক্যালে চান্স পেলেন ৫১ শিক্ষার্থী

নীলফামারী প্রতিনিধি
১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৯:৩৫আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৯:৩৫

নীলফামারীর এক কলেজের ৫১ শিক্ষার্থী এ বছর বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন। জেলার সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজ থেকে শিক্ষার্থীরা মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষায় অসাধারণ ফলাফল করেছেন।

রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকালে এমবিবিএস প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার প্রকাশিত ফলে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত বিভিন্ন মেডিক্যাল ৫১ জন শিক্ষার্থী ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন। এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ। গত বছর ওই কলেজ থেকে ৩৬ জন মেডিক্যালে ভর্তির সুযোগ পান।

এবারে চান্সপ্রাপ্তরা হলেন- নেহা- ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ, অবন্তী (২)- সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ, কাব্য- পাবনা মেডিক্যাল কলেজ, আফিয়া আদিবা- নীলফামারী মেডিক্যাল কলেজ, অনামিকা-কুষ্টিয়া মেডিক্যাল কলেজ, মেরাজ- কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ, মন্নুজা, সাথী, ইশরাত জাহান- শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ, মোশাব্বির- কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ, রিফাত- শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ, মারুফা-সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ ও সিজু- ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ।

অপরদিকে, মিম ও মৌ- ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ, অবন্তী (১) ও স্বচ্ছ- শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ, এলিন, তনু, নাঈম- স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ, রোজা, তিথি, মাহবুবা, রাইশা- রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ, উর্মি, বর্ষা, মামুন, মুরাদ, নুসরাত জাহান অপি, রিফা, সিন্থি, সাবিরা সুলতানা নুর, মাহফুজা আকতার মিতু, মিথিলা ফারজানা- রংপুর মেডিক্যাল কলেজ। মিতু, তিশা- ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ, সুমাইয়া, অর্থী- শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ, শৈয়লী ও আবির- ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ, আশা, পীযুষ, সান্তু, রেমি ও ইশতিয়াক আহমেদ- দিনাজপুর মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন।

এদিকে, সৃষ্টি- আব্দুল মালেক মেডিক্যাল কলেজ নোয়াখালী, মো. আরিফ মোহায়মিন- পাবনা মেডিক্যাল কলেজ, নসিবুল হাসান নাঈম- শহীদ এম মনছুর আলী মেডিক্যাল কলেজ, সিরাজগঞ্জ ও রিফাত জাহান রিফা- চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ, রিদিতা প্রামাণিক- নওগাঁ মেডিক্যাল কলেজ, সেতু দেবনাথ- চাঁদপুর মেডিক্যাল কলেজে চান্স পেয়েছেন।

কলেজটি থেকে এবারও মেডিক্যালে চান্স পেলেন ৫১ শিক্ষার্থী

কলেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ১৯৬৪ সালে দেশের চারটি শিল্পাঞ্চলে টেকনিক্যাল স্কুল গড়ে ওঠে। এদের একটি হলো সৈয়দপুর সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল। পরে ১৯৭৭ সালে সৈয়দপুর সরকারি টেকনিক্যাল কলেজে উন্নীত করা হয়। শিক্ষার মান উন্নয়নে ২০১৯ সালে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এর নাম পরিবর্তন করে সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজ নামকরণ করেন। এই কলেজে শুধুমাত্র বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি করা হয়।

দেশের সর্ববৃহৎ সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার সুবাদে এখানে গড়ে ওঠে টেকনিক্যাল স্কুল। উদ্দেশ্য ছিল এখান থেকে সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার জন্য দক্ষ, কারিগরি জ্ঞানসম্পন্ন শিক্ষার্থী গড়ে তোলা। দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে শীর্ষ প্রতিষ্ঠান হিসেবে সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজের নাম রয়েছে।

ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আবুল কালাম জানান, চলতি বছর কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় শুধুমাত্র বিজ্ঞান বিভাগে ২২৬ জন শিক্ষার্থী ফাইনাল পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে সবাই পাস করে। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৫৭ জন। এর মধ্যে ৫১ শিক্ষার্থী সরকারি মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে। এ ছাড়াও বরাবরই এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করে এখানকার শিক্ষার্থীরা।

তিনি বলেন, কলেজটি ছায়া ঘেরা শীতল পরিবেশ, সুশৃঙ্খলভাবে পাঠদানে শিক্ষকদের আন্তরিকতা এবং কঠোর তদারকির ফলে প্রতিবছর আশানুরূপ ফল করে শিক্ষার্থীরা। এ ছাড়াও শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকদের আন্তরিকতা ও সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিক্যাল কলেজ ও ইঞ্জিনিয়ারিংসহ বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষায় মেধার স্বাক্ষর রেখে চলেছেন।

এক পরিসংখ্যানে জানা গেছে, ২০২৩ সালে ৩৬, ২০২২ সালে ৩৯, ২০২১ সালে ৪০, ২০১৯ সালে ৩৬ ও ২০১৮ সালে এই কলেজের ৩৮ জন শিক্ষার্থী সরকারি মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছিলেন।

/এফআর/
সম্পর্কিত
শ্রুতিলেখক হিসেবে বসলেন অনার্সের শিক্ষার্থী, ৫ শিক্ষার্থীর উত্তরপত্র বাতিল
জাবিতে আরেকজনের ভর্তি পরীক্ষা দিতে গিয়ে ধরা পড়লেন ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী
অনলাইনে প্রশ্ন বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়ে ২ প্রতারক ধরা
সর্বশেষ খবর
মৌলভীবাজারে পৃথক স্থানে দুজন খুন
মৌলভীবাজারে পৃথক স্থানে দুজন খুন
ফিলিস্তিনের নিহত-নিপীড়িত সাংবাদিকদের প্রতি সংহতি প্রকাশ
ফিলিস্তিনের নিহত-নিপীড়িত সাংবাদিকদের প্রতি সংহতি প্রকাশ
অমর্ত্য-ঋদ্ধের বহিষ্কারাদেশ বাতিল না করলে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি
অমর্ত্য-ঋদ্ধের বহিষ্কারাদেশ বাতিল না করলে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি
মনজুরুল আহসানকে স্থায়ী অব্যাহতি দিয়েছে সিপিবি
মনজুরুল আহসানকে স্থায়ী অব্যাহতি দিয়েছে সিপিবি
সর্বাধিক পঠিত
শাস্তি পেতে যাচ্ছেন ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ নামকরণে জড়িত কর্মকর্তা
শাস্তি পেতে যাচ্ছেন ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ নামকরণে জড়িত কর্মকর্তা
চট্টগ্রাম বন্দরে প্রথমবারের মতো বিদেশি তত্ত্বাবধানে চালু হচ্ছে নতুন টার্মিনাল
চট্টগ্রাম বন্দরে প্রথমবারের মতো বিদেশি তত্ত্বাবধানে চালু হচ্ছে নতুন টার্মিনাল
রুশ হামলায় পূর্বাঞ্চলীয় গ্রাম থেকে পিছু হটলো ইউক্রেন
রুশ হামলায় পূর্বাঞ্চলীয় গ্রাম থেকে পিছু হটলো ইউক্রেন
ইউক্রেনে সেনা পাঠানোর কথা ভাবছে কয়েকটি পশ্চিমা দেশ: স্লোভাকিয়া
ইউক্রেনে সেনা পাঠানোর কথা ভাবছে কয়েকটি পশ্চিমা দেশ: স্লোভাকিয়া
না ফেরার দেশে ‘গজল কিং’ পঙ্কজ উদাস
না ফেরার দেশে ‘গজল কিং’ পঙ্কজ উদাস