X
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪
৪ আষাঢ় ১৪৩১
কান উৎসব ২০২৪

বাংলাদেশ ও রুনা লায়লাকে নিয়ে যা বললেন নাসিরুদ্দিন শাহ

জনি হক, কান (ফ্রান্স থেকে)
১৮ মে ২০২৪, ১৩:২৭আপডেট : ১৮ মে ২০২৪, ১৩:৩৭

পালে দে ফেস্টিভ্যাল ভবনের দোতলায় সৌজন্য হিসেবে প্রতিদিনই কফি পরিবেশন করা হয়। কাপে চুমুক দিয়ে প্রেস রুমের দিকে এগোতেই চোখ আটকে গেলো বলিউড অভিনেতা প্রতীক বাব্বরের দিকে। প্রয়াত অভিনেত্রী স্মিতা পাতিলের ছেলে তিনি। আরেক পাশে দাঁড়ানো বলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেত্রী রত্না পাঠক শাহ। তবে অভিনেতা নাসিরুদ্দিন শাহ এই প্রতিবেদকের কাছে ‘বাংলাদেশ’ নামটি শুনতেই আগ্রহী হলেন কথা বলতে।

আলাপের শুরুটা এমন, এবারই কি প্রথম কানে এলেন? উত্তর এলো, ‘হ্যাঁ’। তার দীর্ঘ ক্যারিয়ার। চলচ্চিত্র উৎসবকে কি অভিনেতা কিংবা পরিচালকদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ মনে করেন তিনি? নাসিরুদ্দিন শাহ এবার বললেন, ‘ব্যাপকভাবে দৃশ্যমান করতে উৎসবগুলোর ভূমিকা আছে। এছাড়া যেসব পরিচালকদের চলচ্চিত্র মূলধারার জনপ্রিয়তা পায় না তারা উৎসাহ পান উৎসবে।’

শ্যাম বেনেগাল পরিচালিত ‘মন্থন’ (১৯৭৬) চলচ্চিত্রের প্রদর্শনীতে অংশ নিতে দক্ষিণ ফ্রান্সে সাগরপাড়ের শহরে এসেছেন নাসিরুদ্দিন শাহ। পালে দে ফেস্টিভ্যাল ভবনের বুনুয়েল থিয়েটারে শুক্রবার রাত ৮টা ৪৫ মিনিটে কান ক্ল্যাসিকস বিভাগে দেখানো হয়েছে এটি। এর প্রদর্শনীতে নাসিরুদ্দিন শাহ ছাড়াও ছিলেন অভিনেত্রী স্মিতা পাতিলের পরিবার, প্রযোজক এবং ভারতের ফিল্ম হেরিটেজ ফাউন্ডেশনের পরিচালক শিবেন্দ্র সিং দুঙ্গারপুর।

বাংলা ট্রিবিউনের সঙ্গে সংক্ষিপ্ত আলাপকালে ‘মন্থন’ নিয়ে গর্ব করলেন নাসিরুদ্দিন শাহ। তার কথায়, ‘আমার ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ছবি এটি। এর সঙ্গে আমি নিজের নিবিড় সম্পর্ক খুঁজে পাই। ছবিটি নিয়ে আমি সত্যিই গর্বিত।’

বাংলা ট্রিবিউন প্রতিবেদকের সেলফিতে নাসিরুদ্দিন শাহ বাংলাদেশে দু’বার মঞ্চে পারফর্ম করতে এসেছিলেন নাসিরুদ্দিন শাহ। সেই স্মৃতি রোমন্থন করে তিনি বলেন, ‘ঢাকার দর্শকরা চমৎকার। আমার সবচেয়ে আনন্দ লেগেছে রুনা লায়লাজির সঙ্গে দেখা করে।’

সবশেষে বাংলা ভাষা জানেন কিনা বলতেই নাসিরুদ্দিন শাহ বলেন, ‘আমি তোমাকে ভালোবাসি।’

ভারতের বৃহত্তম দুগ্ধ উন্নয়ন আন্দোলন তথা শ্বেত বিপ্লবের পটভূমিতে তৈরি হয় ‘মন্থন’। এটি ছিল ভারতের প্রথম গণঅর্থায়নে নির্মিত চলচ্চিত্র। দেশটির গুজরাট রাজ্যের ৫ লাখ কৃষক ছবিটি নির্মাণে ২ রুপি করে দান করেন। ভার্গিস কুরিয়েনের দুগ্ধ সমবায় আন্দোলনে অনুপ্রাণিত ‘মন্থন’। ছবিটির অন্যতম গল্পকার তিনি। 

ভার্গিস কুরিয়েনের বিলিয়ন লিটার আইডিয়া তথা অপারেশন ফ্লাড ভারত দুধের ঘাটতির দেশ থেকে বিশ্বের বৃহত্তম ও শীর্ষ উৎপাদনকারীতে পরিণত হয়েছে। তার শ্বেত বিপ্লবের কর্মপন্থা বিশ্বের বৃহত্তম কৃষি উন্নয়ন কর্মসূচি হিসেবে পরিচিত। ভারতের ডেইরি অ্যাসোসিয়েশন ২০১৪ সাল থেকে এই কীর্তিমানের জন্মদিনকে জাতীয় দুগ্ধ দিবস হিসেবে পালন করছে। ভারত সরকারের কাছ থেকে পদ্মবিভূষণ, পদ্মভূষণ, পদ্মশ্রী, কৃষিরত্ন পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। এছাড়া বিভিন্ন দেশে অনেক সম্মাননায় ভূষিত করা হয় তাকে। ২০১২ সালে ৯০ বছর বয়সে পরলোকগমন করেন তিনি।

হিন্দি ভাষায় নির্মিত ২ ঘণ্টা ১৪ মিনিটের ‘মন্থন’ দেখিয়েছে গ্রামীণ ক্ষমতায়নকে কেন্দ্র করে কাল্পনিক আখ্যানের মাধ্যমে শ্বেত বিপ্লবের উৎপত্তি। এতে আরও অভিনয় করেছেন গিরিশ কারনাড, অমরিশ পুরি, কুলভূষণ খারবান্দা, মোহন আগাসে, অনন্ত নাগ, রাজেন্দ্র যশপাল, আভা ঢুলিয়া, সাধু মেহের ও অঞ্জলি পায়গানকার।

‘মন্থন’ দৃশ্য ৪৮ বছরের পুরনো ‘মন্থন’ ছবির প্রিন্ট পুনরুদ্ধার করেছে ফিল্ম হেরিটেজ ফাউন্ডেশন। এর ৩৫ মিলিমিটার মূল নেগেটিভ সংরক্ষিত ছিলো এনএফডিসিতে (ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র সংগ্রহশালা)। পুনরুদ্ধার প্রক্রিয়া বাস্তবায়নে কাজ করেছেন পরিচালক শ্যাম বেনেগাল, চিত্রগ্রাহক গোবিন্দ নিহালানি, চেন্নাইয়ের প্রসাদ করপোরেশনের প্রাইভেট লিমিটেডের পোস্ট–স্টুডিওস এবং ইতালির লি’মাজিন রিত্রোভাতা ল্যাবরেটরি। অর্থায়নে সহযোগিতা করেছে ভার্গিস কুরিয়েনের গড়া প্রতিষ্ঠান গুজরাট কো-অপারেটিভ মিল্ক মার্কেটিং ফেডারেশন লিমিটেড। ফিল্ম হেরিটেজ ফাউন্ডেশনে সংরক্ষিত প্রেক্ষাগৃহে মুক্তিপ্রাপ্ত ৩৫ মিলিমিটার প্রিন্ট থেকে শব্দ ডিজিটালে রূপান্তর করা হয়েছে।

১৯৭৭ সালে ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা পূর্ণদৈর্ঘ্য কাহিনিচিত্র এবং সেরা চিত্রনাট্যকার (বিজয় টেন্ডুলকার) স্বীকৃতি জিতেছে ‘মন্থন’। ভারত থেকে অস্কারে পাঠানো হয় এই ছবি। এতে ‘মেরো গাম কথা পারে’ গানের জন্য ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডে সেরা গায়িকা বিভাগে পুরস্কার জয় করেন প্রীতি সাগর।

শুক্রবার বুনুয়েল থিয়েটারে ধ্রুপদি বিভাগের আরও তিনটি প্রদর্শনী ছিল। স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে কান ক্ল্যাসিকস বিভাগে দেখানো হয়েছে সুই হার্ক পরিচালিত ‘সাংহাই ব্লুজ’ (১৯৮৪)। বিকাল ৪টা ৪৫ মিনিটে ছিল প্রয়াত জ্যঁ-লুক গদারের ‘সিনারিও’ চলচ্চিত্রের ঘোষণা উপস্থাপনা। সন্ধ্যা ৬টা ১৫ মিনিটে হাঙ্গেরির শার ভিদোর পরিচালিত ‘গিল্ডা’ (১৯৪৬)।

লালগালিচায় ‘কাইন্ডস অব কাইন্ডনেস’ টিম মূল প্রতিযোগিতা

শুক্রবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায় গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে মূল প্রতিযোগিতা বিভাগের আকর্ষণ ছিল গ্রিসের ইয়োর্গোস লানতিমোসের ‘কাইন্ডস অব কাইন্ডনেস’। এতে অভিনয় করেছেন অস্কারজয়ী এমা স্টোন। 

গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে বিকেল ৩টায় রোমানিয়ার এমানুয়েল পারবু পরিচালিত ‘থ্রি কিলোমিটারস টু দ্য এন্ড অব দ্য ওয়ার্ল্ড’ এবং রাত ১০টায় যুক্তরাষ্ট্রের পল শ্রেডার পরিচালিত ‘ও কানাডা’র উদ্বোধনী প্রদর্শনী হয়েছে।

আঁ সাঁর্তে রিগা

পালে দে ফেস্টিভ্যাল ভবনের দ্যুবুসি থিয়েটারে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় আঁ সাঁর্তে রিগা বিভাগে বুলগেরিয়ার কনস্তান্তিন বোজানভ পরিচালিত ‘দ্য শেমলেস’ চলচ্চিত্রের ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হয়েছে। একই ভেন্যুতে দুপুর ২টায় ছিল ফ্রান্সের লুইস কুরভয়জিয়ের পরিচালিত প্রথম ছবি ‘হলি কাউ’। ফটোকলে ‘দ্য শেমলেস’ টিম

প্রতিযোগিতার বাইরে

পালে দে ফেস্টিভ্যাল ভবনের আনিয়েস ভারদা থিয়েটারে শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা ৩০ মিনিটে স্পেশাল স্ক্রিনিংসে ছিল ফ্রান্সের ইওলঁন্দ জাউবারম্যান পরিচালিত ‘দ্য বিউটি অব গাজা’। কান প্রিমিয়ার বিভাগে শুক্রবার রাত ৭টা ৪৫ মিনিটে পালে দে ফেস্টিভ্যাল ভবনের দ্যুবুসি থিয়েটারে দেখানো হয় মরক্কোর নাবিল আয়ুশ পরিচালিত ‘এভরিবডি লাভস তুদা’। গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে রাত ১২টা ১৫ মিনিটে মিডনাইট স্ক্রিনিংস বিভাগে ছিল আয়ারল্যান্ডের লোরক্যান ফিনেগ্যান পরিচালিত ‘দ্য সারফার’। এতে অভিনয় করেছেন হলিউড তারকা নিকোলাস কেজ। ফটোকলে ‘দ্য সারফার’

সাগরপাড়ে বিনা টিকিটে প্রদর্শনী

খোলা আকাশের নিচে সাগরপাড়ে শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত ৯টা ৩০ মিনিটে সিনেমা দ্যু লা প্লাজ বিভাগে দেখানো হয়েছে মার্টিন স্করসেসির ‘আফটার আওয়ার্স’ (১৯৮৫)। 

সমান্তরাল বিভাগ

৫৬তম ডিরেক্টর’স ফোর্টনাইট বিভাগে নির্বাচিত চলচ্চিত্রের প্রদর্শনী হচ্ছে থিয়েটার ক্রজেটে। শুক্রবার সকাল ৮টা ৪৫ মিনিট ও বিকাল ৫টা ৩০ মিনিটে দেখানো হয়েছে জাপানের ইয়োকো ইয়ামানাকা পরিচালিত ‘ডেজার্ট অব নামিবিয়া’। দুপুর ১২টা ৩০ মিনিট ও রাত ৮টা ৪৫ মিনিটে ছিল যুক্তরাষ্ট্রের টাইলার টায়োরমিনা পরিচালিত “ক্রিসমাস ইভ ইন মিলার’স পয়েন্ট”। বিকাল ৩টা ৩০ মিনিটে দেখানো হয়েছে চিলির ক্রিস্তোবাল লেয়ন ও ওয়াকিন কোসিনিয়া পরিচালিত ‘দ্য হাইপারবোরিয়ানস’।

৬৩তম ক্রিটিকস’ উইক বিভাগে নির্বাচিত চলচ্চিত্রের প্রদর্শনী হচ্ছে এসপেস মিরামারে। শুক্রবার সকাল ১১টা ৩০ মিনিট, বিকাল ৫টা ও রাত ১০টা ৩০ মিনিটে প্রতিযোগিতা বিভাগে ছিল মিসরের নাদা রিয়াদ ও ইয়েমেনের আয়মান এল আমির পরিচালিত ‘দ্য ব্রিঙ্ক অব ড্রিমস’। দুপুর ২টা ১৫ মিনিট ও সন্ধ্যা ৭টা ৪৫ মিনিটে স্পেশাল স্ক্রিনিংসে দেখানো হয়েছে মরক্কোর সাইদ হামিচ বেনলার্বি ‘অ্যাক্রস দ্য সি’।

এসিআইডি বিভাগে স্টুডিও থার্টিন থিয়েটারে সকাল ১১টা ৩০ মিনিটে, আর্কেডস ওয়ান থিয়েটারে রাত ৮টায় ও আর্কেডস টু থিয়েটারে রাত ৮টা ৩০ মিনিটে ছিল কলম্বিয়ার ক্যামিলা বেলত্রান পরিচালিত ‘মি বেস্তিয়া’। আলেকসঁন্দ থ্রি থিয়েটারে বিকাল ৪টা ৩০ মিনিটে ছিল গ্রিসের কস্তিস কারামুদান্নিস পরিচালিত “কিউকা–বিফোর সামার’স এন্ড”। সংবাদ সম্মেলনে ‘মেগালোপলিস’ টিম

সংবাদ সম্মেলন

শুক্রবার মূল প্রতিযোগিতায় থাকা ‘বার্ড’ ছবির কলাকুশলীরা সকাল ১০টা ৩০ মিনিটে এবং ‘মেগালোপলিস’ টিম দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে সংবাদ সম্মেলন কক্ষে হাজির হন। 

/এমএম/
সম্পর্কিত
প্রসঙ্গ ‘কান’ পোশাক: অঞ্জনার নিশানায় কে
প্রসঙ্গ ‘কান’ পোশাক: অঞ্জনার নিশানায় কে
কান নিয়ে হুমার ‘খোঁচা’ ও প্রত্যাশা
কান নিয়ে হুমার ‘খোঁচা’ ও প্রত্যাশা
কান ২০২৪: স্বর্ণপামসহ পুরো বিজয়ী তালিকা
কান ২০২৪: স্বর্ণপামসহ পুরো বিজয়ী তালিকা
সব জল্পনা ছাপিয়ে স্বর্ণপাম জিতলো আমেরিকার ‘আনোরা’
কান উৎসব ২০২৪সব জল্পনা ছাপিয়ে স্বর্ণপাম জিতলো আমেরিকার ‘আনোরা’
বিনোদন বিভাগের সর্বশেষ
ঈদের তৃতীয় দিনে ৩১টি নাটকও টেলিছবি
ঈদের তৃতীয় দিনে ৩১টি নাটকও টেলিছবি
এসেছে অভিনেতা বাবুর নতুন গান
এসেছে অভিনেতা বাবুর নতুন গান
জমিয়ে দিলেন মারজুক রাসেল-আলী হাসান
জমিয়ে দিলেন মারজুক রাসেল-আলী হাসান
থমথমে ‘তুফান’, অন্তর্জালে ‘দরদ’ মুগ্ধতা
থমথমে ‘তুফান’, অন্তর্জালে ‘দরদ’ মুগ্ধতা
চীনে চাঁদরাতে ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার, ঈদের সকালে মুকুট!
চীনে চাঁদরাতে ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার, ঈদের সকালে মুকুট!