‘এ গানই হয়তো সপ্ত আকাশ পার হয়ে আইয়ুব বাচ্চুর কাছে পৌঁছাবে'

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৪:৫৪, ডিসেম্বর ০৩, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:২৯, ডিসেম্বর ০৩, ২০১৮

কথা বলছেন আসাদুজ্জামান নূর, রফিকুল আলম, বাপ্পা মজুমদার ও পাশে ব্যান্ডের পরিবেশনা। ছবি- সাজ্জাদ হোসেনঅনুষ্ঠানের শুরুতেই ব্যান্ডশিল্পী মাকসুদ বলে নিলেন, ‘আজ আমরা কান্নার জন্য কোনও আয়োজন করছি না। এটা করছি আমাদের সবার ভালোবাসার মানুষ আইয়ুব বাচ্চুকে উৎসর্গ করতে। তাই আজ শুধু তার গান হবে।’

ঠিক এভাবেই আইয়ুব বাচ্চুর ১৫টি গান দিয়ে সাজানো হয় বিশেষ কনসার্টটি। এতে সদ্য প্রয়াত কিংবদন্তি শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর জনপ্রিয় ও স্মরণীয় গানগুলো পরিবেশন করে মাইলস, আর্টসেল, শিরোনামহীন, ফিডব্যাক, দৃক, নাগরিক, পেন্টাগনসহ বামবার আরও কয়েকটি ব্যান্ড। আর দর্শকের জায়গায় ছিলেন এ সংগঠনের পরিবারের সদস্যরা।

একেবারেই ঘরোয়া ধরনের এ আয়োজনটি হয় গতকাল (২ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সংগীত ও নৃত্যকলা ভবন মিলনায়তনে।
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। তিনিও স্মৃতিচারণ করেন আইয়ুব বাচ্চুকে নিয়ে। এ শিল্পীর জিঙ্গেলে কাজ করা, শুরু দিকের কনসার্ট, এমনকি নিজের আড্ডার কথা তুলে ধরেন মন্ত্রী।স্মৃতিচারণ করছেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।
বলেন, ‘‘আমি ও গুরু আলী যাকের তখন বিজ্ঞাপনী সংস্থার ব্যবসা করছি। একদিন দুমদাম করে বাচ্চু এলো। মনে হলো দরজা ভেঙে ঢুকল। আসলে তার আসার ধরনই ছিল এমন। এসেই বলল, ভাই কাজ দিন। জিঙ্গেল করবো। তার কথা প্রথমে বিশ্বাস হয়নি। সে সত্যিই জিঙ্গেল করলো। এরপর এমন ব্যস্ত হয়ে পড়লো তার গানের জগৎ নিয়ে, পরে আর জিঙ্গেলে কাজ করার সময়ই পেত না। তার মধ্যে ‘হুকুম’ করার একটা ভাবও ছিল। অবশ্য সে এ জায়গাটা তৈরি করতে পেরেছিল। এসেই বলত, ভাই বিরিয়ানি আনান। বিরিয়ানি খাবো। বয়সে সে আমার ছোট ছিল। তাই তার আবদার ফেলা যেত না।’’

আইয়ুব বাচ্চুর শেষ কনসার্টটি হয়েছিল রংপুরে। সে আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন আসাদুজ্জামান নূর। ‘শেষ কনসার্টে সে খুব সুন্দর পারফর্ম করেছিল। তাকে দেখে মনেই হয়নি এমন একটা ঘটনা ঘটতে পারে। অথচ এর দুদিন পরেই (১৮ অক্টোবর) সবাইকে ছেড়ে সে চলে গেল।’

তাকে নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন রফিকুল আলম, ফোয়াদ নাসের বাবু, বাপ্পা মজুমদার, শাফিন আহমেদ, মানাম আহমেদসহ বেশ কয়েকজন ব্যান্ড তারকা।
বাপ্পা বলেন, ‘গানের বাইরেও তিনি আমাদের বুঝিয়েছেন কীভাবে মাকে ভালোবাসতে হয়; পরিবারকে ভালোবাসতে হয়। এটা একজন ভালো মানুষের উদাহরণ।’আইয়ুব বাচ্চু স্মরণে গাইছে ব্যান্ডগুলো। ছবি- সাজ্জাদ হোসেন
স্মরণ এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন এলআরবি ব্যান্ডের সদস্য শামীম- ব্যান্ড ম্যানেজার, মাসুদ-গিটার, স্বপন-বেস আর রোমেল-ড্রামস। শামীম বলেন, ‘আমরা ব্যান্ডটা চালিয়ে যেতে চাই। বাচ্চু ভাইকে শক্তি হিসেবে ধরে এগিয়ে যেতে চাই।’

এদিকে আইয়ুব বাচ্চুর ছেলে তাজোয়ার আইয়ুব চট্টগ্রামে থাকায় অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারেননি।

সন্ধ্যা ছয়টায় শুরু হওয়া এ আয়োজন চলে রাত সাড়ে দশটা পর্যন্ত। অনুষ্ঠানে ‘সুখেরই পৃথিবী, ‘ঘুম ভাঙা শহরে’ ‘মধ্যরাতের চাঁদ’, ‘আমার ছাড়া কতদিন রবে’, ‘ফেরারি মন’. ‘তুমি ভুল করেছো’সহ আরও বেশ কয়েকটি গান পরিবেশন করা হয়। 
ছবি- সাজ্জাদ হোসেন

/এম/এমওএফ/

লাইভ

টপ