সালমানের কাছে ব্যবসার চেয়ে মানুষের সুরক্ষা আগে

Send
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১০:০০, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৪৫, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৯

‘দাবাং থ্রি’র দৃশ্যে সালমান খানসুপারস্টার সালমান খানের ছবি মানেই মারকাটারি ব্যবসা। তার ওপর আবার ‘দাবাং’ ফ্র্যাঞ্চাইজির জনপ্রিয়তার উন্মাদনা। তবু ‘দাবাং থ্রি’র ব্যবসা প্রত্যাশা অনুযায়ী হয়নি। ধারণা করা হচ্ছে, ভারতের বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধন আইনকে (সিএএ) কেন্দ্র করে চলমান বিক্ষোভের বিরূপ প্রভাব পড়েছে প্রেক্ষাগৃহে। অবশ্য এই অতৃপ্তি মেনে নিয়েছেন সল্লু।

ভারতীয় সাপ্তাহিক ইন্ডিয়া টুডেকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সালমান জানান, ব্যবসার চেয়ে জনগণের সুরক্ষাকে প্রাধান্য দেন তিনি। তার মন্তব্য, “এমন অশান্ত সময়েও ছবিটির সাফল্য মনে রাখার মতো। সব কৃতিত্ব ভক্তদের। তারা আমাকে খুব ভালোবাসেন, এজন্যই সিনেমা হলে ‘দাবাং থ্রি’ দেখতে গেছেন। তাদের সুবাদে বক্স অফিসে আমাদের অবস্থান বেশ ভালো। উত্তর ভারতে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছিল, এ কারণে সেখান থেকে কোনও আয় হয়নি আমাদের। তবে তারা ঠিকই ছবিটি দেখতে সিনেমা হলে যাবেন। আদতে মানুষের সুরক্ষা জরুরি আগে, তারপর ছবি।”
হিন্দি ছবির মূল বাজার ভারতের দিল্লি ও উত্তর প্রদেশ। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি এসব স্থানে সিএএ প্রতিবাদকারীরা সক্রিয়। এ কারণে ‘দাবাং থ্রি’ ইতিহাস গড়তে পারেনি। অবশ্য সালমানের তারকা খ্যাতি ও ‘দাবাং’ ফ্র্যাঞ্চাইজির দামের সুবাদে ছবিটি বক্স অফিসে ১০০ কোটি রুপি আয়ের ঘর পেরিয়েছে। এ নিয়ে ভারতীয় বক্স অফিসে সালমানের টানা ১৫টি ছবি ১০০ কোটির ঘরে জায়গা করে নিলো।

গত ২০ ডিসেম্বর ‘দাবাং থ্রি’ মুক্তির প্রথম দিনে এসেছে ২৪ কোটি ৫০ লাখ রুপি। এর পরদিন তা বেড়ে দাঁড়ায় ২৪ কোটি ৭৫ লাখ রুপিতে। তৃতীয় দিন আয় হয়েছে ৩১ কোটি ৯০ লাখ রুপি। গত ২৩ ডিসেম্বর পাওয়া গেছে ১০ কোটি ৭০ লাখ রুপি। পঞ্চম দিনে আসা ১২ কোটি মিলিয়ে সংখ্যা সেঞ্চুরি পূর্ণ করেছে। বড়দিনের সংগ্রহ ১৫ কোটি ৭০ লাখসহ এখন পর্যন্ত আয়ের পরিমাণ ১১৯ কোটি ৫৫ লাখ রুপি। তবে সালমানের আগের ছবি ‘ভারত’ মুক্তির প্রথম চারদিনে আয় করেছিল ১২২ কোটি রুপি। গত একদশকে ‘ভারত’ই মুক্তির প্রথম দিনের আয় (৪২ কোটি ৩০ লাখ রুপি) বিচারে সালমানের সব ছবির ওপরে। এরপর আছে যথাক্রমে ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’, ‘সুলতান’ ও ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’।

তবু সালমান মনে করেন, ‘দাবাং’ সিরিজের প্রথম দুটি ছবির চেয়ে তৃতীয় পর্বটি মানের দিক দিয়ে সেরা। তার চোখে ‘দাবাং থ্রি’ অনেক বড় ক্যানভাসে সাজানো হয়েছে, এর গল্পে অনেক কিছু বলা হয়েছে। স্বামী-স্ত্রীর বন্ধন, চুলবুল পাণ্ডের অতীতের গল্প, অবুঝ তরুণ থেকে রবিনহুড প্রকৃতির চুলবুল পাণ্ডের জন্ম, সবই আছে এতে।’
৫৩ বছর বয়সী এই তারকা উল্লেখ করেন, প্রভু দেবা পরিচালিত ছবিটির মাধ্যমে বিভিন্ন সামাজিক বক্তব্য তুলে ধরা হয়েছে। যেমন বাল্যবিবাহ, যৌতুক ও বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ।

তবে সমালোচকদের মন জয় করতে পারেনি ‘দাবাং থ্রি’। যদিও সালমানের মন্তব্য, যেকোনও কিছুর চেয়ে দর্শকদের সাড়া তার কাছে মূল্যবান। তিনি বলেন, ‘আয়ের পরিমাণ দেখেই ভক্তদের প্রতিক্রিয়া বোঝা যায়। এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। মানুষ এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভিডিও পোস্ট করেন, ফলে সিনেমা হলের চিত্র জানতে পারেন যে কেউ।’

ছবিটিতে চুলবুল পাণ্ডের স্ত্রী রাজ্জো চরিত্রে যথারীতি অভিনয় করেছেন সোনাক্ষী সিনহা। তিনি কয়েকদিন আগে সংবাদ সংস্থা আইএএনএস’কে এক সাক্ষাৎকারে একই রকম মন্তব্য করেন। তার কথায়, ‘সারা ভারতে কী হচ্ছে আমরা সবাই জানি। আমার মনে হয়, ভারতীয় নাগরিকরা জানেন কী করা উচিত আর কোনটা গুরুত্বপূর্ণ। তবে ‘দাবাং থ্রি’ নিয়ে দর্শকদের প্রতিক্রিয়ায় আমি সত্যিই খুশি। পুরো দেশ নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের (সিএএ) প্রতিবাদে একত্রিত হয়েছে। ছবির চেয়ে এটাই গুরুত্বপূর্ণ।’

এদিকে আজ ২৭ ডিসেম্বর সালমানের জন্মদিন। বলিউডে তিন দশকের ক্যারিয়ার তার। অভিনেত্রী তারা শর্মার চ্যাট শোতে তিনি জানিয়েছেন, ১৯৮৩ সালে প্রথম বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হওয়ার প্রস্তাব কীভাবে পেয়েছিলেন। একদিন একটি ক্লাবের পুলে সাঁতার কাটছিলেন সল্লু। এরমধ্যে সেখানে লাল শাড়ি পরা এক নারীর মনোযোগ আকর্ষণের চেষ্টা করেন তিনি। পরদিনই কোমল পানীয় পণ্যের বিজ্ঞাপনে মডেল হওয়ার প্রস্তাব আসে। এতে তার বিপরীতে ছিলেন জ্যাকি শ্রফের স্ত্রী আয়েশা। পরে জানা যায়, ওই নারী হলেন নির্মাতা কৈলাশ সুরেন্দ্রনাথের প্রেমিকা! তিনিই ডুবুরিদের মতো সাঁতরাতে দেখে সালমানের নাম সুপারিশ করেন।

১০০ কোটির ক্লাবে সালমান খান
* দাবাং (২০১০)। * বডিগার্ড (২০১১)। * রেডি (২০১১)। * দাবাং টু (২০১২)। * এক থা টাইগার (২০১২)। * কিক (২০১৪)। * জয় হো (২০১৪)। * বজরঙ্গি ভাইজান (২০১৫)। * প্রেম রতন ধন পায়ো (২০১৫)। *সুলতান (২০১৬)। * টিউবলাইট (২০১৭)। * টাইগার জিন্দা হ্যায় (২০১৭)। * রেস থ্রি (২০১৮)। * ভারত (২০১৯)।
* সালমান খানের প্রথম বিজ্ঞাপনচিত্র দেখুন-



সূত্র: বলিউড হাঙ্গামা

 

/জেডএল/এমএম/

লাইভ

টপ
X