অভিনয় নয়, সত্যিই বিয়ে বন্ধনে দীপঙ্কর-দোলন

Send
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:৪৩, জানুয়ারি ১৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:১৪, জানুয়ারি ১৮, ২০২০

দীপঙ্কর দে ও দোলন রায়দীপঙ্কর দে, বয়স ৭৫। দোলন রায়, বয়স ৪৯। বয়সের ব্যবধান পঁচিশেরও বেশি! অবাক করা অঙ্কের হিসাব আরও আছে, একসঙ্গে আছেন টানা ২২টি বছর! তবে সেটি ছিল আইন কিংবা সমাজের বিপরীতে।
অবশেষে এসব অংকের হিসাব অতিক্রম করে বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হলেন পশ্চিমবঙ্গের অন্যতম এই দুই অভিনয়শিল্পী।
পশ্চিমবঙ্গের সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে দক্ষিণ কলকাতার এক রেস্তোরাঁতে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা হয় দুজনার। ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উপস্থিতিতে বিয়ের রেজিস্ট্রি করেন তারা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ব্রাত্য বসু, রঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়, শীর্ষ সেনসহ বিশিষ্টজনেরা।
ভারতীয় বাংলা সিনেমায় দীর্ঘদিন দাপটের সঙ্গে অভিনয় করছেন দীপঙ্কর দে। প্রায় ২২ বছর ধরেই অভিনেত্রী দোলন রায়ের সঙ্গে ‘লিভ ইন রিলেশনশিপ’-এ ছিলেন।
এদিকে বিয়ের আয়োজন ছোট করে হলেও বর-কনের সাজসজ্জায় কোনও কমতি ছিল না। সাদা পাঞ্জাবি ও ধুতিতে বরের সাজে নজর কাড়েন দীপঙ্কর। অন্যদিকে, মাথায় লাল ফুল আর লাল বেনারসিতে নতুন বউয়ের সাজে হাজির হন দোলন রায়।
দীপঙ্কর আর দোলন যে সময়টাতে (২২ বছর আগে) ‘লিভ ইন রিলেশনশিপ’ শুরু করেছিলেন সে সময়ে এ বিষয়ে এতটা চল ছিল না। একদিকে বয়সের ফারাক, অন্যদিকে লিভ-ইন! নানা সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে দুজনকে।
বিয়ের আসরে দোলন ও দীপঙ্করের পাশে পশ্চিমবঙ্গের পর্যটনমন্ত্রী ব্রাত্য বসু (বামে)দীপঙ্কর তখন প্রতিষ্ঠিত অভিনেতা হলেও দোলন মাত্র শুরু করেছেন ক্যারিয়ার। ফলে জুনিয়র শিল্পী হিসেবে শুনতে হয়েছিল নানা বাজে কথা। টলিউড ইন্ডাস্ট্রির ভেতরেও তখন চলছিলো হাজার গসিপ।
সেই সময় দোলন একবার বলেছিলেন, ‘আমি যা পাপারাজ্জির মুখ থেকে শুনেছি, তা বোধয় কোনও প্রথম সারির নায়িকাকেও শুনতে হয়নি। গাড়ির কাঁচ ইট মেরে ভেঙে দেওয়া হয়েছিল। আমি তখন ভেতরে ছিলাম।’
এত বছর ধরে ভালোবাসা টিকিয়ে রাখার ম্যাজিকটা কী? জানতে চাইলে দোলন বললেন, ‘সততা। পরস্পরের প্রতি নির্ভরতা আর বিশ্বাস।’

/এমএম/

লাইভ

টপ