কপিল দেবের স্ত্রী ‘দীপিকা’র পয়লা দর্শন

Send
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:৩৭, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫৮, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০

ভারতের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক কপিল দেব ও তার স্ত্রী রোমি ভাটিয়ার সঙ্গে বলিউডের তারকা দম্পতি রণবীর সিং ও দীপিকা পাড়ুকোনের কতই না মিল! ‘এইটি থ্রি’ চলচ্চিত্রের নতুন একটি স্থিরচিত্র দেখে অন্তত তা-ই মনে হচ্ছে।
কয়েক মাস আগে কপিলের সাজে রণবীরের স্থিরচিত্র প্রকাশিত হয়। রোমি ভাটিয়ার ভূমিকায় দীপিকার পয়লা দর্শন কেমন লাগবে তা উপভোগ করতে মুখিয়ে ছিলেন ভক্ত-দর্শকরা।

বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকালে প্রতীক্ষার অবসান হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এখন দীপিকার সাজগোজের প্রশংসা চলছে। লাইক ও হৃদয় ইমোজির বন্যা বয়ে যাচ্ছে! তার প্রতি একজনের মন্তব্য, ‘যেকোনও সাজে আপনাকে চমৎকার লাগে।’ আরেকজন লিখেছেন, ‘সুপার লুকস।’
স্থিরচিত্রে দেখা যাচ্ছে, একে অপরের চোখে তাকিয়ে আছেন ৩৪ বছর বয়সী দীপবীর। উভয়ে হাসিখুশি। রণবীরের গায়ে ভারতীয় অধিনায়কের কোট, এর সঙ্গে সাদা শার্ট ও টাই। দীপিকা পরেছেন টপ ও স্কার্ট। চুলে রোমি দেবের মতো ববকাট।
সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে নতুন স্থিরচিত্র শেয়ার করে দীপিকা লিখেছেন, “ভারতীয় ক্রীড়াঙ্গনের ইতিহাসে সবচেয়ে স্মরণীয় মুহূর্তকে তুলে ধরা একটি চলচ্চিত্রে স্বল্প উপস্থিতির চরিত্রে অভিনয় করতে পারাও অনেক সম্মানের। যেসব নারী নিজের চেয়ে স্বামীর স্বপ্নকে আগে রাখেন, আমি মনে করি ‘এইটি থ্রি’ তাদের প্রতি একটি গীতিকাব্য।”
অনেকে কপিল-রোমির পুরনো ও বিয়ের ছবি রণবীর-দীপিকার বিয়ের ছবি সঙ্গে জোড়া লাগিয়ে শেয়ার করেছেন। ২০১৮ সালে বিয়েবন্ধনে জড়ান তারা। ঘর বাঁধার পর জুটি হিসেবে ‘এইটি থ্রি’ তাদের প্রথম ছবি। সবশেষ সঞ্জয়লীলা বানসালির ‘পদ্মাবত’তে (২০১৮) তাদের দেখা গেছে। একই নির্মাতার ‘গোলিও কা রাসলীলা রাম-লীলা’ (২০১৩) ও ‘বাজিরাও মাস্তানি’তে (২০১৫) কাজ করেছেন তারা। এছাড়া দীপিকার ‘ফাইন্ডিং ফ্যানি’তে (২০১৪) অতিথি চরিত্রে ছিলেন রণবীর।
১৯৮৩ সালে ফেবারিট ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে ভারত বিশ্বকাপ জিতবে তা কেউই ভাবেনি। কিন্তু কপিল দেবের অধিনায়কত্বে ভারতীয় দল সেটাই করে দেখিয়েছে। দলের সবাইকে জেতার জন্য খেলতে উদ্বুদ্ধ করতে পেরেছিলেন তিনি। সেই জয়ে অনুপ্রাণিত ‘এইটি থ্রি’র গল্প। এর অন্যতম প্রযোজক দীপিকা পাড়ুকোন। ছবিটি মুক্তি পাবে আগামী ১০ এপ্রিল।
কবির খানের পরিচালনায় ‘এইটি থ্রি’তে আরও অভিনয় করেছেন তাহির রাজ ভাসিন (সুনীল গাভাস্কার), জিবা (কে. শ্রীকান্ত), সাকিব সেলিম (মহিন্দর অমরনাথ), যতিন সারনা (যশপাল শর্মা), চিরাগ পাটিল (সন্দীপ পাটিল), দিনকার শর্মা (কীর্তি আজাদ), নিশান্ত দাহিয়া (রজার বিনি), হার্ডি সান্ধু (মদন লাল), সাহিল খাট্টার (সৈয়দ কিরমানি), অ্যামি ভার্ক (বলবিন্দর সিং সান্ধু) ও আদিনাথ এম কোঠারে ( দীলিপ ভেংসরকার), দৈর্য কারওয়া (রবি শাস্ত্রী), আর বাদরি (সুনীল ভালসন) ও পঙ্কজ ত্রিপাঠি (পিআর মান সিং)।

সূত্র: বলিউড হাঙ্গামা

/জেএইচ/এমএম/এমওএফ/

লাইভ

টপ