পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে খুলনা থেকে ফিরছেন না পপি!

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৪:৫৪, মার্চ ২৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৪২, মার্চ ২৫, ২০২০

সাদিকা পারভীন পপিকরোনাভাইরাস আতঙ্ক নিয়ে দেশের প্রায় সব তারকা এখন ঢাকায় নিজ নিজ ফ্ল্যাটে নিজেদের নিরাপদে রাখতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা সচেতনতামূলক বার্তাও দিচ্ছেন ভক্তদের।

এমন সময়ে ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়িতে গিয়ে উদাহরণ সৃষ্টি করলেন চিত্রনায়িকা পপি! করোনাভাইরাসের ঝুঁকি জেনেও গত ১৩ মার্চ নিজ এলাকা খুলনা শহরের শিববাড়িতে চলে যান পপি। উদ্দেশ্য, দেশজুড়ে ছড়িয়ে পড়া করোনা দুর্যোগে নিজ গ্রামের মানুষের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া।

‘কুলি’-খ্যাত এই তারকা গ্রামের শ্রমজীবী মানুষের মাঝে বিতরণ করছেন বিভিন্ন সামগ্রী। গত তিন দিন ধরে এই কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

পপি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এখানকার শ্রমজীবী মানুষদের করোনা থেকে বাঁচাতে যতটুকু পারছি কাজ করছি। গত তিন দিন ধরে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করছি। তবে দুদিন পরই স্যানিটাইজার শেষ হয়ে গেছে। তাই আপাতত মাস্ক দিচ্ছি।’
করোনাভাইরাসটির সংক্রামণ ঠেকাতে ইতোমধ্যেই বন্ধ করা হয়েছে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, অফিস-আদালত, সিনেমা হল, শুটিংসহ শোবিজ অঙ্গনের সব ধরনের কার্যক্রম।




এদিকে এমন অসময়ে মফস্বল শহরে যাওয়া এবং সেখান থেকে ঢাকায় ফেরা প্রসঙ্গে পপি বললেন, ‘আপাতত বাড়িতেই থাকছি। মিডিয়ার সব কাজ বন্ধ রেখেছি। করোনাভাইরাস পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ঢাকায় ফিরবো। তার আগে নয়। এখানকার মানুষ করোনার নাম শুনলেও এর থেকে মুক্তি কিংবা এটার ভয়াবহতা সম্পর্কে জানে না। আমি তাদের সঙ্গে এসব নিয়ে কথা বলছি ও সচেতন করছি। আমার মনে হয়েছে এই অসময়ে গ্রামের মানুষগুলোর সঙ্গে থাকাটা জরুরি।’

জানা গেছে, এরমধ্যে পপি নিজ বাড়িতে কোরআনখানি ও দোয়ার আয়োজন করেছিলেন।

/এম/এমএম/এমওএফ/

লাইভ

টপ