‘নবাব: এল.এল.বি’ ছবির দেড় কোটি টাকায় পিপিই যাচ্ছে হাসপাতালে

Send
ওয়ালিউল বিশ্বাস
প্রকাশিত : ১৬:৪২, মার্চ ৩০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:১৩, মার্চ ৩০, ২০২০

পিপিই বিতরণের সময়ে ছবি। কোলাজে মামুন  ও শাকিবমার্চ মাসের শেষ সপ্তাহে শুরু হওয়ার কথা ছিল শাকিব খান অভিনীত অনন্য মামুন পরিচালিত ‘নবাব: এল.এল.বি’ চলচ্চিত্রের দৃশ্যধারণ। 

কিন্তু তা হয়নি। দেশজুড়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় বন্ধ হয়ে যায় ‘সেলিব্রেটি প্রডাকশন’-এর ব্যানারে নির্মিতব্য এ ছবির কাজ।

তবে থেমে নেই নির্মাতারা। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটি সিনেমার পুরো বাজেট দেড় কোটি টাকায় ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই) পৌঁছে দিচ্ছে চিকিৎসকদের কাছে। পাশাপাশি আপৎকালীন এই সময়ের জন্য নিম্ন আয়ের মানুষদের জন্য খাদ্যসামগ্রীর ব্যবস্থাও করেছে।

বিষয়টি বাংলা ট্রিবিউনকে নিশ্চিত করেন সেলিব্রেটি প্রোডাকশনের অন্যতম কর্ণধার ও নির্মাতা অনন্য মামুন। তিনি বললেন, ‘‘ আমরা ‘নবাব: এল.এল.বি’ সিনেমার টাকা ব্যয় করছি করোনা মোকাবিলায়। পুরো টাকাটাই ধাপে ধাপে কাজে লাগাবো। শুধু মানুষের মাঝে খাবার নয়, ডাক্তার ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ২৫ হাজার পিপিইও দিচ্ছি।’’

এই নির্মাতা আরও বলেন, ‘ছবিটির পেছনে অন্যতম এক প্রযোজক আছেন। প্রচারবিমুখ এ মানুষটি আমাদের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে যুক্ত। তার উদ্যোগেই এই কার্যক্রম চলছে। আপাতত আমরা কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, কুয়েত মৈত্রী ও আল বারাকাহতে পিপিই দিলাম। এছাড়াও বরিশাল পুলিশ প্রশাসনকে এটা দিয়েছি।’বরিশালে দেওয়া পিপিই

জানান, প্রথম ধাপে ২০০ কার্টনে এগুলো দেওয়া হয়েছে। আরও ৮০০টি প্যাকেট তৈরি আছে। সেগুলোও একইভাবে দেওয়া হবে।

তাহলে কি ‘নবাব’ ছবির কাজ বাতিল, জানতে চাইলে মামুন বলেন, ‘ছবিটির অন্যতম যে প্রযোজক তিনি বরাবরই জনহিতকর এমন উদ্যোগ নিয়েছেন। তাই সিনেমার টাকা করোনা মোকাবিলায় দেওয়া হলেও নির্মাণ নিয়ে সমস্যা হবে না। পরবর্তী সময়ে চলচ্চিত্রটির জন্য নতুন করে বাজেট করা হবে। আপাতত দেশ নির্মাণ ও রক্ষায় তিনি কাজ করতে চান।’

উল্লেখ্য, চলচ্চিত্রটির মুখ্য চরিত্রে আছেন শাকিব খান, মাহিয়া মাহি ও অর্চিতা স্পর্শিয়া। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এটির কাজ শুরু হবে।

/এম/এমওএফ/

লাইভ

টপ