নাজিয়ার সঙ্গে দারুণ পথচলা অনাহূত কারণে ঘুরে গেছে: অপূর্ব

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০০:২১, মে ১৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:৫৬, মে ১৮, ২০২০

রবিবার সন্ধ্যা থেকে নাজিয়া হাসান মূলত একাই বলে যাচ্ছিলেন বিয়েবিচ্ছেদ প্রসঙ্গে। তবে এমন আকাশভাঙা ঘটনার ছয় ঘণ্টার মাথায় মুখ খুললেন অভিনেতা অপূর্বও।

জানালেন এমন ঘটনার বিপরীতে নিজের প্রতিক্রিয়া। বেশ গুছিয়ে জানানো এই প্রতিক্রিয়ায় অপূর্ব বলেন, ‘নাজিয়া হাসানের সঙ্গে আমার ৯ বছরের দারুণ পথচলা অনাহূত কারণে ঘুরে গেছে। এ কারণে আমি কিছুটা বিচলিত। যদিও আমরা নিজেদের জন্য এমনটি চেয়েছিলাম তা নয়। তবে দুঃখের বিষয়, জীবন আজ আমাদের এখানে এনে দাঁড় করিয়েছে।’
তবে ‘অনাহূত কারণ’ প্রসঙ্গে বিস্তারিত কিছু বলেননি। অপূর্ব তার ফেসবুক দেয়ালে ইংরেজিতে লেখা ওই প্রতিক্রিয়াটি বাংলা করলে এমন দাঁড়ায়—‘মনটা খুব ভার। এ অবস্থায় আপনাদের সবাইকে জানাচ্ছি, নাজিয়া হাসানের সঙ্গে আমার ৯ বছরের দারুণ পথচলা অনাহূত কারণে ঘুরে গেছে। এ কারণে আমি কিছুটা বিচলিত। যদিও আমরা নিজেদের জন্য এমনটি চেয়েছিলাম তা নয়। তবে দুঃখের বিষয়, জীবন আজ আমাদের এখানে এনে দাঁড় করিয়েছে।
এতটা বছর ধরে আমরা একসঙ্গে ছিলাম। সে বরাবরই ভালো সঙ্গী এবং সত্যিকারের শুভাকাঙ্ক্ষী। আমার অনেক সাফল্যের পেছনে তার মূল ভূমিকা ছিল। ও অসাধারণ একজন মানুষ, আত্মবিশ্বাসী উদ্যোক্তা ও সবকিছুর ঊর্ধ্বে খুব দয়ালু ও মানবিক।
যদিও ক্যারিয়ারে অনেক কিছু অর্জন করেছি, তবু সবসময়ই আমার সবচেয়ে বড় অর্জন হয়ে থাকবে আমাদের ছেলে আয়াশ। পিতৃত্বের এই দারুণ উপহারের জন্য নাজিয়াকে ধন্যবাদ দিয়ে শেষ করা যাবে না। সে আমার সন্তানের জন্য আদর্শ মা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছে এবং ছেলের জন্য আমরা উভয়ে অভিভাবক হিসেবে নিজেদের কর্তব্য পালন করে যাবো।
আমি জানি, বিয়ের মতো পবিত্র সম্পর্ক ভেঙে গেলে অনেক প্রশ্ন জন্ম নেয়। তবু আমার বন্ধু, সহকর্মী এবং সর্বোপরি আমার লাখ লাখ ভক্তকে আমাদের প্রতি সদয় হতে বলবো। জেনে রাখুন, আমাদের সবার জন্য ভালো হবে এমন কিছু কারণে এই সিদ্ধান্ত। পরিবার আমাদের পাশে আছে। আশা করি আপনারাও তা-ই করবেন, যাতে আমি ও নাজিয়া এই কঠিন সময় অতিক্রম করতে পারি।
আমাদের তিন জনের জন্য প্রার্থনা করবেন। সবাইকে ধন্যবাদ। সৃষ্টিকর্তা আমাদের সবার মঙ্গল করুন।’
১৭ মে সন্ধ্যায় অদিতি হাসান তার ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন, ‌‘আমাকে ভাবি বলা সবাই বন্ধ করুন।’ এবং রিলেশনশিপ স্ট্যাটাসে যোগ করেন, ‘ডিভোর্সড’।
এমন ঘটনার দুই ঘণ্টার মাথায় পুরো বিষয়টি নিয়ে মুখ খুললেন নাজিয়া হাসান। বললেন বিস্তারিত। যার পুরোটাজুড়েই ছিল অভিনেতা অপূর্বকে ঘিরে। এভাবেও বলা যায়, অপূর্বকে দোষারোপ না করার অনুরোধ ছিল নাজিয়ার এই বার্তায়।


২০১১ সালের ১৪ জুলাই নাজিয়া হাসান অদিতিকে বিয়ে করেন অপূর্ব।অপূর্ব-অদিতির বিয়ের ছবি

/জেএইচ/এমএম/এমওএফ/

লাইভ

টপ