তারা এখন আসাদ-সুবর্ণা জুটি!

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৭:৪৯, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৫৪, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০

শুটিংয়ে আসাদ-সুবর্ণা চরিত্রে রোশান-মাহিগল্পটা সত্তর দশকের। দরকার একটু পুরনো সময়ের বাড়িঘর, মানুষ ও তাদের নামটাও। সে কারণে মাহিয়া মাহি ও জিয়াউল রোশান এখন পুরান ঢাকার সূত্রাপুরে। সেখানে তাদের ডাকা হচ্ছে সুবর্ণা ও আসাদ নামে!
নাম দুটির মাধ্যমে প্রায় ৪০ বছর পর উঠে এলো সৈয়দ সালাহউদ্দিন জাকী পরিচালিত ‘ঘুড্ডি’ ছবিটির প্রসঙ্গ। ১৯৮০ সালে মুক্তি পাওয়া এই ছবিটির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে জুটি বাঁধেন রাইসুল ইসলাম আসাদ ও সুবর্ণা মুস্তাফা। ছবিটির সূত্র ধরে আসাদ-সুবর্ণা জুটি এখনও বেশ আলোচিত।
নতুন আসাদ-সুবর্ণাকে নিয়ে আজ (২৭ সেপ্টেম্বর) থেকে শুরু হলো ‘আশীর্বাদ’ ছবির শুটিং। পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। যদিও নাম দুটির নামকরণ প্রসঙ্গে ‘ঘুড্ডি’ প্রসঙ্গটি এড়িয়ে গেলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই নির্মাতা।
তিনি বললেন, ‘এই সিনেমার প্রেক্ষাপট পুরনো, সত্তরের দশক। তখন আসাদ বা সুবর্ণা নামগুলো খুব জনপ্রিয় ছিল। সেই সময়টা ধরতেই নাম দুটি রাখা। সেই সময়ের খোঁজেই আমরা এখন হাজির হয়েছি পুরান ঢাকায়।’

জানালেন, সূত্রাপুরে দু’দিনের কাজ। এরপর আরও দু’দিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যাবেন মাহি ও রোশান। তারপর আরও দু’দিন কাজ চলবে অটিজম সেন্টারে।
দু’দিন করে কাজ করার বিষয়ে মানিক বললেন, ‘সেভাবে কোনও পরিকল্পনা নয়, ঢাকার ভেতরে এই তিনটি জায়গার দৃশ্য আমাদের লাগবে। খুব বেশি নয়, অল্প করে। তাই দুই দিন করে সময়টা রাখা। এরপর আমরা ঢাকার বাইরে রওনা দেবো।’
সূত্রাপুরের শুটিংসূত্রাপুরে কাজ চলবে আগামীকাল (২৮ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত। এরপর ১ অক্টোবর থেকে ঢাকা ভার্সিটি ও অটিজম সেন্টারে শুটিং হবে।
২০১৯-২০ সরকারি অনুদানে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র হিসেবে তৈরি হচ্ছে ‘আশীর্বাদ’। ছবিতে বিশেষ শিশু ও মুক্তিযুদ্ধের গল্প উঠে আসবে। এর প্রযোজনার পাশাপাশি কাহিনি ও চিত্রনাট্য রচনা করেছেন জেনিফার ফেরদৌস। ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে আছেন মাহি ও রোশান।

/এম/এমএম/এমওএফ/

লাইভ

টপ