X
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪
১৮ ফাল্গুন ১৪৩০
জোট সরকারে থাকবে না পিপিপি

পিএমএল-এনের প্রধানমন্ত্রী প্রার্থীকে সমর্থন দেবে বিলাওয়ালের দল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮:৫৭আপডেট : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২৩:৪৬

সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনে দলগতভাবে সবচেয়ে বেশি আসন পাওয়া পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) ও পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি)-এর দীর্ঘ আলোচনার পর নওয়াজের দলের প্রধানমন্ত্রী প্রার্থীকে সমর্থন দেওয়ার কথা জানিয়েছেন পিপিপির প্রধান বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি। তবে কেন্দ্র সরকারের অংশ হবে না দলটি। মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দিন ব্যাপী দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ডন ও জিও নিউজ এ খবর জানিয়েছে।

পিপিপি চেয়ারম্যান বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড় থেকে তিনি নিজেকে প্রত্যাহার করছেন। কারণ পিপিপি কেন্দ্রে সরকার গঠনের প্রয়োজনীয় ম্যান্ডেট পায়নি।

তিনি বলেছেন, পিএমএল-এন ও স্বতন্ত্ররা কেন্দ্রে পিপিপির চেয়ে বেশি আসনে জয়ী হয়েছে। পিটিআই পিপিপির সঙ্গে জোট গঠনে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। ফলে পিপিপিকে সরকারের যোগ দিতে আমন্ত্রণ জানানো একমাত্র দল পিএমএল-এন।

পিপিপি চেয়ারম্যান বলেছেন, দেশের বর্তমান পরিস্থিতি রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার জন্য হুমকি। বৈঠকে পাকিস্তানের সংকটে পড়ার আশঙ্কা নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

তিনি বলেন, পিপিপির নীতিগত সিদ্ধান্ত হলো পাকিস্তানকে এই সংকট থেকে উত্তরণ। সরকার গঠন ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার জন্য অন্যান্য দলগুলোর সঙ্গে কাজ করার জন্য একটি কমিটি গঠন করবে দলটি।

বিলাওয়াল বলেছেন, পিপিপি সিদ্ধান্ত নিয়েছে আমাদের নিজেদের পক্ষে কেন্দ্রে সরকার গঠন করতে পারছি না বা যোগ দেওয়ার মতো অবস্থায় নেই। এমন অবস্থায় আমরা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিতেও আগ্রহী নই। আমরা দেশে রাজনৈতিক বিশৃঙ্খলাও চাই না।

বিলাওয়াল আরও বলেছেন, আমরা এই নির্বাচন জনগুরুত্বপূর্ণ ইস্যুভিত্তিক ইশতেহারের আলোকে পরিচালনা করেছি। আমরা রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনতে এবং রাজনৈতিক বিদ্বেষের পরিস্থিতির অবসান চাই। সরকারকে ইস্যুর ভিত্তিতে সমর্থন করবে পিপিপি। যাতে করে সরকার গঠিত হয় এবং রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় থাকে।

জিও নিউজের তথ্য অনুসারে, সাধারণ পরিষদের ২৬৪ আসনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৯২ আসনে জয় পেয়েছেন ইমরান খান সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। ৭৯ আসন পেয়েছে পিএমএল-এন এবং পিপিপি পেয়েছে ৫৪ আসন। মুত্তাহিদা কওমি মুভমেন্ট পাকিস্তান (এমকিউএম-পি) ১৭ আসনে জয়ী হয়েছে। একক বৃহত্তম দল হয়েছে পিএমএল-এন। পিপিপির সঙ্গে জোট সরকার গঠনে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে দলটি।

 

/এএ/
সম্পর্কিত
গাজায় প্রথমবার বিমান থেকে ত্রাণ ফেলল যুক্তরাষ্ট্র
ইউক্রেনে রুশ ড্রোন হামলা, নিহত ৫
লেবাননে ইসরায়েলি হামলা, নিহত ৭ হিজবুল্লাহ সদস্য
সর্বশেষ খবর
আবারও হাবের নেতৃত্বে শাহাদাত হোসাইন
আবারও হাবের নেতৃত্বে শাহাদাত হোসাইন
গাজীপুরে তুলার গুদামের আগুন নিয়ন্ত্রণে
গাজীপুরে তুলার গুদামের আগুন নিয়ন্ত্রণে
পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনে ফের সভাপতি মনিরুল, সম্পাদক রাসেল
পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনে ফের সভাপতি মনিরুল, সম্পাদক রাসেল
‘অবৈধ ব্যক্তির কোনও সিদ্ধান্তে আমার মাথাব্যথা নেই’
সমিতির সদস্যপদ হারালেন জায়েদ খান‘অবৈধ ব্যক্তির কোনও সিদ্ধান্তে আমার মাথাব্যথা নেই’
সর্বাধিক পঠিত
ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের বিএসসি পাস মর্যাদা দেওয়ার উদ্যোগ
ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের বিএসসি পাস মর্যাদা দেওয়ার উদ্যোগ
মোবাইল অপারেটররা দিতে পারবে ওয়াই-ফাই সেবা, আপত্তি আইএসপি অপারেটরগুলোর
মোবাইল অপারেটররা দিতে পারবে ওয়াই-ফাই সেবা, আপত্তি আইএসপি অপারেটরগুলোর
স্কুলে গণিত ও বিজ্ঞানের শিক্ষক হতে পারেন ডিপ্লোমা প্রকৌশলীরা: শিক্ষামন্ত্রী
স্কুলে গণিত ও বিজ্ঞানের শিক্ষক হতে পারেন ডিপ্লোমা প্রকৌশলীরা: শিক্ষামন্ত্রী
বিদেশের সম্পদ দেশের টাকায় করিনি: সাবেক ভূমিমন্ত্রী
বিদেশের সম্পদ দেশের টাকায় করিনি: সাবেক ভূমিমন্ত্রী
ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে ছিল ‘এএমপিএম’, পলাতক কর্মকর্তারা
বেইলি রোড ট্র্যাজেডিব্যবস্থাপনার দায়িত্বে ছিল ‘এএমপিএম’, পলাতক কর্মকর্তারা