যুক্তরাষ্ট্রের কানসাসে বন্দুক হামলা, নিহত ২

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০০:৫৩, জানুয়ারি ২১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:২২, জানুয়ারি ২১, ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি অঙ্গরাজ্যের কানসাস শহরে একটি বার বা পানশালায় বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছে। রবিবার রাতের এ ঘটনায় হামলাকারীসহ অন্তত দুইজন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ১৫ জন। পুলিশের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সিএনএন।
প্রতিবেদনে  বলা হয়, রবিবার রাতে কানসাস সিটি বারে প্রবেশের জন্য লাইনে অপেক্ষামান লোকজনের ওপর গুলিবর্ষণ করে এক বন্দুকধারী। পরে একজন সশস্ত্র নিরাপত্তারক্ষী তাকে নিবৃত্ত করতে সমর্থ হন।

বারের পার্কিং লটে এক ব্যক্তি ও এক নারীর মরদেহ পাওয়া গেছে। পুলিশের ধারণা, নিহত ওই ব্যক্তিই ছিল হামলাকারী।

কানসাস সিটির পুলিশ ক্যাপ্টেন ডেভিড জ্যাকসন জানান, এ ঘটনায় রবিবার রাত ১১ সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশের কাছে ফোন আসে। তবে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলেও তাদের পক্ষ থেকে কোনও গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেনি। 

ডেভিড জ্যাকসন জানান, এ ঘটনায় আহত ১৫ জনকে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। তাদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা গুরুতর।

সুনির্দিষ্টভাবে কাউকে লক্ষ্য করে এ হামলা চালানো হয়েছে নাকি এর পেছনে অন্য কোনও কারণ রয়েছে সে ব্যাপারে এখনও নিশ্চিত নয় পুলিশ। গোয়েন্দাদের তদন্তে এ বিষয়ে নজর দেওয়া হবে।

এদিকে একই দিন সকালে যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই অঙ্গরাজ্যের হনুলুলু শহরে দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা করেছে এক বন্দুকধারী। হনুলুলু শহরের ডায়মন্ড হেড এলাকায় ওই হামলা চালানো হয়। একজন প্রত্যক্ষদর্শী হাওয়াই নিউজ নাউকে জানিয়েছেন, তিনি অন্তত ২০টি গুলির শব্দ শুনেছেন। হনুলুলুর হামলাকারীর নাম জেরি হ্যানেল (৬৯)। রবিবার সকালে ডায়মন্ড হেড এলাকার একটি বাড়ির মালিক এবং অপর এক নারীকে ছুরিকাঘাত করে সে। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছালে তাদের লক্ষ্য করেও সে গুলিবর্ষণ করে। এরপর বাড়িটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে আশপাশের বেশ কিছু বাড়ি-ঘরেও আগুন ছড়িয়ে পড়ে। পুলিশের ধারণা, ওই ঘটনার পর অগ্নিদগ্ধ হয়ে হামলাকারী নিজেও মারা গেছে।

/এমপি/

লাইভ

টপ