শাহিনবাগে গুলি চালানো ব্যক্তি আম আদমি পার্টির সদস্য: পুলিশ

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৯:১৫, ফেব্রুয়ারি ০৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:৩০, ফেব্রুয়ারি ০৫, ২০২০

শাহিনবাগে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনবিরোধী (সিএএ) বিক্ষোভে গত সপ্তাহে গুলি চালানো ব্যক্তি দিল্লি বিধানসভায় ক্ষমতাসীন আম আদমি পার্টির (এএপি) সদস্য বলে জানিয়েছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দিল্লির ক্রাইম ব্রাঞ্চের কর্মকর্তারা সাংবাদিকদের বলেন, অভিযুক্ত কপিল গুজ্জার নিজেকে এএপি সদস্য বলে স্বীকার করে নিয়েছে। উল্লেখ্য, গত ১ ফেব্রুয়ারি ‘জয় শ্রীরাম’ বলে শাহিনবাগের বিক্ষোভে গুলি চালানো হয়।

ভারতের মুসলিমবিদ্বেষী নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) প্রতিবাদে রাজধানী দিল্লির শাহিনবাগে দীর্ঘদিন ধরেই বিক্ষোভ চলছে। মূলত নারীদের এই অবস্থান কর্মসূচি নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই কড়া ভাষায় কথা বলেছেন বিজেপি নেতারা। কেন সেখানে দিনের পর দিন রাস্তায় বসে বিক্ষোভ চলবে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তারা। তাদের কেউ কেউ দিল্লির বিধানসভা ভোটে বিজেপি জিতলেই আন্দোলনকারীদের সেখান থেকে হটিয়ে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

গত ১ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) বিকালে শাহিনবাগের বিক্ষোভে গুলিবর্ষণের সময় বন্দুকধারীকে বলতে শোনা যায়, ‘আমাদের দেশে কেবল হিন্দুরাই থাকবে।’ এর আগে দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বিক্ষোভেও পুলিশের উপস্থিতিতে গুলিবর্ষণ করে এক উগ্র হিন্দুত্ববাদী কিশোর। রবিবার রাতেও বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে বিক্ষোভরতদের ওপর গুলি চালানোর ঘটনা ঘটে।

মঙ্গলবার ক্রাইম ব্রাঞ্চের সিনিয়র অফিসার রাজেশ রাও শাহিনবাগে গুলি ছোঁড়া কপিল গুজ্জারকে আম আদমি পার্টির (এএপি) সদস্য বলে দাবি করেন। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রাথমিক তদন্তে দেখা গেছে এক বছর আগে সে আর তার বাবা এএপিতে যোগ দেয়। আমরা কপিলের ফোনে বেশ কিছু ছবি পেয়েছি যাতে আমাদের প্রকাশিত তথ্যই প্রমাণিত হয়’। এসব ছবিতে কপিলকে এএপি’র সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে দেখা গেছে।

দিল্লির বিধানসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণের তিন দিন আগে পুলিশ এই ঘোষণা দিলো। এই নির্বাচনের অন্যতম বড় ইস্যু হয়ে উঠেছে শাহিনবাগের বিক্ষোভ।

/জেজে/বিএ/

লাইভ

টপ