ইউরোপে গত বছরের ডিসেম্বরেই ছিল করোনাভাইরাস

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:১২, মে ০৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:০৬, মে ০৫, ২০২০

এতদিন ধরে ধারণা করা হচ্ছিল এ বছরের জানুয়ারির শেষ দিকে ইউরোপে প্রথম করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়। তবে এবার জানা গেছে গত বছরের ডিসেম্বরে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে এক ব্যক্তি এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। ওই ব্যক্তি নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত বলে ধারণা করা হলেও সম্প্রতি তার চিকিৎসক জানিয়েছেন, পরীক্ষায় নিশ্চিত হওয়া গেছে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরা ওই ব্যক্তির দাবি, কোনও সংক্রমিত এলাকায় না যাওয়ার পরেও আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি।

চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়ার পর করোনাভাইরাসের মহামারিতে সবচেয়ে উপদ্রুত অঞ্চল ইউরোপ। স্পেন, ইতালি, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্যসহ এই অঞ্চলের বেশ কয়েকটি দেশে হাজার হাজার মানুষের মৃত্যুর কারণ হয়েছে এই ভাইরাস। কোনও এলাকায় ভাইরাসের বিস্তার কিভাবে হয়েছে তা জানতে প্রথম আক্রান্ত ব্যক্তির সম্পর্কে জানা প্রয়োজন বলে মনে করেন বিজ্ঞানীরা।

প্যারিসের কাছে এভিসেন এন্ড জ্যঁ ভার্দিয়ে হাসপাতালের এমারজেন্সি মেডিসিনের প্রধান ড. ইভস কোয়েন ফ্রান্সের একটি টিভি চ্যানেলকে জানান, গত ডিসেম্বর এবং জানুয়ারি মাসে যেসব মানুষ ভাইরাসের লক্ষণ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন তাদের নথিপত্র আবারও পর্যালোচনা করে দেখা হয়। এর অংশ হিসেবে মোট ১৮ জনের নমুনা পরীক্ষার উদ্যোগ নেওয়া হয়। এর মধ্যে এক ব্যক্তির নমুনায় করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়।

আক্রান্ত ব্যক্তির বয়স ৪৪ বছর। তিনি প্যারিসের উত্তর-পূর্বে বসবাস করেন। শুষ্ক কাশি, জ্বর এবং শ্বাসকষ্ট নিয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। তার দাবি আক্রান্ত হওয়ার আগে তিনি কোথাও ভ্রমণ করেননি। তার দুই শিশু সন্তানও ওই সময় অসুস্থ হলেও তার স্ত্রীর মধ্যে কোনও লক্ষণ দেখা যায়নি।

ড. ইভস কোয়েন জানান, আক্রান্ত ব্যক্তির স্ত্রী স্থানীয় একটি সুপার মার্কেটে কাজ করতেন। ধারণা করা হচ্ছে সেখানেই চীন থেকে আসা কোনও ব্যক্তির সংস্পর্শে আসেন তিনি। আক্রান্ত ব্যক্তির স্ত্রীর দাবি অনেকেই বিমানবন্দর থেকে মালামাল নিয়ে ওই মার্কেটে আসতো। ড. কোয়েন বলেন ধারণা করা হচ্ছে ওই নারী হয়তো লক্ষণ বা উপসর্গ বিহীন ছিলেন। এই বিষয়ে বিস্তারিত তদন্ত করা হবে বলে জানান তিনি।

/জেজে/

লাইভ

টপ