যুক্তরাজ্যে করোনায় শ্বেতাঙ্গদের চেয়ে বাংলাদেশিদের মৃত্যু ঝুঁকি বেশি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:২১, মে ০৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:২৬, মে ০৭, ২০২০

করোনাভাইরাস মহামারিতে যুক্তরাজ্যের শ্বেতাঙ্গদের চেয়ে বাংলাদেশি ও পাকিস্তানি বংশোদ্ভূতদের মৃত্যুর ঝুঁকি বেশি। শ্বেতাঙ্গদের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ সংখ্যায় মৃত্যু হতে পারে বাংলাদেশিসহ দক্ষিণ এশীয় বংশোদ্ভূতদের। বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ পরিসংখ্যান কার্যালয় এক প্রতিবেদনে এই আশঙ্কার কথা জানিয়েছে। এই গবেষণায় বৈষম্যকে সমন্বয় করা হয়েছে। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

 

পরিসংখ্যান কার্যালয় জানায়, আর্থ-সামাজিক ফ্যাক্টর সমন্বয় করার পরও বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে ঝুঁকির উল্লেখযোগ্য পার্থক্য রয়েছে।

যুক্তরাজ্যের অফিস ফর ন্যাশনাল স্ট্যাটিস্টিকস (ওএনএস) বলছে, শ্বেতাঙ্গ জাতিগোষ্ঠীর তুলনায় অন্য জাতিগোষ্ঠীর মানুষের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর ঝুঁকি উল্লেখযোগ্য মাত্রায় বেশি। শ্বেতাঙ্গ জাতিগোষ্ঠীর তুলনায় বাংলাদেশ, পাকিস্তান, ভারত ও মিশ্র জাতিগোষ্ঠীর মানুষদের মৃত্যুর ঝুঁকি বেশি।

করোনাভাইরাস নিয়ে গবেষণা করা বিজ্ঞানীরা সতর্ক করে বলছেন, এখনও অনেক কিছু অজ্ঞাত রয়েছে। এক্ষেত্রে বয়স, লিঙ্গ ও জাতিগোষ্ঠীভিত্তিক মৃত্যু হারের কথা উল্লেখ করছেন তারা। জিনগতভাবে হয়তো অনেক ক্লু রয়েছে, যাতে করে রোগটির ওষুধ বা টিকা উদ্ভাবনের পথ উন্মুক্ত হতে পারে।

বৈষম্য, শিক্ষা ও স্বাস্থ্যের মতো খাতের ফ্যাক্টর সমন্বয় ছাড়া শ্বেতাঙ্গদের তুলনায় কৃষ্ণাঙ্গ পুরুষের করোনায় মৃত্যুর ঝুঁকি ৪ দশমিক ২ গুণ বেশি। শ্বেতাঙ্গ নারীদের তুলনায় কৃষ্ণাঙ্গ নারীদের মৃত্যু ঝুঁকি ৪ দশমিক ৩ গুণ বেশি।

সমন্বিত মডেল অনুসারে, শ্বেতাঙ্গ জাতিগোষ্ঠীর তুলনায় কৃষ্ণাঙ্গ পুরুষ ও নারীর করোনায় মৃত্যু ঝুঁকি ১ দশমিক ৯ গুণ বেশি। এই মডেল অনুসারে, বাংলাদেশি ও পাকিস্তানি বংশোদ্ভূতদের শ্বেতাঙ্গদের তুলনায় মৃত্যুর ঝুঁকি ১ দশমিক ৮ গুণ বেশি। চীনা ও মিশ্র জাতিগোষ্ঠীর মানুষেরও শ্বেতাঙ্গদের চেয়ে সমানমাত্রায় ঝুঁকি রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পরিসংখ্যানেও দেখা গেছে, দেশটিতে আফ্রিকান আমেরিকানদের করোনায় মৃত্যু হচ্ছে বেশি।

সংবাদমাধ্যমের খবর অনুসারে, মঙ্গলবার পর্যন্ত যুক্তরাজ্যে ১২২ জন বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে।

/এএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ