মিথ্যা আত্মতুষ্টিতে ভুগবেন না: ড. ফাউচি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:২৩, জুলাই ০৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:২৭, জুলাই ০৮, ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস আক্রান্তদের মৃত্যুহার খানিকটা কমে  আসার ঘটনাকে সাফল্য হিসেবে হাজির করতে চাইছেন সে দেশের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে দেশটির সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনি ফাউচি মনে করছেন, মৃত্যুহার নিম্নগামী হলেও তা স্বস্তি পাওয়ার মতো কিছু নয়। এই ভাইরাসের নেতিবাচক প্রভাব আরও বিস্তৃত পরিসরে ব্যপ্ত। মঙ্গলবার (৭ জুলাই) এক লাইভ স্ট্রিম প্রেস কনফারেন্সে তিনি মার্কিন জনগণকে সতর্ক করে বলেছেন, ‘মিথ্যা আত্মতুষ্টিতে ভুগবেন না’। 

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর দিক দিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে যুক্তরাষ্ট্র। জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বাংলাদেশ সময় বুধবার দুপুর দেড়টা নাগাদ দেশটিতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৯ লাখ ৯৬ হাজার ৯৮। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৩১ হাজার ৪৮০ জনের। সম্প্রতি দেশটিতে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও মৃত্যুহার কমতে দেখা গেছে। আর একে নিজেদের অর্জন বলে দাবি করছে ট্রাম্প প্রশাসন।

মঙ্গলবার আলাবামার ডেমোক্র্যাট সিনেটর ডো জোন্স-এর সঙ্গে এক লাইভ স্ট্রিম প্রেস কনফারেন্সে অংশ নেন ফাউচি। সেসময় যুক্তরাষ্ট্রের জনগণকে করোনায় মৃত্যুহার কমা নিয়ে আনন্দিত না হওয়ার পরামর্শ দেন তিনি। বলেন, ‘কম মৃত্যুহার নিয়ে স্বস্তিবোধ করার বিষয়টি ফলস ন্যারেটিভে আশ্বস্ত হওয়ার মতো। সত্যিকার অর্থে এ ভাইরাসের আরও অনেক ভয়াবহ ও বাজে প্রভাব রয়েছে।’

সোমবার (৬ জুলাই) এক টুইটে করোনাভাইরাসকে চায়না ভাইরাস উল্লেখ করে ট্রাম্প বলেছিলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর হার বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে কম।’ সিএনএন-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘বাস্তবতা হলো যুক্তরাষ্ট্রে সম্প্রতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর হার কমে আসলেও সে সংখ্যাটা বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে কম নয়। যুক্তরাষ্ট্রের কিছু জায়গায় করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে সীমাবদ্ধতা রয়েছে, সেকারণে প্রকৃত মৃত্যুর সংখ্যা উঠে আসছে না।

সূত্র: সিএনএন

/এফইউ/বিএ/

লাইভ

টপ