টিকটককে ৬ সপ্তাহের সময় বেঁধে দিলেন ট্রাম্প

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১২:১৩, আগস্ট ০৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:১৭, আগস্ট ০৪, ২০২০

স্মার্টফোনের ভিডিওভিত্তিক জনপ্রিয় অ্যাপ টিকটককে যুক্তরাষ্ট্রের কোনো প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রি করে দেওয়ার জন্য মালিকানা প্রতিষ্ঠান বাইটডেন্সকে ছয় সপ্তাহ সময় দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে অ্যাপটি মার্কিন কোম্পানির কাছে বিক্রি না করলে যুক্তরাষ্ট্রে এর ব্যবসা গুটিয়ে দেওয়া হতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।

২০১৭ সালে চালু হওয়ার অল্প সময়ের মধ্যেই বিশ্বজুড়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়ে যায় ৬০ সেকেন্ড দৈর্ঘ্যের ভিডিও তৈরির অ্যাপ টিকটক। তবে সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি কর্মকর্তা ও আইনপ্রণেতারা উদ্বেগ প্রকাশ করে বলে আসছিলেন, অ্যাপটি অসৎ উদ্দেশে ব্যবহার করতে পারে বেইজিং। এতে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা হুমকিতে পড়তে পারে। উদ্বেগের মুখে ট্রাম্প ঘোষণা দেন, যুক্তরাষ্ট্রে চীনের এই অ্যাপটি নিষিদ্ধ করা হতে পারে।

এএফপি জানিয়েছে, সোমবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট টিকটককে ৬ সপ্তাহের মধ্যে মার্কিন কোম্পানির কাছে বিক্রি করে দেওয়ার নির্দেশনা দেন। বলেন, “এটা আমেরিকার কোনও কোম্পানির হবে...এটার মালিকানা থাকবে এই দেশে। কেননা আমরা নিরাপত্তা নিয়ে কোনো সমস্যা দেখতে চাই না।”

ট্রাম্প টিকটক নিষিদ্ধ করার ইঙ্গিত দেওয়ার পরই অ্যাপটি চীনা প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে কিনে নেওয়ার জন্য আগ্রহ দেখায় যুক্তরাষ্ট্রের টেক জায়ান্ট মাইক্রোসফট। অ্যাপটি নিজেদের মালিকায় আনলে যুক্তরাষ্ট্র আর্থিকভাবে কতটুকু লাভবান হবে এ নিয়ে এরই মধ্যে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে আলোচনা করেছ মাইক্রোসফটের প্রতিনিধিরা। এক বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে, এ ব্যাপারে মার্কিন সরকারের সঙ্গে একটি চুক্তিতে পৌঁছার জন্য কাজ চালিয়ে যাবে এবং ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আলোচনা সম্পন্ন করার লক্ষ্য রয়েছে।

টিকটক অ্যাপ যুক্তরাষ্ট্রের কোনো প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রি করে দিতে চীনা টেক কোম্পানি বাইটডেন্সের ওপর চাপ তৈরির জন্যই ট্রাম্প সময় নির্ধারণ করে দিয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। ট্রাম্প বলেন, “আমি ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময় ঠিক করে দিলাম। এরপর এটি (টিকটক) যুক্তরাষ্ট্রে ব্যবসার বাইরে চলে যাবে।” অ্যাপটির দাম প্রসঙ্গে ট্রাম্প বলেন, “যুক্তরাষ্ট্র দামের সর্বোচ্চটাই দেবে। কেননা আমরা এটির মালিকানা বদল সম্ভব করব।”

/বিএ/

লাইভ

টপ