চীন সীমান্তে রাজনাথের অস্ত্রপূজা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:১১, অক্টোবর ২৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৪৬, অক্টোবর ২৬, ২০২০

লাদাখে উত্তেজনার মধ্যেই চীন সীমান্তের কাছে অস্ত্রপূজা করেছেন ভারতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। রবিবার তিনি বিজয়া দশমীতে পশ্চিমবঙ্গের সেনা ঘাঁটি সুকনায় অস্ত্রপূজা করেছেন। পূজার সময় তিনি চীনকে আরেকবার হুঁশিয়ারি জানিয়েছেন। তার সঙ্গে ছিলেন ভারতীয় সেনাপ্রধান। জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলে এ খবর জানিয়েছে।

রবিবার প্রথমে পশ্চিমবঙ্গের সেনাঘাঁটি এবং সেখান থেকে সিকিমে চীন সীমান্তে যাওয়ার কথা ছিল রাজনাথের। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা থেকে মাত্র দুই কিলোমিটার দূরে সেনাদের একটি ছাউনিতে তার বিজয়া দশমীর অস্ত্রপূজা করার কথা ছিল। কিন্তু আবহাওয়া খারাপ থাকায় সেখানে তিনি পৌঁছাতে পারেননি। পরে দার্জিলিংয়ে সুকনা যুদ্ধ সমাধিতে তিনি পূজা করেন। চীন সীমান্তের এত কাছে গিয়ে অস্ত্রপুজো নিয়ে সীমান্তে উত্তেজনা তৈরি হয়েছিল।

রাজনাথ বলেন, ভারত শান্তির পক্ষে। কিন্তু চীন যেভাবে আগ্রাসী মনোভাব দেখাচ্ছে, তার যোগ্য জবাব দিচ্ছেন ভারতীয় জওয়ানরা।

রাজনাথ বলেছেন, ভারত এক ইঞ্চি জমিও ছাড়বে না। চীনকে ভারতের ভূখণ্ডে ঢুকতে দেয়নি দেশের সেনারা। আরএসএস প্রধান মোহন ভগবত বলেন, সাম্রাজ্যবাদী চীন ভারতের ভূখণ্ডে ঢুকে পড়েছে। ভারত তার যোগ্য জবাব দিয়েছে।  

লাদাখে ভারত-চীন সীমান্তে উত্তেজনা অব্যাহত রয়েছে। এখনও দুই দেশের সেনারা মুখোমুখি দাঁড়িয়ে আছে। ভারতীয় সেনাবাহিনীর সাবেক লেফটেন্যান্ট জেনারেল উৎপল ভট্টাচার্য বলেছে, সীমান্তে উত্তেজনা এতটুকু কমেনি; বরং বেড়েছে। দুই দেশই আধুনিক সব যুদ্ধাস্ত্র প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার খুব কাছে নিয়ে গিয়ে রেখেছে।

ভারতীয় সেনা সূত্রের তথ্য অনুসারে, এই মুহূর্তে পূর্ব লাদাখে ভারত এবং চীনের ট্যাঙ্কের মধ্যবর্তী দূরত্ব মাত্র চারশ মিটার। যা নজিরবিহীন। সেনা পর্যায়ে একাধিক বৈঠকেও কোনও সমাধানসূত্র মেলেনি। অরুণাচল এবং সিকিম সীমান্তেও রেড অ্যালার্ট জারি রয়েছে।

/এএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ