X
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪
৩ বৈশাখ ১৪৩১

অবশেষে বন্দুক নিয়ন্ত্রণ বিলে স্বাক্ষর করলেন বাইডেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
২৬ জুন ২০২২, ০৯:৫০আপডেট : ২৭ জুন ২০২২, ১৩:১১

গত তিন দশকের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক নিয়ন্ত্রণে একটি বিলে স্বাক্ষর করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। শনিবার স্বাক্ষরের পর বাইডেন বলেন, ‘আমি যা চেয়েছিলাম তার সবটা হয়তো করতে পারবে না এই বিলটি। কিন্তু এতে সেই পদক্ষেপগুলো রয়েছে যে কথা দীর্ঘ সময় ধরে বলে আসছি আমি। এতে জীবন বাঁচাবে’।

যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে বন্দুক হামলা বেড়ে যাওয়ায় সম্প্রতি মার্কিন সিনেটে বিলটি পাস হয়। এটিকে প্রায় ৩০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। কংগ্রেসের উচ্চকক্ষে ডেমোক্র্যাটদের সঙ্গে ১৫ রিপাবলিকান সদস্য যোগ দিলে বিলটি ৬৫-৩৩ ভোটে পাস হয়। এতদিন প্রেসিডেন্টের স্বাক্ষরের অপেক্ষায় ছিল। 

জি-৭ সম্মেলনে যোগ দিতে ইউরোপের যাওয়ার আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেন বহুল আলোচিত বিলে স্বাক্ষর করেন। ফলে আইনে পরিণত হলো। গুলিবিদ্ধদের পরিবারের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, 'আমাদের কাছে তাদের বার্তা ছিল কিছু করার। আজ আমরা করেছি। আমি জানি, আরও অনেক কাজ বাকি। তবে আশা ছাড়ছি না'।

বিলে হুমকি হিসেবে বিবেচিত মানুষের কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র অপসারণের জন্য ‘রেড ফ্ল্যাগ’ আইন বাস্তবায়নে অঙ্গরাজ্যগুলোকে উৎসাহিত করার জন্য অর্থায়নের আহ্বান জানানো হয়েছে। এই আইনে মানসিক স্বাস্থ্য কর্মসূচি এবং স্কুল নিরাপত্তা উন্নয়নের জন্য ১৫ বিলিয়ন ডলারের ফেডারেল তহবিল অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এছাড়া আইনটিতে অবিবাহিত ঘনিষ্ঠ সহযোগীদের অপব্যবহারের জন্য দোষী সাব্যস্ত ব্যক্তিদের কাছে বন্দুক বিক্রি আটকাতে কথিত ‘বয়ফ্রেন্ড লুপহোল’ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। নতুন আইনে ২১ বছরের কম বয়সের বন্দুক ক্রেতাদের অতীত ইতিহাস কঠোরভাবে খতিয়ে দেখা হবে।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে বন্দুক হামলায় ১০ জন এবং টেক্সাসের এক প্রাইমারি স্কুলে ১৯ শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় বন্দুক আইন কঠোর করার দাবি ওঠে দেশজুড়ে। এরপরই এই অস্ত্র আইন সংস্কারের বিষয়টি সামনে আসে।

সূত্র: আল জাজিরা।

/এলকে/
সম্পর্কিত
আদালতে হাজির হয়ে ট্রাম্প বললেন, ‘এটি কেলেঙ্কারির বিচার’
ইরানে পাল্টা হামলা না চালাতে ইসরায়েলকে ক্যামেরনের আহ্বান
উত্তেজনা এড়াতে ইসরায়েলের প্রতি ম্যাক্রোঁর আহ্বান
সর্বশেষ খবর
আদালতে হাজির হয়ে ট্রাম্প বললেন, ‘এটি কেলেঙ্কারির বিচার’
আদালতে হাজির হয়ে ট্রাম্প বললেন, ‘এটি কেলেঙ্কারির বিচার’
পর্যটকদের মারধরের অভিযোগ এএসপির বিরুদ্ধে
পর্যটকদের মারধরের অভিযোগ এএসপির বিরুদ্ধে
২৭ বছর পর বাড়ি ফিরলেন শাহীদা, পূরণ হয়নি যে আশা
২৭ বছর পর বাড়ি ফিরলেন শাহীদা, পূরণ হয়নি যে আশা
ছাগলে গাছ খাওয়ায় দুপক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১০
ছাগলে গাছ খাওয়ায় দুপক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১০
সর্বাধিক পঠিত
কিছু আরব দেশ কেন ইসরায়েলকে সাহায্য করছে?
কিছু আরব দেশ কেন ইসরায়েলকে সাহায্য করছে?
সরকারি চাকরির বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, আবেদন শেষ ১৮ এপ্রিল
সরকারি চাকরির বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, আবেদন শেষ ১৮ এপ্রিল
বান্দরবা‌নে বম পাড়া জনশূ‌ন্য, অন্যদিকে উৎসব
বান্দরবা‌নে বম পাড়া জনশূ‌ন্য, অন্যদিকে উৎসব
শেখ হাসিনাকে নরেন্দ্র মোদির ‘ঈদের চিঠি’ ও ভারতে রেকর্ড পর্যটক
শেখ হাসিনাকে নরেন্দ্র মোদির ‘ঈদের চিঠি’ ও ভারতে রেকর্ড পর্যটক
ঈদের সিনেমা: হলে কেমন চলছে, দর্শক কী বলছে
ঈদের সিনেমা: হলে কেমন চলছে, দর্শক কী বলছে