X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

ন্যাশনাল এনসিডি মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড পেলো বাংলাদেশ হেলথ রিপোর্টার্স ফোরাম

আপডেট : ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ০১:৩৪

অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ সম্মেলনে ন্যাশনাল এনসিডি মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড সম্মাননা পেয়েছে বাংলাদেশ হেলথ রিপোর্টার্স ফোরাম।

সংগঠনের সভাপতি রাশেদ রাব্বি ও সাধারণ সম্পাদক হাসান সোহেলের হাতে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপুমনি এ সম্মাননা তুলে দেন।

ঢাকার প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে ২৬ জানুয়ারি শুরু হওয়া তিন দিনব্যাপী প্রথম জাতীয় অসংক্রামক রোগ সম্মেলন শুক্রবার রাতে শেষ হয়। বাংলাদেশ হেলথ রিপোর্টার্স ফোরামসহ ৩০টি দেশি বিদেশি প্রতিষ্ঠান এ সম্মেলনের আয়োজন করে।

সম্মেলনে অসংক্রামক বিভিন্ন রোগের বিষয় নি্য়ে বিশেষজ্ঞরা মতামত দেন। তুলে ধরেন বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি এবং ভবিষ্যত করণীয়।

সম্মেলনের প্রথম দিনে চিকিৎসকরা জানান, দেশে ১০ জনের মধ্যে ৭ জনই অসংক্রামক ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছেন। অর্থাৎ উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস ও ক্যান্সারসহ আরও কয়েকটি রোগে ৭০ শতাংশের বেশি মানুষ মারা যাচ্ছেন। ৩০-৭০ বছর বয়সীরা মারা যাচ্ছেন বেশি। এ মৃত্যু এসডিজি বাস্তবায়নের জন্য বড় বাধা বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা।

তারা বলেন, দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে যাদের উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিস আছে এমন তিনজনের একজন কিডনি রোগে ভুগছেন এবং সেটা তারা জানেন না।

দেশের ১০০ জনের মধ্যে ৫০ জনই জানেন না যে তারা উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত। এদের আবার অর্ধেকেরই বেশি জানেন না উচ্চ রক্তচাপ তাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে। ৭৭ ভাগ রোগী ওষুধ খাচ্ছেন ঠিকই, কিন্তু রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে নেই। একই অবস্থা ডায়াবেটিসের ক্ষেত্রেও।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, অসংক্রামক রোগ বাংলাদেশের জন্য ক্রমবর্ধমান স্বাস্থ্যঝুঁকি ও উদ্বেগের কারণ হচ্ছে। শতকরা ৬৭ শতাংশ মৃত্যুর জন্য দায়ী এটি।

দেশে ২০ শতাংশ মানুষ উচ্চ রক্তচাপে, ১০ শতাংশ ডায়াবেটিসে ভোগে। প্রতি বছর এই তালিকায় ৫০ হাজার মানুষ যোগ হয় জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, জীবন যাত্রার পরিবর্তন, খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন, ওবেসিটি, তামাকের ব্যবহার, পরিবেশ দূষণ, অপর্যাপ্ত কায়িক পরিশ্রম, ওষুধের অপব্যবহারের কারণে দেশে অসংক্রামক রোগ বেড়েই চলেছে। এটি প্রতিরোধে নিয়মিত চেকআপ ও ‘আর্লি ডিটেকশন’ এনসিডিসি প্রতিরোধে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে চিকিৎসকরা বলেন, করোনার চেয়ে দেশে ১০-২০ গুণ বেশি মানুষের মৃত্যু হয় অসংক্রামক রোগে। একে গুরুত্ব না দিলে ২০৪০ সালে এই হার ৮০ শতাংশে উঠে যেতে পারে।

স্বাস্থ্য অর্থ ইউনিটের মহাপরিচালক মোহাম্মদ শাহাদাত হোসাইন মাহমুদ বলেন, ‘কোভিডে সারা বিশ্ব এই মুহূর্তে ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। আমাদের দেশে কোভিডে যে মৃত্যু, অসংক্রামক কোনও কোনও রোগে মৃত্যু তার চেয়ে ১০-২০ গুণ বেশি। শুধু ধূমপানজনিত কারণে দেশে প্রতিদিন গড়ে মারা যাচ্ছেন ৩০০ জন। ক্যান্সার, টিবি, হৃদরোগ এসবই অসংক্রামক এবং এগুলোর যে মৃত্যুর হার, প্রত্যেকটির ক্ষেত্রে তা কোভিডের তুলনায় অন্তত ৫ গুণ বেশি। তারপরও আমরা শুধু সংক্রামক রোগের প্রতিই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি।’

/জেএ/এফএ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
খুলনায় বিএনপির ৮ শতাধিক নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা
খুলনায় বিএনপির ৮ শতাধিক নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা
‘শোকে’ মারা গেলেন টেক্সাস হামলায় নিহত শিক্ষকের স্বামী
‘শোকে’ মারা গেলেন টেক্সাস হামলায় নিহত শিক্ষকের স্বামী
৬৫ হাজার কোটি টাকার ভর্তুকি চায় বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিভাগ
৬৫ হাজার কোটি টাকার ভর্তুকি চায় বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিভাগ
‘রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক আর আগের জায়গায় ফিরতে পারে না’
‘রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক আর আগের জায়গায় ফিরতে পারে না’
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
৭২ ঘণ্টার মধ্যে অনিবন্ধিত হাসপাতাল-ক্লিনিক বন্ধের নির্দেশ
৭২ ঘণ্টার মধ্যে অনিবন্ধিত হাসপাতাল-ক্লিনিক বন্ধের নির্দেশ
এমপিএইচ কোর্স ২ বছর মেয়াদি করতে হবে: বিএসএমএমইউ উপাচার্য
এমপিএইচ কোর্স ২ বছর মেয়াদি করতে হবে: বিএসএমএমইউ উপাচার্য
করোনা চিকিৎসায় নিয়োজিত ২৪ শতাংশ স্বাস্থ্যকর্মী মানসিক রোগে ভুগেছেন
করোনা চিকিৎসায় নিয়োজিত ২৪ শতাংশ স্বাস্থ্যকর্মী মানসিক রোগে ভুগেছেন
২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ২৮
২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ২৮