X
সোমবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২২, ১০ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

আবরার হত্যা মামলার রায়: আদালত প্রাঙ্গণে নিরাপত্তা জোরদার

আপডেট : ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১০:৩৬

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার রায়কে কেন্দ্র করে আদালত পাড়ায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস‌্য রবিবার (২৮ নভেম্বর) সকাল থেকে দায়িত্ব পালন করছেন।

মহানগর আদালত প্রাঙ্গণে সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, আবরার হত্যা মামলার রায়কে কেন্দ্র করে আজ সকাল থেকে ঢাকা মহানগর আদালত পাড়ায় পুলিশের কড়া নিরাপত্তা। ঢাকা মহানগর আদালত চত্বরের আশেপাশের এলাকায় পথচারীদের চলাচলে নজরদারি বাড়িয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

মামলাটির আসামিরা এখন আদালতে। কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে প্রিজন ভ্যানে আজ সকাল ৯টা ৩৫ মিনিটে মহানগর দায়রা জজ আদালতে এসেছে ২২ আসামি। এরপর আদালতে হাজতখানায় নিয়ে রাখা হয় তাদের। ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১-এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামানের আদালতে আসামিদের উপস্থিতিতে মামলাটির রায় ঘোষণার কথা রয়েছে।

গত ১৪ নভেম্বর ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামানের আদালতে এই মামলায় রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামি পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয়েছে। এরপর বিচারক রায় ঘোষণার জন্য ২৮ নভেম্বর দিনটি ধার্য করেন।

গত ৮ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রপক্ষ মামলাটির পুনরায় অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য আবেদন করে। পরে অভিযুক্ত ২৫ আসামির বিরুদ্ধে পুনরায় অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

গত ১৪ মার্চ ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১-এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামানের আদালতে ২২ আসামি আত্মপক্ষ সমর্থনের শুনানিতে নিজেদের নির্দোষ দাবি করেন।

মামলায় মোট ৪৭ জনের সাক্ষ্য নেওয়া হয়েছে। গত বছরের জানুয়ারিতে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বিচারের জন্য মামলাটি ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে বদলির আদেশ দেন। এরপর মহানগর দায়রা জজ আদালত মামলাটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১-এ পাঠানোর আদেশ দেন।

২০১৯ সালের ১৩ নভেম্বর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ওয়াহিদুজ্জামান ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। এতে উল্লেখ করা হয়, ২৫ জনের মধ্যে এজাহারভুক্ত ১৯ জন এবং এর বাইরে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আরও ৬ জনের জড়িত থাকার প্রাথমিক প্রমাণ পাওয়া গেছে। এজাহারভুক্ত ১৯ জনের মধ্যে ১৭ জন এবং এজাহারের বাইরে থাকা ৬ জনের মধ্যে ৫ জনসহ মোট ২২ আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পলাতক আছে তিন জন। অভিযোগপত্রে ৬০ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে এবং ২১টি আলামত ও ৮টি জব্দ তালিকা আদালতে জমা দেওয়া হয়েছে।

এজাহারে থাকা আসামিরা হলেন– মেহেদী হাসান রাসেল, অনিক সরকার, ইফতি মোশাররফ সকাল, মেহেদী হাসান রবিন, মেফতাহুল ইসলাম জিওন, মুনতাসির আলম জেমি, খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভির, মুজাহিদুর রহমান, মুহতাসিম ফুয়াদ, মনিরুজ্জামান মনির, আকাশ হোসেন, হোসেন মোহাম্মদ তোহা, মাজেদুল ইসলাম, শামীম বিল্লাহ, মোয়াজ আবু হুরায়রা, এএসএম নাজমুস সাদাত, মোর্শেদুজ্জামান জিসান ও এহতেশামুল রাব্বি তানিম।

এজাহারবহির্ভূত ৬ আসামির নাম– ইশতিয়াক আহম্মেদ মুন্না, অমিত সাহা, মিজানুর রহমান ওরফে মিজান, শামসুল আরেফিন রাফাত, এসএম মাহমুদ সেতু ও মোস্তবা রাফিদ।

পলাতকরা আছেন মোর্শেদুজ্জামান জিসান, এহতেশামুল রাব্বি তানিম ও মোস্তবা রাফিদ। তাদের মধ্যে প্রথম দুই জন এজাহারভুক্ত আসামি।

২০১৯ সালের ৬ অক্টোবর রাতে আবরারকে তার কক্ষ থেকে ডেকে নিয়ে যান বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। তারা ২০১১ নম্বর কক্ষে নিয়ে গিয়ে আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করে। পরে রাত তিনটার দিকে শেরে বাংলা হলের সিঁড়ি থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ওই বছরের ৭ অক্টোবর রাজধানীর চকবাজার থানায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। পুলিশ পরে ২২ জনকে গ্রেফতার করে। এর মধ্যে আট জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। এদের সবাই বুয়েট ছাত্রলীগের নেতাকর্মী।

আবরার বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি শেরে বাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন।

/এমএইচজে/জেএইচ/
সম্পর্কিত
পূর্ণ জনবলে দক্ষিণ, অর্ধেকে চলছে উত্তর সিটি
পূর্ণ জনবলে দক্ষিণ, অর্ধেকে চলছে উত্তর সিটি
ঢাকা মেডিক্যালে বাড়ছে রোগীর চাপ
ঢাকা মেডিক্যালে বাড়ছে রোগীর চাপ
৩০ জানুয়ারি থেকে ফাজিল পরীক্ষা হচ্ছে না
৩০ জানুয়ারি থেকে ফাজিল পরীক্ষা হচ্ছে না
বাহিনীর কোনও সদস্য অপকর্মে জড়ালে তাকে বাদ দেওয়া হবে: আইজিপি
বাহিনীর কোনও সদস্য অপকর্মে জড়ালে তাকে বাদ দেওয়া হবে: আইজিপি
সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
পূর্ণ জনবলে দক্ষিণ, অর্ধেকে চলছে উত্তর সিটি
পূর্ণ জনবলে দক্ষিণ, অর্ধেকে চলছে উত্তর সিটি
ঢাকা মেডিক্যালে বাড়ছে রোগীর চাপ
ঢাকা মেডিক্যালে বাড়ছে রোগীর চাপ
৩০ জানুয়ারি থেকে ফাজিল পরীক্ষা হচ্ছে না
৩০ জানুয়ারি থেকে ফাজিল পরীক্ষা হচ্ছে না
বাহিনীর কোনও সদস্য অপকর্মে জড়ালে তাকে বাদ দেওয়া হবে: আইজিপি
বাহিনীর কোনও সদস্য অপকর্মে জড়ালে তাকে বাদ দেওয়া হবে: আইজিপি
এসবিএসি’র সাবেক পরিচালক ক্যাপ্টেন মোয়াজ্জেমকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ
এসবিএসি’র সাবেক পরিচালক ক্যাপ্টেন মোয়াজ্জেমকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ
© 2022 Bangla Tribune