X
শনিবার, ২২ জানুয়ারি ২০২২, ৭ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

বইমেলায় ভালো বই বের হয় সেগুলো আড়ালে পড়ে থাকে

আপডেট : ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ২০:০২

[হামীম কামরুল হকের জন্ম ১৯৭৩ সালের ২২ জানুয়ারি। ছোটবেলা কেটেছে চট্টগ্রামে। তখন চট্টগ্রামের সেইলার্স কলোনিতে থাকতেন। ১৯৮৯ সালে সিলেট ক্যাডেট কলেজ থেকে মাধ্যমিক এবং ১৯৯১ সালে উচ্চ মাধ্যমিক করে ১৯৯২-৯৩ শিক্ষাবর্ষে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। সেখানে বাংলা বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি মূলত ঔপন্যাসিক, গল্পকার।]

 

প্রশ্ন : অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২২ বইমেলা কেমন চান?
উত্তর : ভালো বইয়ের মেলা চাই। কথিত রয়েছে, মেলায় অতি অল্প সংখ্যক ভালো বই বের হয়—এটা ঠিক নয়। বাংলাদেশে প্রচুর ভালো বই বের হয়, হচ্ছে। বইমেলায় সেগুলো আড়ালে পড়ে থাকে। এবার যেন সেটা না হয়। যদিও জানি এবারও তাই হবে। আমি আমার চাওয়ার কথাটা বললাম।

প্রশ্ন : এ বছর আপনার কি কি বই আসবে? কোন প্রকাশনা থেকে?
উত্তর : একটি বই প্রকাশিত হবে—‘যেখানে খুঁজেছ তুমি জীবনের মানে’। গ্রন্থকুটির থেকে।

প্রশ্ন : প্রকাশিতব্য বই সম্পর্কে জানতে চাই।
উত্তর : এটি একটি উপন্যাস। ১৪০ পৃষ্ঠার মতো আকারে। একজন সদ্য চাকরি হারানো লোকের কাহিনি। তাঁর এই দুঃসময়ে হঠাৎ করে এক নারীর আগমন ঘটে। এরা দুজনেই বিবাহিত ছিল, তবু এক তুমুল মনোদৈহিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে দুজনে।

প্রশ্ন :  অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২১-এর অভিজ্ঞতা কেমন?
উত্তর : মাত্র ২-৩ দিন যেতে পেরেছিলাম। তাও লকডাউনের ভেতরেও একদিন গিয়েছিলাম। ২০২১ এর বইমেলার বিন্যাস ছিল স্মরণকালের ইতিহাসের সবচেয়ে সুন্দর। কিন্তু তাতে কোনো কাজ হয়নি। করোনা পরিস্থিতি মেলার ধারাগতি পুরো নস্যাৎ করে দিয়েছিল। বইমেলা যেমন হয়—লেখক-পাঠক মিলনমেলা, আড্ডা, হাসি আনন্দ—এর কোনো আমেজ ছিলই না।

প্রশ্ন : বইমেলার পর আমাদের বই খুঁজে পাওয়া যায় না এবং বইয়ের দোকানও স্বল্প। এই পরিস্থিতিতে বই পাঠকের কাছে পৌঁছাতে আপনার ভাবনা যদি জানাতেন।
উত্তর : আমি এ নিয়ে একটু চিন্তিত। কিন্তু জানি বেশি চিন্তা করেও লাভ নেই। আগে এ নিয়ে নানান কথা বলেছি। তাতে পরিস্থিতি যা ছিল তা-ই আছে। ফলে এ নিয়ে আমি আর কিছু ভাবি না। লেখকের কাজ ভালো বই লেখা। লিখে বাক্সবন্দি করে রাখলেও ক্ষতি নেই, যদি সেটি ঠিকমতো সুরক্ষিত করা যায়। আর এখন তো ইন্টারনেটে, মেইলে পুরো পাণ্ডুলিপি রেখে দেওয়া যায়। পাসওয়ার্ডটাও নিজের কোনো ডায়েরির পাতায় লিখে রাখা যায়। বইয়ের গড়ন গঠন বদল ঘটছে। গাছের বাকল , চামড়া নানান কিছু হয়ে এখন ইবুক আরো কত কী হচ্ছে। লেখকের কাজ লেখা। বিপণনের ভাবনা যারা বইয়ের ব্যবসা করবেন, প্রকাশনাকে ভালোবাসবেন—তাদের মনে হয়।

/জেডএস/
সম্পর্কিত
জেমকন সাহিত্য পুরস্কারের দীর্ঘ তালিকা ঘোষণা
জেমকন সাহিত্য পুরস্কারের দীর্ঘ তালিকা ঘোষণা
মাসুদ রানার চেয়েও অধিক
মাসুদ রানার চেয়েও অধিক
বইয়ের যথাযথ রিভিউ হয় না
বইয়ের যথাযথ রিভিউ হয় না
আমি বড়জোর ‘কালচারাল এনথ্রোপলজি’ বলবার চেষ্টা করেছি
আমি বড়জোর ‘কালচারাল এনথ্রোপলজি’ বলবার চেষ্টা করেছি

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
জেমকন সাহিত্য পুরস্কারের দীর্ঘ তালিকা ঘোষণা
জেমকন সাহিত্য পুরস্কারের দীর্ঘ তালিকা ঘোষণা
মাসুদ রানার চেয়েও অধিক
মাসুদ রানার চেয়েও অধিক
বইয়ের যথাযথ রিভিউ হয় না
বইয়ের যথাযথ রিভিউ হয় না
আমি বড়জোর ‘কালচারাল এনথ্রোপলজি’ বলবার চেষ্টা করেছি
আমি বড়জোর ‘কালচারাল এনথ্রোপলজি’ বলবার চেষ্টা করেছি
মিহির দা, আমরা আর ফোন করব না
মিহির দা, আমরা আর ফোন করব না
© 2022 Bangla Tribune