সরকারি হজ ব্যবস্থাপনা নিয়ে হাব সভাপতির প্রশ্নে ক্ষেপলেন ধর্মসচিব

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২০:২৩, অক্টোবর ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:২৯, অক্টোবর ১৭, ২০১৯

ধর্মসচিবসরকারি হজ ব্যবস্থাপনা নিয়ে প্রশ্ন তোলায় হজ এজন্সি মালিকদের সংগঠন হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিমের ওপর ক্ষেপলেন ধর্মসচিব আনিছুর রহমান। হাব সভাপতির উদ্দেশে সচিব বলেন, ‘আপনার বক্তব্য সংক্ষেপ করুন। সরকারি ব্যবস্থাপনায় অনিয়ম হলেও জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়। আপনারা হয়তো বিষয়টি জানেন না।’ বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) রাজধানীর বেইলি রোডের অফিসার্স ক্লাবে ধর্ম মন্ত্রণালয় আয়োজিত দিনব্যাপী ‘হজ ব্যবস্থাপনা কর্মশালা’য় এই ঘটনা ঘটে।

অনুষ্ঠানে হাব সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন বলেন,  ‘প্রতি বছর বাংলাদেশ থেকে এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজযাত্রী সৌদি আরবে যান। এরমধ্যে প্রায় এক লাখ ২০ হাজারই যান বেসরকারি ব্যবস্থাপনায়। তাদের ক্ষেত্রে কোনও অসুবিধা হলে বা অব্যবস্থাপনার প্রমাণ পেলে সৌদি আরবে হজ মিশনগুলোয় অভিযোগ করার ব্যবস্থা রয়েছে। পান থেকে চুন খসলেই সংশ্লিষ্ট হজ এজেন্সিগুলোর বড় ধরনের জরিমানাসহ লাইসেন্স বাতিল করা হয়। অথচ সরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীদের থাকা-খাওয়াসহ নানা ধরনের অব্যবস্থাপনা হলে সে বিষয়ে কোনও প্রতিকারের ব্যবস্থা নেই। এমনকি অভিযোগ করারও কোনও সুযোগ দেওয়া হয় না। এটা কেন হবে?’

এম শাহাদত হোসাইন আরও বলেন, ‘একজন হাজি হজ মিশনে অভিযোগ দিলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা অভিযোগ লিখে কোন হজ এজেন্সির মাধ্যমে গেছেন, তা জানতে তারা। তখন সরকারি ব্যবস্থাপনার কথা জানালে তার অভিযোগ গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানান সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। অথচ বেসরকারি ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে হাজিদের আবাসিক হোটেলে বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার ঘটনায়ও লাইসেন্স বাতিল হওয়ার নজির রয়েছে।’

হাব সভাপতির বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় ধর্মসচিব আনিছুর রহমান বলেন, ‘এসব অভিযোগ আমাদের জানা আছে। আপনার বক্তব্য সংক্ষেপ করুন।’

যদিও, এরপর সভাপতির বক্তব্যে ধর্ম সচিব আনিছুর রহমান বলেন, ‘হাব সভাপতি বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেছেন। কর্মশালায় আমরা আপনাদের অভিযোগ সমালোচনা সবই শুনবো।’

ধর্মসচিব মো. আনিছুর রহমানের সভাপতিত্বে কর্মশালায় আরও উপস্থিত ছিলেন, ধর্ম বিষয়ক সংসদীয় কমিটির সদস্য সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী, মাহমুদুস সামাদ চৌধুরী প্রমুখ।

/সিএ/এমএনএইচ/

লাইভ

টপ