‘স্থানীয় সরকারের সব স্তরে আধুনিকায়নের কাজ চলছে’

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২৩:৫০, ডিসেম্বর ১০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:০৮, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯

রাজধানীতে এক সেমিনারে মন্ত্রী তাজুল ইসলামস্থানীয় পর্যায়ে জনগণের সেবার মানোন্নয়নের ওপর সরকার জোর দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘শুধু বড় বড় সিটি করপোরেশন নয়, বরং স্থানীয় সরকারের সব স্তরেই আধুনিকায়ন করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। সাধারণ জনগণ সম্ভাব্য সব সেবাই যেন ইউনিয়ন বা উপজেলা থেকে পান, সেই লক্ষ্যেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’

সোমবার (১০ ডিসেম্বর) বিকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশের কাউন্সিল হলে আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটি আয়োজিত ‘স্মার্ট সিটি ইনিশিয়েটিভ ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমার গ্রাম-আমার শহর’ কর্মসূচি সামনে রেখে প্রতিটি গ্রামকে কমিউনিটিভিত্তিক তৈরি করা হবে। যেখানে পরিকল্পিতভাবে আবাসিক এলাকা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা থাকবে। সেই আলোকেই কাজ চলছে।’

তাজুল ইসলাম বলেন, ‘বিগত ১০ বছরে আমাদের আয় এবং ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে কয়েকগুণ। স্বাভাবিকভাবেই তার সঙ্গে আনুপাতিক হারে বেড়েছে বর্জ্য উৎপাদন। এত অধিক বর্জ্য সনাতন পদ্ধতিতে সংগ্রহ ও ব্যবস্থাপনা কঠিন হয়ে পড়েছে। বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় আমাদের অবশ্যই আধুনিক ও স্মার্ট হতে হবে।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)-এর মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশনারি লিডারশিপ নিয়ে এগিয়ে চলেছি আমরা। শুধু বর্তমানে ভালো থাকা নয়, তিনি আগামী ১০০ বছরের জন্য পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছেন। আর আমরা ডিএনসিসি সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে নাগরিক সেবা নিশ্চিত করে আধুনিক ঢাকা গড়ার জন্য নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছি। আমরা খুব শিগগিরই ‘নগর অ্যাপস’ নামে একটি ওয়ানস্টপ অ্যাপ চালু করতে যাচ্ছি। এই অ্যাপের মাধ্যমে বাসাবাড়ির বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, শহরের বিভিন্ন স্থানে পাবলিক টয়লেট স্থাপন, গণপরিবহনসহ নানা সুবিধা পাওয়া যাবে।’

এ সময় মেয়র স্মার্ট সিটি বাস্তবায়নে বিভিন্ন ইনোভেটিভ ও জনবান্ধব আইডিয়া নিয়ে নগর পরিকল্পনাবিদ ও প্রকৌশলীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. হোসেন মনসুরের সভাপতিত্বে সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য সচিব ইঞ্জিনিয়ার মো. আবদুস সবুর, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. হাবিবুর রহমান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রকৌশলী অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক প্রকৌশলী ড. সেলিয়া শাহনাজ প্রমুখ।

/এসএস/আইএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ