ভারতের ঝাড়খণ্ড থেকে বিদ্যুৎ আমদানি করবে সরকার

Send
শফিকুল ইসলাম
প্রকাশিত : ২১:২৮, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:২৮, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯


বিদ্যুৎ

ভারতের ঝাড়খণ্ড থেকে বিদ্যুৎ আমদানির উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। এ লক্ষ্যে ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইন নির্মাণে একটি প্রকল্প গ্রহণ করেছে বিদ্যুৎ বিভাগ। প্রকল্পটি জাতীয় অর্থনেতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে অনুমোদিত হয়েছে। রাজধানী ঢাকাসহ দেশের অর্থনৈতিক প্রাণকেন্দ্র রাজশাহী ও রংপুরের বিদ্যুতের ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণ করতেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

বুধবার (১১ ডিসেম্বর) পরিকল্পনা কমিশন সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানিয়েছে, ‘ভারতের ঝাড়খণ্ড হতে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ আমদানি করার লক্ষ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার রহনপুর থেকে মনাকষা সীমান্ত পর্যন্ত ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইন নির্মাণ প্রকল্পের উদ্যোগ নিয়েছে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ লিমিটেড (পিজিসিবি) প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে।’

পরিকল্পনা কমিশনে প্রেরিত প্রকল্প প্রস্তাবনায় জানা গেছে, প্রকল্পটির মূল উদ্দেশ্য হলো ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যের গড্ডা জেলায় আদানি পাওয়ার (ঝাড়খণ্ড) লিমিটেড (এপিজেএল) কর্তৃক নির্মাণাধীন ২৮০০ মেগাওয়াট (নেট ১৪৯৬ মে.ও.) কোল ফায়ার্ড থার্মাল পাওয়ার প্ল্যান্ট হতে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ আমদানি করা এবং দেশের কৃষিজ অর্থনীতির প্রাণকেন্দ্র রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চলসহ রাজধানী ঢাকার বিদ্যুতের ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণ করা।

সূত্র জানায়, রাজশাহী বিভাগের চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার শিবগঞ্জে প্রকল্পটি স্থাপিত হবে। চলতি ২০১৯ সালের জুলাইতে শুরু হওয়া প্রকল্পটির কাজ শেষ হবে ২০২১ সালের ডিসেম্বরে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ২২৫ কোটি ৪৯ লাখ ২২ হাজার টাকা। এর মধ্যে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে ২১৬ কোটি ৩২ লাখ ৭২ হাজার টাকা এবং পিজিসিবি নিজস্ব তহবিল থেকে জোগান দেবে ৯ কোটি ১৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

পরিকল্পনা কমিশনের সূত্রে জানা গেছে, প্রকল্পটি ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি)-তে বরাদ্দবিহীন অননুমোদিত নতুন প্রকল্প তালিকায় অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। প্রকল্পের আওতায় রহনপুর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ)-মনাকষা (চাঁপাইনবাবগঞ্জ বর্ডার) ২৮ কিলোমিটার ৪০০ কেভি ডাবল সার্কিট সঞ্চালন লাইন নির্মাণ কাজ করা হবে।

এ প্রসঙ্গ জানতে চাইলে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান জানান, সরকারের সপ্তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনায় পিজিসিবির মাধ্যমে ৩২০৪ সার্কিট কিলোমিটার ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইন নির্মাণের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে। এই প্রকল্পের আওতায় ২৮ কিলোমিটার ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইন নির্মাণ করা হবে। ফলে আলোচ্য প্রকল্পটি সপ্তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার উদ্দেশ্য ও লক্ষ্যের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ। 

প্রকল্পটি সম্পর্কে পরিকল্পনা কমিশনের সুপারিশে বলা হয়েছে, প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যে নির্মাণাধীন ১৬০০ মেগাওয়াট কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে ১৪৯৬ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানি করার লক্ষ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর ইউনিয়ন হতে শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ইউনিয়ন (বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তবর্তী সংযোগ স্থল) পর্যন্ত ২৮ কিলোমিটার ৪০০ কেভি ডাবল সার্কিট সঞ্চালন লাইন নির্মাণ করা হবে। এর ফলে জাতীয় গ্রিডে আরও ১৪৯৬ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ করা সম্ভব হবে। এ অবস্থায় বিদ্যুৎ বিভাগের আওতাধীন পিজিসিবি কর্তৃক প্রস্তাবিত ‘ভারতের ঝাড়খণ্ড হতে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ আমদানি করার লক্ষ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার রহনপুর থেকে মনাকষা সীমান্ত পর্যন্ত ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইন নির্মাণ’ শীর্ষক প্রকল্পটি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সুপারিশ করা হলো।

 

/এসআই/এএইচ/

লাইভ

টপ