X
বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২
২২ আষাঢ় ১৪২৯

টেকসই বেড়িবাঁধের অভাবে ঝুঁকির মুখে উপকূলের জীবন-জীবিকা

আপডেট : ২৭ জুন ২০২১, ২০:৩৮

আইন প্রণেতা ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা এক বিশেষ কনভেনশনে জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণের সুপারিশ করে বলেছেন, টেকসই বেড়িবাঁধের অভাবে মারাত্মক ঝুঁকির মুখে উপকূলীয় এলাকার জীবন-জীবিকা। বর্তমান সরকারের নানা উন্নয়ন উপকূলে পৌঁছালেও তা জোয়ারের পানিতে ভাসছে। তাই এ বিষয়ে জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ নিতে হবে। এজন্য জাতীয় বাজেটে বিশেষ বরাদ্দেরও দাবি জানান তারা।

রবিবার (২৭ জুন) রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ‘ফেইথ ইন অ্যাকশন’ ও ‘লিডার্স’ এবং ‘সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা আন্দোলন’ আয়োজিত এই কনভেনশনে সভাপতিত্ব করেন খুলনা-৬ আসনের সংসদ সদস্য মো. আক্তারুজ্জামান বাবু। সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা আন্দোলনের সমন্বয়ক নিখিল চন্দ্র ভদ্রের সঞ্চালনায় কনভেনশনে আলোচনায় অংশ নেন— সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, অ্যাডভোকেট মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, আব্দুস সালাম মুর্শেদী, মো. আমিরুল আলম মিলন, এস এম শাহজাদা, সৈয়দা রুবিনা আক্তার ও অ্যাডভোকেট গ্লোরিয়া ঝর্ণা সরকার। এছাড়া কনভেনশনে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন সাবেক মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ এমপি ও  ডা. আ ফ ম রুহুল হক এমপি।

কনভেনশনে মূল বক্তব্য উত্থাপন করেন লিডার্সের নির্বাহী পরিচালক মোহন কুমার মণ্ডল। আলোচনায় অংশ নেন— বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের যুগ্ম সম্পাদক মিহির বিশ্বাস, সাংবাদিক কাওসার রহমান, আন্তর্জাতিক সংস্থা কেএনএইচ জার্মানির প্রতিনিধি মনিরুজ্জামান মুকুল, একাত্তর টেলিভিশনের বার্তা সম্পাদক পলাশ আহসান, ফেইথ ইন অ্যাকশনের নির্বাহী পরিচালক নৃপেন বৈদ্য, চেঞ্জ ইনিশিয়েটিভের নির্বাহী পরিচালক জাকির হোসেন খান, কোস্ট ফাউন্ডেশনের মোস্তফা কামাল আকন্দ, ইউনাইটেড পারপাসের মাসুদ রানা, পার্লামেন্টনিউজের সম্পাদক সাকিলা পারভীন, স্কাসের চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমা প্রমুখ।

কনভেনশনে ৭ দফা প্রস্তাবনা গৃহীত হয়। প্রস্তাবনায় বলা হয়, সরকারের উন্নয়নের ছোঁয়া সারাদেশের ন্যায় উপকূলীয় এলাকায় পৌঁছালেও টেকসই বেড়িবাঁধের অভাবে তা আজ  ঝুঁকির মুখে। তাই টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণে জাতীয় বাজেটে বিশেষ বরাদ্দ রাখতে হবে। বাঁধ রক্ষণাবেক্ষণে বিশেষ তহবিল গঠন করতে হবে। জাতীয় বাজেটে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের বরাদ্দকৃত অর্থ ব্যয়ে উপকূলীয় এলাকার জনপ্রতিনিধি ও জনগণকে সম্পৃক্ত করে উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করতে হবে। প্রকল্প বাস্তবায়নে স্বচ্ছতা-জবাবদিহি নিশ্চিত করতে হবে। জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকিতে থাকা উপকূলীয় অঞ্চলকে দুর্যোগ ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা ঘোষণা করে সেখানকার জীবন-জীবিকা ও প্রাণ-প্রকৃতি রক্ষায় স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে।

প্রস্তাবে আরও বলা হয়, লবণাক্ততার আগ্রাসনের শিকার উপকূলের সুপেয় পানির সংকট নিরসনে স্থায়ী সমাধানে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। মৎস্য ও কৃষি উৎপাদন বাড়াতে সুনির্দ্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনা নিতে হবে। বিশ্বঐতিহ্য সুন্দরবনের সুরক্ষায় কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। সুন্দরবন ও আশপাশের ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠানগুলোকে ঘিরে পর্যটন শিল্পের প্রসারের স্বার্থে প্রয়োজনীয় সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে। সরকারের ডেল্টাপ্লান বাস্তবায়নে কার্যকর উদ্যোগ নিতে হবে। সাতক্ষীরা থেকে বরিশাল হয়ে কক্সবাজার পর্যন্ত সুপার ড্রাইভওয়ে নির্মাণ করতে হবে। সর্বোপরি উপকূলের টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে অবিলম্বে হাওড় উন্নয়ন বোর্ডের ন্যায় উপকূল উন্নয়ন বোর্ড গঠন করতে হবে।

 

/ইএইচএস/এপিএইচ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
বার্সেলোনা জানিয়ে দিলো, ডি ইয়ং ‘বিক্রির জন্য নয়’
বার্সেলোনা জানিয়ে দিলো, ডি ইয়ং ‘বিক্রির জন্য নয়’
টেকনাফে ৫ দিনে ৪৭ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত
টেকনাফে ৫ দিনে ৪৭ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত
প্রধানমন্ত্রী ‘সেরা কূটনীতিক বঙ্গবন্ধু পদক’ প্রদান করবেন বৃহস্পতিবার
প্রধানমন্ত্রী ‘সেরা কূটনীতিক বঙ্গবন্ধু পদক’ প্রদান করবেন বৃহস্পতিবার
সয়াবিনের দামেই রাইস ব্র্যান তেল বিক্রি করছে টিসিবি
সয়াবিনের দামেই রাইস ব্র্যান তেল বিক্রি করছে টিসিবি
এ বিভাগের সর্বশেষ
উপকূলীয় অঞ্চলে ‘ওয়ান টাইম প্লাস্টিক’ বন্ধে বিশেষ উদ্যোগ
উপকূলীয় অঞ্চলে ‘ওয়ান টাইম প্লাস্টিক’ বন্ধে বিশেষ উদ্যোগ