X
বুধবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

মুনতাসীর মামুনের ৭০তম জন্মদিন উদযাপন

আপডেট : ২৮ নভেম্বর ২০২১, ২২:৫১

বিশিষ্ট ইতিহাসবিদ ও সাহিত্যিক অধ্যাপক মুনতাসীর মামুনের ৭০তম জন্মদিন উপলক্ষে বাংলাদেশ ইতিহাস সম্মিলনী ও বাংলাদেশ চর্চার আয়োজনে ‘বিষয় মুনতাসীর মামুন’ শীর্ষক ১২টি বইয়ের প্রকাশনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। রবিবার (২৮ নভেম্বর) বিকাল সাড়ে তিনটায় বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরে কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে এটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুপ্রিম কোর্টের সাবেক বিচারপতি শামছুদ্দিন চৌধুরী মানিক, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নুরুল হুদা, সাংবাদিক ও সাহিত্যিক আনিসুল হক, গবেষক মামুন সিদ্দিকী, কবি তারিক সুজাত সহ আরও অনেকে। 

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে কবি তারিক সুজাত বলেন, মুনতাসীর মামুন শুধু ইতিহাস বা সাহিত্যচর্চাই করেননি রাজপথে আন্দোলনেও থেকেছেন। সংগঠন করেছেন, যা চিন্তা করেছেন তা কর্মে প্রকাশ করেছেন। গত ৪৬ বছরের শিক্ষকতায় তিনি অজস্র ছাত্র ছাত্রীকে অনুপ্রাণিত করেছেন প্রগতিশীল চিন্তায়। গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ব্যবস্থা গড়ে তোলা, সিভিল সমাজ প্রতিষ্ঠা, প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা সব ক্ষেত্রে মুনতাসীর মামুন ভূমিকা পালন করেছেন। কিন্তু তবুও সরকার তাকে এড়িয়ে গেছে। খালেদা জিয়ার আমলে তাকে জেলে যেতে হয়েছে। তার জীবনের ওপর চারবার হামলার হয়েছে। তাকে বার বার ‘মুরতাদ’ ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু সিভিল সমাজ তাঁকে দিয়েছে অফুরন্ত ভালোবাসা।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সুপ্রিম কোর্টের সাবেক বিচারপতি শামছুদ্দিন চৌধুরী মানিক বলেন, যখন শুনেছি মামুন ভাই অক্সিজেন সাপোর্টে গিয়েছিলেন আমি তখন খুব শঙ্কিত ছিলাম। মামুন ভাইকে বেঁচে থাকতে হবে পাকিস্তানি দোসরদের সমাপ্তির জন্য।

মুনতাসীর মামুন সম্পর্কে গবেষক মামুন সিদ্দিকী বলেন, মুনতাসীর মামুনের মতো ইতিহাসবিদ বাংলাদেশে আর দ্বিতীয়টি নেই । মুনতাসীর মামুন শুধু নিজে লেখেননি তিনি গবেষক সৃষ্টি করেছেন। বাংলাদেশের ইতিহাস ঐতিহ্যে তার অবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে। 

জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক ও সাহিত্যিক আনিসুল হক বলেন, মুনতাসীর মামুন স্যার বলেছেন, বঙ্গবন্ধু খুব অনিচ্ছুক জাতিকে স্বাধীনতা দিয়ে গিয়েছে। তার মতো এতো সাহসী মানুষ আমি জীবনে দেখিনি। তিনি আমাদেরই লোক।

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মোহাম্মদ নুরুল হুদা বলেন,  তিনি চলমান মানুষের হারিয়ে যাওয়া ইতিহাস এবং বাংলাদেশ ও ঢাকার ইতিহাস লিখেছেন। ঢাকা প্রকাশ নিয়ে তার যাত্রা শুরু হয়েছিল। গণ ইতিহাসের জ্বলন্ত প্রমাণ মুনতাসীর মামুন।

অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন বলেন, আমি শুধু দুটো বিষয় নিয়ে কথা বলবো, স্বাধীনতা এবং মুক্তিযুদ্ধের কথা। আমরা মুক্তিযুদ্ধ দেখেছি। যারা দেখেনি তাদেরকে মুক্তিযুদ্ধ কী বোঝানো যাবেনা। এত অল্প সময়ে এত মানুষ কোনও যুদ্ধে মরেনি। মুক্তিযুদ্ধ এবং পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর নির্মম অত্যাচার তুলে ধরার জন্য আমরা ৩০টি জেলায় জরিপ করেছি। সেই জরিপ দেখে আমরা অবাক হয়ে গিয়েছি। বাংলাদেশে কথিত আছে ২ লাখ নারী ধর্ষণ নির্যাতনের শিকার হয়েছে। কিন্তু এটি ভুল। বাংলাদেশ ৫ লাখেরও বেশি  নারী নির্যাতিত হয়েছে। এছাড়া আমরা জরিপে দেখেছি বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধের সময় ৩০ লাখেরও বেশি মানুষ শহীদ হয়েছে। প্রতিটি মাইলে মাইলে গণহত্যা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমি চেষ্টা করেছি বাংলাদেশের ইতিহাসের যা কিছু আছে তা মানুষের কাছে পৌঁছাতে। এটা গরীবদের দেশ এখনও। আমি গরীবদের কাছে আমার লেখা পৌঁছনোর চেষ্টা করেছি। আমি বড় ঐতিহাসিক হতে চাইনি।

/এমআর/
সম্পর্কিত
৪০তম বিসিএসের মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত
৪০তম বিসিএসের মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত
শাবি শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি হামলার সত্যতা মিললে ব্যবস্থা
শাবি শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি হামলার সত্যতা মিললে ব্যবস্থা
শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি শিক্ষামন্ত্রীর
শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি শিক্ষামন্ত্রীর
সিলেটের ভাগাড় হয়ে পড়েছে সুরমা
সিলেটের ভাগাড় হয়ে পড়েছে সুরমা
সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
৪০তম বিসিএসের মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত
৪০তম বিসিএসের মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত
শাবি শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি হামলার সত্যতা মিললে ব্যবস্থা
শাবি শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি হামলার সত্যতা মিললে ব্যবস্থা
শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি শিক্ষামন্ত্রীর
শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি শিক্ষামন্ত্রীর
সিলেটের ভাগাড় হয়ে পড়েছে সুরমা
সিলেটের ভাগাড় হয়ে পড়েছে সুরমা
পানামা ও প্যারাডাইস পেপার্সে নাম আসা ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানের তালিকা দাখিল
পানামা ও প্যারাডাইস পেপার্সে নাম আসা ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানের তালিকা দাখিল
© 2022 Bangla Tribune