X
বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট ২০২২
৩ ভাদ্র ১৪২৯

সংকটে কুড়িগ্রামের বন্যাকবলিতরা, সহায়তা প্রয়োজন

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২৭ জুন ২০২২, ১৬:৫২আপডেট : ২৭ জুন ২০২২, ১৬:৫২

কুড়িগ্রামে বন্যাকবলিত লাখও মানুষ হারিয়েছেন স্বাভাবিক জীবন যাপনের ন্যূনতম সম্বল। বর্তমানে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি ঘটলেও রয়েছে সংকট। তৈরি হচ্ছে নানান সমস্যা। এই অবস্থায় স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে তাদের সার্বিক সহযোগিতা অপরিহার্য হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সোমবার (২৭ জুন) দুপুরে আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা ‘প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ’ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সেখানকার বন্যাদুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে।

এতে বলা হয়, কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলায় বাস করেন জোসনা। তার বাড়ি বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে।  তিনি বলেন, ‘আমাদের স্বাভাবিক জীবন পাল্টে গেছে বন্যায়। ঘর পানির নিচে চলে গেছে। যেদিকেই তাকাই পানি ছাড়া আর কিছুই নেই। আমার পুরো পরিবারই খাবার সংকটে ভুগছে। এ রকম পরিস্থিতিতে মাসিক ব্যবস্থাপনা কীভাবে করবো? আমি কিছুই জানি না।’

জোসনার মতো নাগেশ্বরীর কচাকাটা এবং বল্লভেরখাস ইউনিয়নে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর পাশে খাদ্য ও অন্যান্য সহযোগিতা নিয়ে জরুরি সাড়া প্রদানের কাজ করছে প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ। সংস্থাটির পক্ষ থেকে জরুরি সাড়া প্রদানের প্রথম ধাপে পাঁচ হাজার ৫৬০ প্যাকেট শুকনো খাবার, বিশুদ্ধকরণ ১ লাখ পানি ট্যাবলেট, ১ হাজার ৮৪০টি খাদ্য-ভিন্ন অন্যান্য প্রয়োজনীয় উপকরণ এবং মাসিক ব্যবস্থাপনার জন্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম পৌঁছে দেওয়া হয় বন্যাকবলিত মানুষের কাছে।

নাগেশ্বরীর অপর এক নারী বলেন, বন্যার এই ভয়াবহ আঘাতের পর আমাদের খাবার রান্না করে খাওয়ার কোনও সুযোগ নেই। শুকনো খাবার সহায়তা পাওয়াটা বিরাট স্বস্তির। তাছাড়া মাসিক ব্যবস্থাপনার জন্য যে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম—এটা জরুরি ছিল। কারণ এ সমস্যার কথা তো আমরা কাউকে বলতে পারি না।

সংকটে কুড়িগ্রামের বন্যাকবলিতরা, সহায়তা প্রয়োজন প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের সেন্ট্রাল এবং নর্দার্ন রিজিওনের প্রধান আশিক বিল্লাহ বলেন, ‘গণমাধ্যমের বিভিন্ন প্রতিবেদন থেকে আমরা জানতে পেরেছি, বন্যায় কুড়িগ্রামের ২ লাখেরও বেশি মানুষ বাসস্থান হারিয়েছেন। আমরা জরুরি সহায়তা নিয়ে এগিয়ে এসেছি। কিন্তু কমিউনিটির প্রত্যেকের সুরক্ষা নিশ্চিত করা আমাদের একার পক্ষে সম্ভব নয়। সবার একসঙ্গে সামনে এগিয়ে আসতে হবে, যেন এই মানুষগুলো দ্রুত পুনরায় স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারেন। কুড়িগ্রামের মানুষের জন্য এটি একটি সংকটময় সময়। আমাদের প্রত্যেকের তাদের পাশে দাঁড়ানো প্রয়োজন।’

তিনি আরও বলেন, ‘বন্যা-পরবর্তী সময়ে পানিবাহিত রোগের কারণে শিশুরা অসুস্থ হয়ে পড়ছে। গর্ভবতী নারীদের দুর্ভোগের সীমা নেই। স্বাস্থ্যসেবা জোরদার করা এখানে আবশ্যক হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

এই এলাকায় মেয়ে ও যুব নারীদের মৌলিক প্রয়োজনীয়তা নিশ্চিতের পাশাপাশি শিশু সুরক্ষা নিশ্চিতে, শিক্ষায় এবং জেন্ডারভিত্তিক সহিংসতা প্রতিরোধেও প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ কাজ করে যাবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

কমিউনিটির কাছে জরুরি সহায়তা পৌঁছে দেওয়ার এই কার্যক্রমের সময় কচাকাটা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাদাত হোসেন ও বল্লভেরখাস ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম আব্দুর রাজ্জাক সঙ্গে ছিলেন। স্বল্পকালীন জরুরি এই সাড়াপ্রদান প্রকল্প বাস্তবায়নে প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশকে সহায়তা করছে ‘মহিদেব যুব সমাজ কল্যাণ সমিতি’।

 

/এআরআর/আরকে/আইএ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
দুই প্রতিষ্ঠানের টানাহেঁচড়া, পান্থকুঞ্জ এখন অপরাধের স্বর্গরাজ্য
দুই প্রতিষ্ঠানের টানাহেঁচড়া, পান্থকুঞ্জ এখন অপরাধের স্বর্গরাজ্য
দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সরকার বদ্ধপরিকর: প্রধানমন্ত্রী
দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সরকার বদ্ধপরিকর: প্রধানমন্ত্রী
জন্মাষ্টমী আজ
জন্মাষ্টমী আজ
কাবুলে নামাজের সময় মসজিদে হামলা, ইমামসহ একাধিক নিহত
কাবুলে নামাজের সময় মসজিদে হামলা, ইমামসহ একাধিক নিহত
এ বিভাগের সর্বশেষ
বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের আর্থিক অনুদান দিলেন ঢাবির সাবেক শিক্ষার্থীরা
বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের আর্থিক অনুদান দিলেন ঢাবির সাবেক শিক্ষার্থীরা
বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ২ হাজার পরিবারকে পুনর্বাসন করছে মাস্তুল ফাউন্ডেশন
বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ২ হাজার পরিবারকে পুনর্বাসন করছে মাস্তুল ফাউন্ডেশন
বন্যায় ১৮ জেলায় ক্ষতি প্রায় ৮৭ হাজার কোটি টাকা
বন্যায় ১৮ জেলায় ক্ষতি প্রায় ৮৭ হাজার কোটি টাকা
একদিনের বেতনের টাকা বন্যার্তদের দিলো নৌবাহিনী
একদিনের বেতনের টাকা বন্যার্তদের দিলো নৌবাহিনী
বন্যায় এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১১৬ জন
বন্যায় এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১১৬ জন