X
শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

শ্রমিকদের মজুরি পুনর্নির্ধারণের দাবি

আপডেট : ২৬ নভেম্বর ২০২১, ১৬:১৬

জীবন-যাপনের ব্যয়ের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে শ্রমিকদের মজুরি পুনর্নির্ধারণের দাবি জানিয়েছে গার্মেন্টস শ্রমিক মুক্তি আন্দোলন। শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক বিক্ষোভ সমাবেশে এ দাবি জানানো হয়।

এ সময় শ্রমিক ছাঁটাই, নির্যাতন ও হয়রানি বন্ধ করাসহ কর্মস্থলে শ্রমিকের স্বাস্থ্য ও জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানায় সংগঠনটি।

সমাবেশে বাংলাদেশের ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য অধ্যাপক আবদুস সাত্তার বলেন, ‘গার্মেন্টস শ্রমিকরা এক অনিশ্চয়তার মধ্য দিয়ে সময় পার করছেন। কারণ, যেকোনও সময় মালিকপক্ষ গার্মেন্টস বন্ধ করে দিতে পারে।  শেখ হাসিনার বর্তমান সরকার শ্রমিকদের সর্বনিম্ন মুজুরি ধার্য করেছিল ৮ হাজার টাকা। আমাদের শ্রমিক সংগঠনগুলোর দাবি ছিল সর্বনিম্ন ১৬ হাজার টাকা দিতে হবে। কিন্তু কেন দিতে পারছে না। আজকে প্রধানমন্ত্রী এবং তার মন্ত্রীরা কত টাকা বেতন পান, বেতনের কথা বাদই দিলাম, তাদের ওভারটাইমও অবিশ্বাস্য।’

তিনি বলেন, ‘আমারা দাবি করেছিলাম— আমাদের রেশন দিতে হবে। আমরা কেন রেশন পাই না?  গ্রামের ক্ষেত মজুররা কেন রেশন পান না?’

তিনি আরও বলেন, ‘‘জিনিসপত্রের দাম বাড়ছে, ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন কারা? শ্রমিক কর্মচারীরা, কৃষক-ক্ষেত মজুররা, নিম্নবিত্ত আয়ের মানুষেরা। আর সরকার বলে— ‘এই মুনাফার টাকা দিয়ে আমরা কর্মচারীদের বেতন দেবো।’  কই এর তেলে কই ভাজা চলবে না।’’

গার্মেন্টস শ্রমিক মুক্তি আন্দোলনের সভাপতি শবনম হাফিজের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন— জাতীয় গণতান্ত্রিক শ্রমিক ফেডারেশনের আহ্বায়ক ও গার্মেন্টস শ্রমিক মুক্তি আন্দোলনের কার‌্যকরী সভাপতি শামীম ইমাম, জাতীয় গণতান্ত্রিক শ্রমিক ফেডারেশনের যুগ্ম আহ্বায়ক নৃপেন্দ্র নাথ বাড়ৈ, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি ইকবাল কবীর, গার্মেন্টস শ্রমিক মুক্তি আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক বিপুল কুমার দাস, সহ-সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান অপু, মিরপুর শিল্পাঞ্চল কমিটির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় দফতর সম্পাদক মনির হোসেন প্রমুখ।

/জেডএ/এপিএইচ/
সম্পর্কিত
চাঁদাবাজির ইন্ধনদাতারাও নজরদারিতে
চাঁদাবাজির ইন্ধনদাতারাও নজরদারিতে
বেড়েছে শীতের তীব্রতা, রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে আরও
বেড়েছে শীতের তীব্রতা, রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে আরও
মৃদু শৈত্যপ্রবাহের শঙ্কা, রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে
মৃদু শৈত্যপ্রবাহের শঙ্কা, রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে
‘অসাবধানতায়’ প্রতিদিন আটকে যাচ্ছে পাঁচশ প্রবাসীর বিদেশযাত্রা
‘অসাবধানতায়’ প্রতিদিন আটকে যাচ্ছে পাঁচশ প্রবাসীর বিদেশযাত্রা
সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
চাঁদাবাজির ইন্ধনদাতারাও নজরদারিতে
চাঁদাবাজির ইন্ধনদাতারাও নজরদারিতে
বেড়েছে শীতের তীব্রতা, রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে আরও
বেড়েছে শীতের তীব্রতা, রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে আরও
মৃদু শৈত্যপ্রবাহের শঙ্কা, রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে
মৃদু শৈত্যপ্রবাহের শঙ্কা, রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে
‘অসাবধানতায়’ প্রতিদিন আটকে যাচ্ছে পাঁচশ প্রবাসীর বিদেশযাত্রা
‘অসাবধানতায়’ প্রতিদিন আটকে যাচ্ছে পাঁচশ প্রবাসীর বিদেশযাত্রা
সিগারেটের দাম বাড়লে খাদ্য ব্যয় কমাবে না ৭১ শতাংশ মানুষ: জরিপ
সিগারেটের দাম বাড়লে খাদ্য ব্যয় কমাবে না ৭১ শতাংশ মানুষ: জরিপ
© 2022 Bangla Tribune