X
শনিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

বিমান ভাড়া প্রবাসী কর্মীদের নাগালে রাখার দাবি

আপডেট : ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ১৫:৪৪

বিমানের টিকিটের দুষ্প্রাপ্যতা এবং টিকিটের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির অভিযোগ জানিয়ে বিমানের ভাড়া কমিয়ে তা প্রবাসী কর্মীদের ক্রয়-ক্ষমতার মধ্যে রাখার দাবি জানিয়েছে বায়রার সম্মিলিত সমন্বয় পরিষদ।

বুধবার (৮ ডিসেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে পরিষদ থেকে এ দাবি করা হয়।

সম্মিলিত সমন্বয় পরিষদ থেকে জানানো হয়, বর্তমানে জনশক্তি রফতানি কার্যক্রম পরিচালনা করতে গিয়ে বিদেশগামী কর্মী ও সংশ্লিষ্ট রিক্রুটিং এজেন্সিগুলো যেসব প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হচ্ছে, তারমধ্যে বিমান টিকিটের দুষ্প্রাপ্যতা এবং টিকেটের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি অন্যতম।

সংগঠনটি থেকে জানানো হয়, আগে যে বিমান টিকিটের মূল্য ছিল ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা সেই টিকিট এখন ৭৫-৯০ হাজার টাকাতেও পাওয়া যাচ্ছে না। অতীতেও সুযোগ বুঝে অনেকবার এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটানো হয়েছে। বিষয়টি সমাধানের লক্ষ্যে তখন থেকেই আমরা নানাভাবে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা চালিয়ে আসলেও, যথাযথ কর্তৃপক্ষ বিষয়টির কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় বিমান টিকিট নিয়ে বারবার এই অস্বাভাবিক পরিস্থিতির উদ্ভব হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে বায়রার সদস্যরা বলেন, আন্তর্জাতিক রুটে চলাচলকারী যাত্রীদের সর্বোচ্চ ১৫ থেকে ২০ শতাংশ যাত্রী বাংলাদেশ বিমানে যাতায়াত করলেও, অবশিষ্ট প্রায় ৮০ শতাংশ যাত্রী বিদেশি বিমানে যাতায়াত করে থাকে। দেশীয় বিমান সংস্থা বাংলাদেশ বিমান নিজেদেরকে লাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রমাণ করার জন্য বিভিন্ন সেক্টরে অপ্রয়োজনীয় মূল্য বৃদ্ধি করে। ফলে বিদেশি এয়ারলাইন্সগুলো বিমানকে অনুসরণ করে পাল্লা দিয়ে ভাড়া বৃদ্ধি করে থাকে। ফলশ্রুতিতে টিকিটের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির সুযোগে বিদেশি এয়ারলাইন্সগুলো বাংলাদেশ থেকে অতিরিক্ত হাজার হাজার ডলার হাতিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। ফলে প্রবাসগামী নিরীহ কর্মীরা নিষ্পেষিত হচ্ছে মন্তব্য করেন তারা।

তারা আরও বলেন, এমন অবস্থায় আমাদের স্পষ্ট দাবি, বাংলাদেশ থেকে আন্তর্জাতিক রুটে বিমান পরিচালনার ক্ষেত্রে কঠোর নীতিমালা প্রণয়নের মাধ্যমে অবিলম্বে এয়ার টিকিটের মূল্য সহনীয় পর্যায়ে নামিয়ে এনে অসহায় কর্মীদের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে নির্ধারণ করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে বায়রার পক্ষ থেকে আরও দাবি জানানো হয় - বর্তমানে প্রায় ৪০ থেকে ৫০ হাজার অপেক্ষমাণ বিদেশগামী যাত্রীদের সংকট সমাধানের জন্য অনতিবিলম্বে স্পেশাল ফ্লাইটের ব্যবস্থা করতে হবে; কোন ট্রাভেল এজেন্সির কাছে কোন অগ্রিম টিকিট ইস্যু না করে সকল এয়ারলাইন্সের সকল প্রকার অবিক্রিত আসন দৃশ্যমান রাখতে হবে।

এছাড়াও আরও দাবি জানানো হয়, বিদেশগামী কর্মীদের জন্য লেবার ফেয়ার চালু করতে হবে; দেশের বিমান সংস্থা বাংলাদেশ বিমানকে ভাড়ার মডেল তৈরি করে বিদেশি এয়ারলাইন্সগুলোকে সেটি অনুসরণের উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে; কোনও গন্তব্যে হঠাৎ যাত্রী সংখ্যা বৃদ্ধি পেলে সেই রুটে বিমান বাংলাদেশকে যথাশীঘ্র স্পেশাল ফ্লাইটের ব্যবস্থা গ্রহণ করাসহ সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের তদারকির মাধ্যমে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন রুটে সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ ভাড়া নির্ধারণ করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে বায়রার সাবেক সভাপতি আবুল বাশার, সাবেক মহাপরিচালক আলী হায়দার চৌধুরী, অর্থ সচিব ফখরুল ইসলামসহ অন্যান্য নেতা-কর্মী এবং বিভিন্ন প্রবাসীরা উপস্থিত ছিলেন।

/জেডএ/এমএস/
সম্পর্কিত
ঘুড়ি ওড়াতে গিয়ে ৭ তলা থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু
ঘুড়ি ওড়াতে গিয়ে ৭ তলা থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু
হোটেল নির্মাণে জলাধার বরাদ্দ দেয় রেলওয়ে, উদ্ধার করলেন মেয়র
হোটেল নির্মাণে জলাধার বরাদ্দ দেয় রেলওয়ে, উদ্ধার করলেন মেয়র
টাউন হল মার্কেটে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে জরিমানা
টাউন হল মার্কেটে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে জরিমানা
জানুয়ারি মাসে একদিনও ভালো বায়ু পায়নি রাজধানীবাসী
জানুয়ারি মাসে একদিনও ভালো বায়ু পায়নি রাজধানীবাসী
সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
ঘুড়ি ওড়াতে গিয়ে ৭ তলা থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু
ঘুড়ি ওড়াতে গিয়ে ৭ তলা থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু
হোটেল নির্মাণে জলাধার বরাদ্দ দেয় রেলওয়ে, উদ্ধার করলেন মেয়র
হোটেল নির্মাণে জলাধার বরাদ্দ দেয় রেলওয়ে, উদ্ধার করলেন মেয়র
টাউন হল মার্কেটে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে জরিমানা
টাউন হল মার্কেটে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে জরিমানা
জানুয়ারি মাসে একদিনও ভালো বায়ু পায়নি রাজধানীবাসী
জানুয়ারি মাসে একদিনও ভালো বায়ু পায়নি রাজধানীবাসী
রাজধানীতে ডিম বোঝাই ভ্যানচালক নিহতের ঘটনায় ট্রাকচালক গ্রেফতার
রাজধানীতে ডিম বোঝাই ভ্যানচালক নিহতের ঘটনায় ট্রাকচালক গ্রেফতার
© 2022 Bangla Tribune