প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি হতে স্নাতক ডিগ্রি থাকতে হবে

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০২:১০, নভেম্বর ১২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:৫৭, নভেম্বর ১২, ২০১৯

 

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি হতে ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা হতে হবে স্নাতক ডিগ্রিধারী। আর বিদ্যোৎসাহী দুই সদস্যের শিক্ষাগত যোগ্যতা লাগবে এসএসসি পাস। এসব শর্ত যুক্ত করে নতুন নীতিমালা জারি করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের উপসচিব জাহানারা বেগম স্বাক্ষরিত (৬ নভেম্বর) নীতিমালাটি সোমবার (১১ নভেম্বর) প্রকাশ করা হয়েছে। 

এর আগে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটিতে সভাপতি হওয়ার জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতার শর্ত ছিল না। নতুন নীতিমালা অনুযায়ী ১১ সদস্যের ব্যবস্থাপনা কমিটির মেয়াদ হবে ৩ বছর। কমিটির সদস্য সচিব থাকবেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। এছাড়া শিক্ষক প্রতিনিধি থাকবেন একজন। বিদ্যালয়ের জমিদাতা বা তার উত্তরাধিকারী সদস্য থাকবেন একজন। উপজেলা শিক্ষা কমিটির সিদ্ধান্তে এই সদস্য মনোনীত হবেন।

অভিভাবকদের মধ্যে একজন বিদ্যোৎসাহী নারী এবং একজন পুরুষ সদস্য থাকবেন। এই দুই জন সদস্যের ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা হতে হবে এসএসসি পাস। এই দুই জন সদস্য মনোনীত করার ক্ষেত্রে প্রধান শিক্ষককে স্থানীয় সংসদ সদস্যের পরামর্শ নিতে হবে। অভিভাবকদের মধ্য থেকে দুই জন পুরুষ ও দুইজন নারী অভিভাবক থাকবেন। এই চারজন সদস্য নির্বাচিত করবেন অভিভাবকরা। সহকারী উপজেলা বা সহকারী থানা শিক্ষা অফিসারের নেতৃত্বে নির্বাচন পরিচালনা করতে হবে।

একই উপজেলার সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয় এলাকার কাছাকাছি যেকোনও সরকারি বা বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বা শিক্ষিকা একজন সদস্য থাকবেন।

এছাড়া সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয় এলাকার ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য বা পৌর এলাকার ওয়ার্ড কমিশনার বা সিটি করপোরেশন এলাকার কাউন্সিলর সদস্য থাকবেন।

কোনও বিদ্যালয়ে যুক্তিসঙ্গত কারণে ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠন করা না গেলে সর্বোচ্চ ৬ মাসের জন্য অ্যাডহক কমিটি গঠন করা যেতে পারে। ছয় মাসের মধ্যে নিয়মিত কমিটি গঠন করতে হবে। সভাপতি হবেন সংশ্লিষ্ট ক্লাস্টারের সহকারী উপজেলা বা থানা শিক্ষা অফিসার। ৫ সদস্যের অ্যাডহক কমিটির সদস্য সচিব থাকবেন প্রধান শিক্ষক।

 

/এসএমএ/এনআই/এমএমজে/

লাইভ

টপ