‘বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে নারীর অবদান অসামান্য’

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২০:৫৬, ডিসেম্বর ০৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৫৯, ডিসেম্বর ০৭, ২০১৯

‘আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বিগত বছরগুলোতে বাংলাদেশ ঈর্ষণীয় সাফল্য অর্জন করেছে। এই অর্জনের ক্ষেত্রে নারীদের অবদান অসামান্য। বাংলাদেশের নারীরা জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে সক্রিয় রয়েছেন, ক্রিকেট খেলছেন, হিমালয় জয় করছেন।’
দ্য হাঙ্গার প্রজেক্ট-এর ‘নারী নেতৃত্ব বিকাশ কর্মসূচি’র আওতায় বিকশিত নারী নেটওয়ার্ক-এর ষষ্ঠ জাতীয় সম্মেলনে ইউএন উইমেন বাংলাদেশের কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ শোকো ইশিকাওয়া এসব কথা বলেন। রাজধানীর আগারগাঁওয়ের এলজিইডি মিলনায়তনে শনিবার (৭ ডিসেম্বর) অনুষ্ঠিত এ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, ‘আগামী বছর বেইজিং প্লাস ফাইভ সম্মেলনের ২৫ বছর পূর্ণ হতে যাচ্ছে। এ উপলক্ষে আয়োজিত কর্মসূচিতে আমরা নারীদের অবদান তুলে ধরতে চাই।’
দ্য হাঙ্গার প্রজেক্ট এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানিয়েছে।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সম্মেলনে দ্য হাঙ্গার প্রজেক্ট-এর গ্লোবাল অ্যাম্বাসেডর ক্যাথি বার্ক বলেন, ‘যতবারই আমি বাংলাদেশে এসেছি, ততবারই আমি নতুন উদ্দীপনা পেয়েছি। এই উদ্দীপনা আমাদের নারী-পুরুষের জন্য একটি সমতাপূর্ণ বিশ্ব গড়ে তোলায় অনুপ্রেরণা যোগায়, পথ দেখায়।’
দ্য হাঙ্গার প্রজেক্ট-এর গ্লোবাল ভাইস প্রেসিডেন্ট ও কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, ‘বিকশিত নারী নেটওয়ার্ক-এর সঙ্গে যুক্ত হয়ে আপনারা নিজেদের জীবন, আপনার পরিবারের আপনজনদের জীবন এবং সমাজের মানুষের জীবনমানের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছেন।’
তিনি বলেন, ‘আজ আপনার সংগঠিত শক্তি, আপনারা একা নন। আমি আশা করি, সমাজ উন্নয়নে আপনাদের বর্তমান কাজ অব্যাহত থাকবে।’ এসময় তিনি জানান, দ্য হাঙ্গার প্রজেক্ট, বাংলাদেশ-এর উদ্যোগে সারাদেশের প্রায় ৯ হাজার নারী ‘নারী নেতৃত্ব বিকাশ’ ফাউন্ডেশন প্রশিক্ষণে অংশ নিয়েছেন। তারা তৃণমূল পর্যায়ে স্বেচ্ছায় বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছেন।
সম্মেলনে তৃণমূলে নারী নেতৃত্ব বিকাশ কর্মসূচির মাধ্যমে নারীদের সচেতন, সক্রিয় ও সংগঠিত করে একটি আত্মনির্ভরশীল ও আত্মমর্যাদাপূর্ণ ভবিষ্যৎ গড়ে তোলার লক্ষ্যে একটি ঘোষণাপত্র পাঠ করা হয়। উপস্থিত নারীনেত্রীরা ঘোষণাপত্রে উল্লেখিত অঙ্গীকারগুলো বাস্তবায়নে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

/ইউআই/এইচআই/

লাইভ

টপ