বিয়ের উপহারের সাড়ে ৫ লাখ টাকা নিয়ে সটকে পড়েন ‘অতিথি’

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২০:১৪, অক্টোবর ২৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:০১, অক্টোবর ২৭, ২০২০

বিয়েবিয়ের অনুষ্ঠান থেকে উপহারের নগদ সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা চুরির সঙ্গে জড়িত একজনকে গ্রেফতার করেছে মিরপুর মডেল থানা পুলিশ। মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) বিকালে মিরপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাজিরুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য জানান। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির নাম খলিলুর রহমান (৪৩)। তার গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালী জেলায়।
ওসি জানান, গত ২ অক্টোবর সন্ধ্যায় মিরপুর কলওয়ালাপাড়া স্বাধীন বাংলা সুপার মার্কেটের তৃতীয় তলায় সিটি মহল চাইনিজ রেস্টুরেন্টে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে অতিথিদের উপহার দেওয়া নগদ ৫ লাখ ৫৯ হাজার টাকার একটি ব্যাগ চুরি করে কৌশলে এক ব্যক্তি পালিয়ে যায়। এই ঘটনায় কনের মামা একটি মামলা করেন। এরপর মিরপুর মডেল থানা তদন্ত শুরু করে। ব্যাগটি শনাক্তে বিয়েতে আসা অতিথি, ফটোগ্রাফার, বাবুর্চি ও চাইনিজে রেস্টুরেন্টের স্টাফদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ।
চাইনিজ রেস্টুরেন্টের সিসি ক্যামেরা ও অনুষ্ঠানে থাকা ভিডিও ক্যামেরার ফুটেজ যাচাই-বাছাই করে একজনকে শনাক্ত করা হয়। ওই ব্যক্তির বিষয়ে বর ও কনে পক্ষের সবাইকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তবে কেউ তাকে চেনে না। পরবর্তীতে পুলিশ প্রযুক্তির সহায়তায় ২৬ অক্টোবর সকালে মিরপুরের ২নং পানির ট্যাংক এলাকা থেকে খলিলুর রহমানকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের পর খলিল চুরির কথা স্বীকার করেছে।
ওসি জানান, অনুষ্ঠানে বর ও কনে পক্ষের অন্তত ছয়শ’ অতিথি উপস্থিত ছিলেন। অতিথিদের দেওয়া উপহার নগদ পাঁচ লাখ ঊনষাট হাজার টাকা একটি কালো ব্যাগে রেখেছিল কনের ভাই হানিয়ার হোসেন। তিনি অন্যমনস্ক হওয়ার পর খলিল সুকৌশলে টাকার ব্যাগটি চুরি করে পালিয়ে যায়। গ্রেফতারের পর তার বাসা থেকে অনুষ্ঠানের দিন পরা পোশাক ও চুরি যাওয়া ব্যাগ এবং তিন হাজার টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ। বর্তমানে পুলিশ রিমান্ডে রয়েছে খলিল। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে সে জানিয়েছে, টাকা চুরি করার পর সে গ্রামে গিয়েছিল। টাকা খরচ করে ফেলছে। পুলিশের কাছে ২ লাখ ৭৫ হাজার টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করেছে সে।

/এআরআর/এমআর/এমওএফ/

লাইভ

টপ