জাদু ভিশন লিমিটেডকে কোয়াবের হুঁশিয়ারি

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:৫০, অক্টোবর ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫৩, অক্টোবর ২৮, ২০২০

আগামী সাত দিনের মধ্যে বন্ধ হওয়া স্টার কোম্পানির সিগন্যাল পুনঃসংযোজনের ব্যবস্থা করা না হলে স্টার গ্রুপের সকল চ্যানেল বয়কট করার ঘোষণা দিয়েছে ক্যাবল অপারেটর এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব)। বুধবার (২৮ অক্টোবর) জাতীয় প্রেসক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই হুঁশিয়ারি দেন কোয়াব সভাপতি এস এম আনোয়ার পারভেজ।

তিনি সংবাদ সম্মেলনে বলেন, জাদু ভিশন লিমিটেড বিভিন্ন নেটওয়ার্কে অযাচিতভাবে  অব্যবসায়ীদের দিয়ে প্রকৃত ব্যবসায়ীর ব্যবসা জোরপূর্বক দখল করে নিয়েছে। তারা বিভিন্নভাবে অবৈধ ডিকোডার বক্স প্রবাহিত করেছে এবং যেসকল অপারেটরের বকেয়া রয়েছে তাদের সংযোগ সরাসরি বিচ্ছিন্ন করেছে, যেটা সরাসরি বিচ্ছিন্ন করতে সে পারে না। এই সমস্যাগুলো নিয়ে যখন তাদের সঙ্গে বসেছি তখন তারা একমত হয়েছে যে এগুলো ঠিক হয়নি। কিন্তু পরবর্তীতে এই সমস্যাগুলো তারা সমাধান করেন নাই। সে ডিসট্রিবিউশনটাকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করেছে। আমাদের তৈরিকৃত খাতে সে ২০১০ সালে অন্তর্ভুক্ত হয় অস্থিতিশীল পরিস্থিতির তৈরি করে ফায়দা লুটার চেষ্টা করছে। বিভিন্ন সময় তাদের সঙ্গে আমরা বসে আছি এবং তারা একমত হয়েছিলেন। কিন্তু পরবর্তীকালে তারা তাদের কথা রাখেনি। যে কারণে আমরা তাদের পেমেন্ট বন্ধ রেখেছি। তারা যদি আমাদের সমস্যার সমাধান করে তবেই আমরা তাদের পেমেন্ট করব। তাদের পেমেন্ট নিয়ে আমরা প্রস্তুত।

সংবাদ সম্মেলনে যাদু ভিশন লিমিটেডকে তিনটি সমস্যা সমাধানের জন্য আহ্বান জানানো হয়। তাদের সমস্যাগুলো হচ্ছে— জাদু ভিশন লিমিটেডের বিভিন্ন নেটওয়ার্কে বন্ধকৃত স্টারের সিগনাল আগামী ৭ দিনের মধ্যে পুঃসংযোজনের ব্যবস্থা করতে হবে; কেবল অপারেটরদের প্রদানকৃত নবায়ন ফি পরিশোধের বিপরীতে টাকার প্রাপ্ত রশিদ অনতিবিলম্বে প্রদান করতে হবে এবং জাদু ভিশন লিমিটেডের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান জাদু ডিজিটালের মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্ত ক্যাবল অপারেটরদের সমস্যাসমূহ অতি দ্রুত সমাধান করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলন থেকে হুঁশিয়ারি করে বলা হয়, এই সমস্যা আগামী ৭ দিনের মধ্যে সমাধান করা না হলে আগামী ৪ নভেম্বর সন্ধ্যা ছয়টা থেকে স্টার গ্রুপের চ্যানেল (স্টার প্লাস, স্টার জলসা, ন্যাশনাল জিওগ্রাফি, স্টার গোল্ড ও লাইফ ওকে) আমরা পরিবেশন বন্ধ রাখবো।

সংবাদ সম্মেলনে দেশের বিভিন্ন জেলার ক্যবল অপারেটরা উপস্থিত ছিলেন।

 

/এইচএন/এফএএন/

লাইভ

টপ