X
সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২
১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
গণসংহতি আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

এবারের লড়াই হবে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার: সাকি

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২৯ আগস্ট ২০২২, ১৮:০৫আপডেট : ২৯ আগস্ট ২০২২, ১৮:১৭

সাংগঠনিক তৎপরতার দুই দশক ও রাজনৈতিক দল হিসেবে আত্মপ্রকাশের ৭ বছর পালন করেছে গণসংহতি আন্দোলন। এ উপলক্ষে সোমবার (২৯ আগস্ট) জাতীয় স্মৃতিসৌধে মুক্তি-সংগ্রামের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে দলটি।

শ্রদ্ধাজ্ঞাপন শেষে দলের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘২০০২ সালে গণসংহতি আন্দোলন যাত্রা শুরু করে গণমানুষের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক দাবিকে এগিয়ে নিতে আমাদের সামর্থ্যের সবটুকু দিয়ে সচেষ্ট থেকেছি। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৫ সালে রাজনৈতিক দল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে গণমানুষের পক্ষে এ দেশে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করে যাচ্ছে গণসংহতি আন্দোলন।’

জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘আমরা যখন ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য লড়ছি, তা আসলে এই শাসন ব্যবস্থা পরিবর্তনের সংগ্রাম। এবারের লড়াই ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার লড়াই। এবারের লড়াই এমনভাবে গড়ে উঠবে, যার মধ্য দিয়ে দেশে একটি সত্যিকারের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা গড়ে উঠবে। জবাবদিহি প্রতিষ্ঠা করা যাবে। জনগণের শাসন প্রতিষ্ঠা করা যাবে।’

নির্বাহী সমন্বয়কারী আবুল হাসান রুবেল বলেন, ‘বর্তমানে যে সরকার জনগণের অধিকার হরণ করে শাসন কায়েম করেছে, তাদের বিদায় নিতে হবে। সেজন্য জনগণের বৃহত্তর ঐক্য গঠনের প্রক্রিয়ায় আমরা গণতন্ত্র মঞ্চ গঠন করেছি। অন্যান্য দলের সঙ্গে যুগপৎ আন্দোলনের মাধ্যমে আমরা জনগণের বৃহত্তর ঐক্য তৈরি করতে চাই।’

শ্রদ্ধা নিবেদনকালে উপস্থিত ছিলেন গণসংহতি আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, নির্বাহী সমন্বয়কারী আবুল হাসান রুবেল, রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য মনির উদ্দিন পাপ্পু, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য জুলহাসনাইন বাবু, দীপক রায়, কার্যনির্বাহী সদস্য মিজানুর রহমান মোল্লাসহ বিভিন্ন থানা কমিটির নেতাকর্মীরা।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দুই মাসব্যাপী কর্মসূচির সূচনা হিসেবে জাতীয় স্মৃতিসৌধে মুক্তি-সংগ্রামের শহীদদের প্রতি দলের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করে গণসংহতি।

/এসটিএস/এপিএইচ/এমওএফ/
নৌ শ্রমিকদের কর্মবিরতিতে অচল খুলনা ও নওয়াপাড়া নদী বন্দর
নৌ শ্রমিকদের কর্মবিরতিতে অচল খুলনা ও নওয়াপাড়া নদী বন্দর
সচিবদের যেসব নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী
সচিবদের যেসব নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী
মেয়র হানিফের জীবন ও কর্ম অনুসরণের আহ্বান রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর
মেয়র হানিফের জীবন ও কর্ম অনুসরণের আহ্বান রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর
চাকরি ছাড়ছেন ডিএনসিসির পাঁচ ভেটেরিনারি কর্মকর্তাই!
চাকরি ছাড়ছেন ডিএনসিসির পাঁচ ভেটেরিনারি কর্মকর্তাই!
সর্বাধিক পঠিত
সরকারি কর্মচারীদের সম্পদের আলাদা হিসাব দিতে হবে না
সরকারি কর্মচারীদের সম্পদের আলাদা হিসাব দিতে হবে না
সুইজারল্যান্ডকে বিশ্বকাপে কখনও হারাতে পারেনি ব্রাজিল
সুইজারল্যান্ডকে বিশ্বকাপে কখনও হারাতে পারেনি ব্রাজিল
প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ সোমবার
প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ সোমবার
ভারতকে বাদ দিয়ে এ অঞ্চলের দেশগুলোর সঙ্গে বৈঠক চীনের
ভারতকে বাদ দিয়ে এ অঞ্চলের দেশগুলোর সঙ্গে বৈঠক চীনের
বেলজিয়ামকে হারিয়ে দিলো মরক্কো
বেলজিয়ামকে হারিয়ে দিলো মরক্কো