পুরোনো ছকেই জিম্বাবুয়ে বধ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২২:০৭, জানুয়ারি ১৫, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:১২, জানুয়ারি ১৫, ২০১৮

ম্যাচের প্রথম ওভারেই দুই উইকেট তুলে নিয়ে জিম্বাবুয়েকে চাপে ফেলে দেন সাকিব। ছবি-বিসিবিজিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের স্পিনাররা দারুণ সফল, বিশেষ করে বাঁহাতি স্পিনাররা। তাই ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচে সানজামুল ইসলামকে একাদশে রেখেছে টাইগাররা। আর সাকিব আল হাসান তো ছিলেনই। দুই বাঁহাতি স্পিনার দুই প্রান্ত থেকে বোলিং শুরু করে রীতিমতো চেপে ধরেছেন প্রতিপক্ষকে।

ওয়ানডেতে ৬৮তম মুখোমুখি লড়াইয়ে বাংলাদেশের সামনে জিম্বাবুয়ে দাঁড়াতেই পারেনি, মাশরাফির দল সহজেই ৮ উইকেটে জিতেছে। সোমবার পর্যন্ত ওয়ানডেতে জিম্বাবুয়ের ৪৯৩ উইকেট শিকার করেছেন বাংলাদেশের বোলাররা। এর মধ্যে স্পিনারদের ২৬২ আর পেসারদের ২৩১ উইকেট। স্পিনারদের ২৬২ উইকেটের ২০১টিই নিয়েছেন বাঁহাতিরা।

স্পিন বোলিংয়ে জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানদের দুর্বলতার কারণে ইনিংসের শুরুতে সাকিবের হাতে বল তুলে দেন অধিনায়ক মাশরাফি। আর দ্বিতীয় ওভারে আক্রমণে নিয়ে আসেন সানজামুলকে। সংবাদ সম্মেলনে সাকিব বললেন, ‘জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আমাদের সাফল্যের অন্যতম কারণ স্পিন। ম্যাচের শুরুর দিকে উইকেট বেশ স্পিন সহায়ক ছিল। দ্রুত উইকেট নেওয়ার পরিকল্পনা ছিল আমাদের। জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানরা স্পিনের চেয়ে পেস বোলিংয়ে স্বস্তি বোধ করে। তাই আমরা স্পিন দিয়ে আক্রমণ শুরু করেছি।’

বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্ত, এখন থেকে ওয়ানডেতে তিন নম্বরে ব্যাটিং করবেন সাকিব। এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো তিনে নামলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। ২০১৪ সালের নভেম্বরে জিম্বাবুয়ের সঙ্গেই প্রথমবার রানের খাতা খুলতে পারেননি। গত অক্টোবরে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে করেছিলেন ২৯ রান, আর সোমবার তার ব্যাট থেকে এসেছে ৩৭ রান। তিন নম্বরে ব্যাটিং নিয়ে সাকিবের মন্তব্য, ‘ওয়ানডেতে তৃতীয়বারের মতো তিন নম্বরে ব্যাটিং করলাম। এটা আমার জন্য নতুন চ্যালেঞ্জ, আর চ্যালেঞ্জ উপভোগ না করলে সাফল্য পাওয়া কঠিন। পরের ম্যাচে ইনিংস আরও বড় করার চেষ্টা করবো।’

/আরআই/এএআর/

লাইভ

টপ