অস্ট্রেলিয়ানদের স্বপ্ন ভাঙলেন কেনিন

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১২:০৩, জানুয়ারি ৩০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:০৫, জানুয়ারি ৩০, ২০২০

ফাইনালে ওঠার আনন্দে ভাসলেন কেনিনঅন্য আমেরিকান টেনিস খেলোয়াড়দের ছায়ায় দীর্ঘদিন ঢাকা পড়েছিলেন সোফিয়া কেনিন। এবার আলো কাড়লেন ২১ বছর বয়সে প্রথম গ্র্যান্ড স্লাম ফাইনালে উঠে। মেয়েদের বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর অ্যাশলি বার্টিকে হারিয়ে অস্ট্রেলিয়ানদের স্বপ্ন ভাঙলেন মেলবোর্নের কোর্টে।

আজ বৃহস্পতিবার সেমিফাইনালে দুই সেটেই হার থেকে এক পয়েন্ট দূরে ছিলেন কেনিন। সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়ান। ৭-৬ (৬), ৭-৪ গেমে বার্টিকে হারিয়ে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালে উঠলেন। তাতে ৪০ বছর পর প্রথমবার কোনও স্বদেশী মেয়েকে দেশের গ্র্যান্ড স্লাম ফাইনালে দেখার স্বপ্ন ভেঙে চুরমার।

এর আগে কোনও গ্র্যান্ড স্লামের চতুর্থ রাউন্ডই পার হতে পারেননি কেনিন। সেই তিনিই এখনও ফাইনালে, ‘এটা একদমই সহজ ছিল না।’ রাশিয়ায় জন্ম নেওয়া কেনিন ফ্লোরিডায় পাড়ি দেন ছোট্টবেলায়। টেনিস কোর্টে তিনি নজর কাড়েন গত বছর তিনটি একক শিরোপা জিতে এবং ফ্রেঞ্চ ওপেনে তৃতীয় রাউন্ডে সেরেনা উইলিয়ামসকে বিদায় করে।

সেমিফাইনালের আগে কোনও বাছাই প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হননি কেনিন। বার্টির সঙ্গে গ্র্যান্ড স্লামে আগেও দেখা হয়েছিল আমেরিকান তরুণীর। গত বছর ফ্রেঞ্চ ওপেন জেতার পথে অস্ট্রেলিয়ানের কাছে হেরে যান চতুর্থ রাউন্ডে। ২০০২ সালে উইম্বলডনে ভেনাস উইলিয়ামসকে হারানো সেরেনার পর প্রথম আমেরিকান হিসেবে বড় মঞ্চে এক নম্বর খেলোয়াড়কে হারালেন কেনিন।

আগামী শনিবার ট্রফির লড়াইয়ে নামবেন এ আমেরিকান। তার প্রতিপক্ষ চূড়ান্ত হবে সিমোনা হালেপ ও গারবিন মুগুরুজার সেমিফাইনাল শেষে। আপাতত জয়টা উপভোগ করতে চান কেনিন, ‘আমি এখন কিছু ভাবতে চাই না। এখন একটু বিশ্রামে থাকবো, উপভোগ করতে চাই মুহূর্তটা। আমি ফাইনাল খেলতে মুখিয়ে।’

/এফএইচএম/

লাইভ

টপ